লিঙ্গবৈষম্যকে হারিয়ে স্থায়ী কমিশন পেলেন ৩৯ মহিলা সেনা আধিকারিক

Published by:
https://www.eimuhurte.com/wp-content/uploads/2021/09/em-logo-globe.png

Srabanti Ghosh

22nd October 2021 2:18 pm | Last Update 22nd October 2021 2:51 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি: ভারতীয় সেনায় লিঙ্গবৈষম্য দূর করে বড়সড় সাফল্য পেলেন সেনা আধিকারিকরা। লিঙ্গবৈষম্যকে হারিয়ে স্থায়ী কমিশন পেলেন ৩৯ মহিলা সেনা আধিকারিক। শুক্রবার সকালেই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা করেছে, আগামী ৭ দিনের মধ্যেই ওই ৩৯ জন মহিলা আধিকারিকদের তাঁদের স্থায়ী পদে নিয়োগ করতে হবে।   

সেনাবাহিনীতে স্থায়ী কমিশনের অর্থ হল, এরপর থেকে সেনাবাহিনীতে নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত কাজ করতে পারবেন মহিলা অফিসাররা এবং পুরুষ সেনা আধিকারিক এবং মহিলা সেনা আধিকারিকদের কাজের মেয়াদ এক হবে। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের আগে পর্যন্ত সেনাবাহিনীতে মহিলাদের এই স্থায়ী কমিশন দেওয়া হত না। কিন্তু ২০২০ সালে এক্ষেত্রে ঐতিহাসিক রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট এবং জানানো হয় এরপর থেকে ভারতীয় সেনায় আর কোনও লিঙ্গ বৈষম্য করা হবে না। 

উল্লেখ্য, সেনাবাহিনীতে স্থায়ী কমিশনের দাবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ৭১ জন মহিলা সেনা আধিকারিক। কিন্তু তাঁদের মধ্যে ৩৯ জনকে কেন্দ্রের তরফ থেকে কমিশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। ৯ জনকে এই কমিশন দেওয়ার জন্য মানসিক এবং শারীরিক ভাবে অযোগ্য ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। বাকি ২৫ জনের শৃঙ্খলা লঙ্ঘনের রেকর্ড রয়েছে বলে কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। যদিও এই প্রসঙ্গে একটি বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। কেন্দ্রকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ওই ২৫ জন মহিলা সেনা অফিসার কেন কমিশন পাওয়ার যোগ্য নয় তা যেন বিস্তারিতভাবে জানানো হয়। 

প্রসঙ্গত আজ থেকে প্রায় ১১ বছর আগেই ভারতীয় সেনা আধিকারিকদের স্থায়ী কমিশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করে দিল্লি হাইকোর্ট। কিন্তু দিল্লি কোর্টের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কেন্দ্র সুপ্রিম কোর্টে পাল্টা মামলা করে দাবি জানায় যে, ভারতীয় সেনা অফিসাররা শারীরিক এবং মানসিকভাবে কমিশন পাওয়ার জন্য প্রস্তুত নন। পাশাপাশি সীমান্তে মোতায়েন পুরুষ জওয়ানরা মহিলা অফিসারদের আদেশ মানতে মানসিকভাবে প্রস্তুত নয়। কেন্দ্রের এই দাবিকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়ে ২০২০ সালে সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় এরপর থেকে স্থল এবং নৌবাহিনীর মহিলা সেনা আধিকারিকরাও স্থায়ী কমিশন পাবেন। সর্ট সার্ভিস কমিশনের জায়গায় তাঁরাও পুরুষ সেনা আধিকারিকদের মতো পার্মানেন্ট কমিশনের আওতাভুক্ত হয়ে পুরুষ অফিসারদের বয়সসীমা পর্যন্তই নিজেদের পদে বহাল থাকতে পারবেন।  

More News:

Leave a Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

নজরকাড়া খবর

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

Subscribe to our Newsletter

86
মিশন দিল্লি, পিকের চাণক্যনীতি কতটা কাজ দিল মমতার?