এই মুহূর্তে

মিলে গেল নরেন্দ্র গিরির সুইসাইড নোটের সঙ্গে চেকবইয়ের সই

নিজস্ব প্রতিনিধি, প্রয়াগরাজ: নরেন্দ্র গিরি রহস্যমৃত্যুতে নয়া মোড়।

তাঁর সুইসাইড নোটের হাতের লেখার সঙ্গে ব্যাঙ্কের চেকবইয়ের সই মিলে গিয়েছে। সিবিআই ওই সুইসাইড নোটের ফরেন্সিক এবং ফিঙ্গার প্রিন্ট রিপোর্টের অপেক্ষায় রয়েছে।  সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, আনন্দ গিরির লাই ডিটেক্টর পরীক্ষা করবে সিবিআই। আদালতের কাছে এই ব্যাপারে তারা অনুমতি চাইবে।

সিবিআই নরেন্দ্র গিরির  ফোন কল খতিয়ে দেখছে। খতিয়ে দেখছে আনন্দ গিরির ফোন কল লিস্টও। সিবিআই এখন দেখতে চাইছে, এই রহস্যমৃত্য়ুর নেপথ্য কারণ কী?  প্রাথমিক তদন্ত অনুমান, যাবতীয় ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে বিশাল পরিমাণ আর্থিক লেনদেন এবং আশ্রমের সম্পত্তি।  নরেন্দ্র গিরি তাঁর সুইসাইড নোটে তিনজনের নাম উল্লেখ করেছিলেন- আনন্দ গিরি, আধ্য়া তিওয়াড়ি এবং সন্দীপ তিওয়াড়ি।  এই তিনকে সিবিআই দফায় দফায় জেরা করেছে। 

জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকেরা মহেন্দ্র গিরি-ঘনিষ্ঠ বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।  খতিয়ে দেখছে আশ্রমের ভিজিটর্স বুক। প্রয়োজনে তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে, সূত্রের খবর তেমনই। 

মহেন্দ্র গিরি এবং আনন্দ গিরির ফোনকল লিস্ট খতিয়ে দেখছে সিবিআই। আশ্রমের কয়েকজন সেবককেও তারা জেরা করেছে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা  সংস্থা বিশেষ সূত্রে জানতে পেরেছে, নরেন্দ্র গিরির থেকে  বেশ কয়েকজন টাকা ধার করেছিলেন। কারা টাকা ধার নিয়েছিল, ধারের পরিমাণ কত, সে তালিকাও উদ্ধারের চেষ্টা করছে সিবিআই। প্রয়োজনে তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করবে। 

যে সব প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করছে সিবিআই

১) মানসিক চাপে পড়েই কি নরেন্দ্র গিরি আত্মহত্যা করেছিলেন?

২) যদি আত্মহত্যার কারণ মানসিক চাপ হয়ে থাকে, তাহলে মানসিক চাপের কারণ কী? অথবা, তাকে কি মানসিকভাবে চাপে রাখা হয়েছিল? আর সেই চাপ সামলাতে না পেরেই কি  আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত?

৩) নরেন্দ্র গিরি তাঁর উত্তরাধিকারী হিসেবে ঘনিষ্ঠ শিষ্য বলবীরের নাম উল্লেখ করেন। বলবীরের সঙ্গে সুইসাইড নোটে উল্লেখিত তিনের (আনন্দ গিরি, আধ্য়া তিওয়াড়ি এবং সন্দীপ তিওয়াড়ি) সম্পর্ক কেমন, সিবিআই তাও খতিয়ে দেখার চেষ্টা করছে। 

৪) কারা টাকা ধার করেছিল? ধারের পরিমাণ কত? সুইসাইড নোটে উল্লেখিত তিনের সঙ্গে এই দেনাদারদের কোনও যোগাযোগ রয়েছে কি না, তাও খতিয়ে দেখছে সিবিআই। 

৫) দেনা শোধ করতে পারবে না ধরে নিয়ে কি তারা আনন্দ গিরি, আধ্য়া তিওয়াড়ি এবং সন্দীপ তিওয়াড়ির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। এই রহস্যমৃত্য়ুর পিছনে তাদের ভূমিকা রয়েছে কি না, সিবিআই তাও খতিয়ে দেখছে।  

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

বারাণসী থেকে লড়ছেন মোদি, গান্ধিনগর থেকে অমিত শাহ

লোকসভা ভোটের জন্য ১৯৫ আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা বিজেপির

কেন্দ্রের চাপে প্লে স্টোরে ফের ১০ ভারতীয় সংস্থার অ্যাপ ফিরিয়ে আনছে গুগল

পরমাণু পণ্য রয়েছে সন্দেহে পাকিস্তানগামী জাহাজ আটকানো হল মুম্বই বন্দরে

‘আর ডিগবাজি খাব না’, মঞ্চে দাঁড়িয়ে ঘোষণা নীতীশের, হেসে ফেললেন মোদি

ভোটে না লড়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা যশবন্ত পুত্র জয়ন্ত সিনহার

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর