এই মুহূর্তে

করণী সেনা প্রধান সুখদেব সিং’কে খুনের মামলায় প্রথম গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি, জয়পুর: রাজপুত নেতা তথা করণী সেনা প্রধান সুখদেব সিং গোগামেডি হত্যাকাণ্ডে প্রথম গ্রেফতার করল জয়পুর পুলিশ। দুই আততায়ী রোহিত এবং নীতিনকে খুনের পরে পালানোয় সাহায্য করায় রামবীর নামে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার বিকালে জয়পুর পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ধৃত রামবীর এবং আততায়ী নীতিন একই গ্রামের বাসিন্দা।

মরু রাজ্যে বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশের ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই নিজের বাড়ির ভিতরে খুন হয়ে যান বিজেপি ঘনিষ্ঠ রাজপুত নেতা তথা করণী সেনা প্রধান সুখদেব সিং গোগামেডি। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, অতিথি সেজে দুই আততায়ী রোহিত এবং নীতিন প্রথমে সুখদেব সিংয়ের সঙ্গে একত্রে চা খাচ্ছেন। ওই চা পানের মধ্যেই আচমকা উঠে করণী সেনা প্রধানকে লক্ষ্য করে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি চালায় দুই আততায়ী। গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে যান সুখদেব সিং। খুনের পরে নিশ্চিন্তেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় দুই আততায়ী। আশঙ্কাজনক অবস্থায় করণী সেনা প্রধানকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকি‍ৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

সুখদেব সিং গোগামেডির নৃশংস হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ক্ষোভে ফেটে পড়েন তাঁর অনুগামী এবং সমর্থকরা। পরের দিন বুধবার করণী সেনা প্রধানের মৃত্যুর প্রতিবাদে রাজস্থানের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখান সংগঠনের সদস্য সমর্থকরা। রাজ্যে পালাবদলের ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই গোগামেডির খুনের ঘটনায় চাপে পড়ে যায় বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। অবিলম্বে গোগামেডির খুনিদের পাকড়াও করার জন্য রাজস্থান পুলিশের শীর্ষ কর্তাদের চাপ দেওয়া হয়।

করণী সেনা প্রধানকে খুনের দায় স্বীকার করে নিয়ে ফেসবুকে এক পোস্ট করেছিল কুখ্যাত গ্যাংস্টার গোল্ডি ব্রার’-এর ঘনিষ্ঠ রোহিত গোদারা। খুনের দিন রোহিত ছাড়াও সুখদেব সিং গোগামেডিকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো আরও এক আততায়ীকে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে শনাক্ত করেছে পুলিশ। ওই আততায়ী হলো নীতিন সিং শেখাওয়াত। দু’জনকেই হন্য হয়ে খুঁজছে পুলিশ।

Published by:

Sundeep

Share Link:

More Releted News:

আগামী সপ্তাহেই ১০০ আসনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা বিজেপির

প্রতিশ্রুতি দেওয়ার অধিকার রয়েছে রাজনৈতিক দলগুলির, জানালেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার

১ জুলাই থেকে কার্যকর হচ্ছে নয়া তিন ফৌজদারি আইন

টানা ১১ দিন পর হদিশ মিলল কোটার নিখোঁজ পড়ুয়ার

যোগীরাজ্যে পুকুরে  পড়ল পূণ্যার্থীদের বাস, নিহত ১৫

দিল্লিতে জোট চূড়ান্ত আপ-কংগ্রেসের

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর