এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




জাতিসঙ্ঘে মোদির ‘আমিত্ব’, দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড়




নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি : জাতিসঙ্ঘে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভাষণ নিয়ে সমালোচনায় সরব কংগ্রেস। দলের প্রবীণ নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদম্বরম জানিয়েছেন, শূন্য সভাগৃহে ভাষণ দিয়েছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী। তাঁর বক্তব্য শুনে একজনকেও দেখা গেল না টেবিল চাপড়াতে।

রবিবার  প্রাক্তন এই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী টুইট করে জাতিসঙ্ঘে মোদির ভাষণের সমালোচনা করেন। নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে চিদম্বরম লেখেন, “জাতিসঙ্ঘে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য় ভাষণ দেওয়ার সময় সভাগৃহের পরিবেশ দেখে আমি বেশ হতাশ। দেখলাম সামান্য কয়েকটি আসনে লোকজন বসে রয়েছে। তাদের মধ্যে অধিকাংশই ভারতের প্রতিনিধি। সব থেকে বেশি হতাশ হয়েছি এটা দেখে যে মোদির ভাষণ শেষ হওয়ার পর সৌজন্যের খাতিরে কাউকে টেবিল চাপড়ে ধন্যবাদ দিতে দেখা গেল না। ”

জাতিসঙ্ঘে শনিবার প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণ নিয়ে কটাক্ষ করেছেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা কপিল সিবল। তার টুইট বিদ্রুপ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, গণতন্ত্রের জন্ম দিয়েছে ভারত। আশা করি মোদির এই ক্ষুরধার বক্তব্য় শুনেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, চিদম্বরমের থেকেও কপিল সিবলের বক্তব্যের বাড়তি গুরুত্ব রয়েছে। উত্তরপ্রদেশ এবং অসমে যে গণতন্ত্র বলে কিছু নেই, সেটা বোঝাতে গিয়ে সিবল বিজেপি শাসিত দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর নাম করেছেন।

তবে কপিল সিবল বা চিদম্বরম একা নয়, রাজনৈতিক মহলের একাংশ জাতিসঙ্ঘে মোদির দেওয়া ভাষণে রীতিমতো অসন্তুষ্ট। তাদের  মতে, প্রধানমন্ত্রী জাতিসঙ্ঘের মতো একটি আন্তর্জাতিক মঞ্চে আত্মপ্রচারেই মগ্ন রইলেন। তার বক্তব্যের সিংহভাগ জুড়ে ছিল আমি।বলেছেন, “সেই বালকটি আজ চতুর্থ বার প্রধানমন্ত্রী হিসাবে রাষ্ট্রপুঞ্জের মঞ্চে দাঁড়িয়ে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করছে। সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে সে গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী থেকেছে। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, হ্যাঁ, গণতন্ত্রে এ সব সম্ভব।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

ওড়িশায় বিরোধী দলনেতা হিসাবে নির্বাচিত নবীন পট্টনায়ক

বাংলার তিন মন্ত্রীর সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার রাজদূতের বৈঠকের অনুমতি দিল না কেন্দ্র

তাপপ্রবাহে মৃত্যু রুখতে হাসপাতালগুলিকে বিশেষ নির্দেশ স্বাস্থ্য মন্ত্রকের

হিন্দিতে ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ শ্লোগান সঠিকভাবে লিখতেই পারলেন না কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

বন্দুকের মুখে মহিলা সহকর্মীকে ধর্ষণের দায়ে গ্রেফতার পুলিশের এসআই

বারামুল্লায় নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে খতম ২ জঙ্গি

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর