Comm AD 12 Myra

'গদ্দার'দের আস্তাকুঁড়ে ছুঁড়ে ফেলল বাংলা

Share Link:

'গদ্দার'দের আস্তাকুঁড়ে ছুঁড়ে ফেলল বাংলা

নিজস্ব প্রতিনিধি: শুরু হয়েছিল ২০১৭ সাল থেকে। তৃণমূলের বিশ্বস্ত সৈনিক মুকুল রায় শিবির বদলে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। তারপর ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের আগেও নিশীথ প্রামাণিক, অর্জুন সিং-সহ কয়েকজন গিয়েছিলেন গেরুয়াশিবিরে। তবে একুশের নির্বাচনের আগেই দলবদলের ঢল নেমেছিল বাংলায়। তার মধ্যেও অবশ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়ার হিড়িক ছিল বেশি। তবে অনেকেই আবার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে এসে প্রার্থী হয়েছিলেন। কেউ আবার বাম ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন। তবে তখন থেকেই শাসকদল তৃণমূল শ্লোগান তুলেছিল, 'তৃণমূলের ভাঙিয়ে নেতা, সহজ নয় ভোটে জেতা'। মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারী জিতলেও বেশিরভাগ 'দলবদলু' প্রার্থীই এবার হেরেছেন। 

শুভেন্দু অধিকারী:  তৃণমূলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নেতা শুভেন্দু অধিকারীর দলবদলের পর থেকেই রাজ্যে বিজেপি হাওয়া প্রবল ভাবে বইতে শুরু করে। নন্দীগ্রামের প্রাক্তন বিধায়কের প্রথমে অন্য কোনও জায়গা থেকে ভোট লড়বার গুঞ্জন উঠলেও শেষ পর্যন্ত নিজের কেন্দ্রেই প্রার্থী হন তিনি। তবে তার অনেক আগেই শুভেন্দুর চ্যালেঞ্জ মেনে নিয়ে নন্দীগ্রামে প্রার্থী হন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটের দিন বয়ালে এক হুলুস্থুলু কাণ্ড ঘটে যায়। তারপর ভোট গণনার দিনও ফের নাটকীয় মোড়। প্রথমে সংবাদসংস্থা দাবি করেছিল ১২০২ ভোটে জিতে গিয়েছেন মমতা। তবে পরে শুভেন্দু দাবি করেন নন্দীগ্রামে না কি তিনিই জিতেছেন। যদিও কমিশন এব্যাপারে সন্ধে সাতটা পর্যন্ত কিছু জানায়নি।

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়: শুভেন্দুর পর হেভিওয়েট মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়াটাই ছিল বিজেপির সবথেকে বড় চমক।দল ছাড়ার পর তৃণমূলের বিরুদ্ধে একাধিক ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তিনি। ২০১৬ সালে একলক্ষেরও বেশি ভোটে তৃণমূলের টিকিটে জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু এবার প্রায় ৩০ হাজার ভোটে পরাজিত হলেন তৃণমূল প্রার্থী কল্যাণেন্দু ঘোষের কাছে।

সব্যসাচী দত্ত: লোকসভা ভোটের পরেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন রাজারহাট-নিউটাউন বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। একুশের নির্বাচনে তিনি নিজের এলাকা বিধাননগর থেকেই প্রার্থী হন পদ্ম প্রতীকে। তাঁর বিরুদ্ধে লড়েন প্রধান বিরোধী সুজিত বসু। লড়াইও হয়েছে সমানে সমানে। তবে শেষ পর্যন্ত হারতে হল সব্যসাচীকে। এমনকী, নিজের পুরনো কেন্দ্র রাজারহাট-গোপালপুরেও ধাক্কা খেল বিজেপি। 

প্রবীর ঘোষাল: ভোটের মুখে তিনিও দলবদল করেছিলেন। গত লোকসভায় হুগলিতে বিজেপির ফল দেখে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন প্রবীর ঘোষাল। কিন্তু তৃণমূলের প্রতীক ছাড়া তিনি যে আদপে কিছুই নন তা আবার প্রমাণিত হল। তৃণমূল তারকা প্রার্থী কাঞ্চন মল্লিকের কাছে ধরাশায়ী হলেন তিনি। শুধু তিনি নন, লোকসভার সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যাও চুঁচুড়ায় হেরে গেলেন।

রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য: সিঙ্গুরের চারবারের বিধায়ক কিন্তু বয়সের কারণে মাস্টারমশাই রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যকে টিকিট দেয়নি তৃণমূল। তাঁতেই ক্ষুব্ধ রবীন্দ্রনাথ রাতারাতি বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। তাঁকে প্রার্থীও করেছিল বিজেপি। তাঁর বিরুদ্ধে তৃণমূলের প্রার্থী ছিলেন তাঁরই 'শিষ্য' বেচারাম মান্নাকে। তবে পঞ্চমবার আর জিততে পারলেন না রবীন্দ্রনাথ। তাঁকে ২৫ হাজার ৯৩৩ ভোটে হারিয়ে জয়ী হলেন বেচারাম মান্না।

জিতেন্দ্র তিওয়ারি: সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে কার্যত আদায় কাঁচকলা সম্পর্ক ছিল তাঁর। একবার বিজেপিতে যাওয়ার আওয়াজ তুললেও সে যাত্রায় যাননি। পরে অবশ্য গেরুয়া শিবিরেই যোগ দেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে তৃণমূল প্রার্থী নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয় এই আসনটিতেও। 

বৈশালী ডালমিয়া: বালির প্রাক্তন বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। এই কেন্দ্রে তাঁর পরাজয় একপ্রকার নিশ্চিতই ছিল। তবে অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো সিপিএম প্রার্থী দীপ্সিতা ধর জয়ী হবেন। শেষ পর্যন্ত এই কেন্দ্রেও জয় ধরে রাখল তৃণমূল।

এছাড়াও কংগ্রেস থেকে তৃণমূলে আসা অরিন্দম ভট্টাচার্যও ভোটের মুখে দল বদলে বিজেপিতে গিয়েছিলেন। শান্তিপুরের প্রাক্তন বিধায়ক এবার বিজেপির টিকিটে জগদ্দল থেকে জিতলেন। অন্যদিকে তৃণমূল থেকে গিয়ে বিজেপির প্রার্থী হয়ে হেরে গেলেন শীলভদ্র দত্ত, বিশ্বজিৎ কুণ্ডু। আবার রিঙ্কু নস্কর সিপিএম থেকে বিজেপিতে গিয়ে যাদবপুরে প্রার্থী হয়েছিলেন। একুশের ভোটে তিনি হেরে গেলেন। সিপিএম থেকে বিজেপিতে গিয়ে শিলিগুড়িতে জয় পেলেন শঙ্কর ঘোষ। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে গিয়ে হারতে হল ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষকে। যদিও খড়গপুরে জয় পেলেন হিরণ। এদিকে বিজেপি থেকে তৃণমূলে গিয়ে প্রার্থী হয়েছিলেন সুজাতা মণ্ডল খাঁ। আরামবাগে হেরে গেলেন তিনি।

Comm Ad 005 TBS

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

2020 New Ad HDFC 05

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 006 TBS

কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণ দিবসে শ্রদ্ধা 
জানালেন ফিরহাদ হাকিম

কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণ দিবসে শ্রদ্ধা জানালেন ফিরহাদ হাকিম

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আবক্ষ মূর্তীতে মাল্যদান করে বিশেষ শ্রদ্ধা জানালেন পুরপ্রশাসক ও রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আবক্ষ মূর্তীতে মাল্যদান করে বিশেষ শ্রদ্ধা জানালেন পুরপ্রশাসক ও রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

কোভিড হাসপাতালে পরিণত হল ইসলামিয়া হাসপাতাল, উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

কোভিড হাসপাতালে পরিণত হল ইসলামিয়া হাসপাতাল, উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

জামিনে মুক্ত হয়েই শুক্রবার রাত থেকেই কাজে নামেন ববি হাকিম, আজ এক হাসপাতালের উদ্বোধনে হাজির রাজ্যের মন্ত্রী ও পুরপ্রশাসক

জামিনে মুক্ত হয়েই শুক্রবার রাত থেকেই কাজে নামেন ববি হাকিম, আজ এক হাসপাতালের উদ্বোধনে হাজির রাজ্যের মন্ত্রী ও পুরপ্রশাসক

করোনার সময় এই অতিরিক্ত করোনা হাসপাতাল সাধারণ মানুষের উপকারে লাগবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম

করোনার সময় এই অতিরিক্ত করোনা হাসপাতাল সাধারণ মানুষের উপকারে লাগবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-Valentine RC
Comm Ad 2020-LDC Egg