বিরোধীশূন্য সেন্ট্রাল হলে সংবিধান দিবসে ভাষণ মোদির, পেলেন করতালি

Published by:
https://www.eimuhurte.com/wp-content/uploads/2021/09/em-logo-globe.png

Rupendu Das

26th November 2021 11:35 am | Last Update 26th November 2021 12:12 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিল্লি:  সংসদের   সেন্ট্রাল হলে আয়োজিত সংবিধান দিবসের অনষ্ঠানের সাক্ষী রইলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, উপরাষ্ট্রপতি তথা  রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু, স্পিকার  এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। আর প্রধানমন্ত্রী মোদি পেলেন করতালি। সেন্ট্রাল হলে দেওয়া এদিনের ভাষণ কার্যত অতীতে দেওয়া তাঁর বক্তব্যের চর্বিত চর্বন। ভাষণে নিশানা করলেন গান্ধি পরিবারকে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, প্রধানমন্ত্রী ভাষণ বহুশ্রুত সেই ইংরেজি প্রবাদের কথা মনে করায়  ওল্ড ওয়াইন ইন আ নিউ বটল। বাংলায় যার তর্জমা করলে দাঁড়ায় নতুন বোতলে পুরনো মদ। 

এদিন ঠিক কী বলেছেন প্রধানমন্ত্রী?

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ এই দিনে স্মরণ করতে হয় বাবা সাহেব আম্বেদকর, ড. রাজেন্দ্র প্রসাদের মতো ব্যক্তিত্বদের। স্মরণ করতে হয় জাতির জনক মহাত্মা গান্ধিকেও। তাঁদের আন্দোলনে দেশ যেমন পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে মুক্ত হয়েছে, দেশ পেয়েছে এমন একটি সংবিধান, যে সংবিধান দেশের সব নাগরিকদের অধিকারকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে। বিবিধের মাঝে ঐক্যের ভারত -এই মূল মন্ত্র প্রতিভাত হয়েছে আমাদের সংবিধানে।  দেশের প্রত্যেক নাগরিকের উচিত সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া। সংবিধান যেমন নাগরিকদের কাঁধে দায়িত্ব অর্পণ করেছে, পাশাপাশি দিয়েছে অধিকার।  অধিকারের সুফল অর্জনের পাশাপাশি সংবিধান প্রদত্ত দায়িত্ব তাঁরা যেন পালন করেন। ‘

বিরোধী শিবির আগেই জানিয়ে দিয়েছিল তারা শুক্রবারের অনুষ্ঠান বয়কট করবে। ভাষণে বিরোধী শিবিরকে নিশানা করেন মোদি। তবে ঘুরে-ফিরে দেখা গেল  বক্তব্যের নিশানায় ছিল কংগ্রেস।  নাটকের কায়দায় তিনি বলেন, ‘ফর দ্য ফ্যামিলি, বাই দ্য় ফ্যামিলি…’ কয়েক মুহূর্তু থেমে মোদি বলেন, বাকিটা আর মনে হয় না বলার কোনও প্রয়োজন আছে। 

সংবিধান দিবসের অনুষ্ঠানে কেন একটি পরিবারকে নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী, তা নিয়ে ইতোমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। পাশাপাশি, প্রশ্ন উঠছে সংবিধানের  প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ২৬ জানুয়ারি পালিত হয় সাধারণতন্ত্র দিবস। তাহলে হঠাৎ করে ২৬ নভেম্বর কেন মোদি সরকার সংবিধান দিবস পালন করছে?  মোদি এবং তাঁর সরকারের লক্ষ্য কী ভারতের ইতিহাস মুছে ফেলে এক নতুন ইতিহাস তৈরি করা ?

More News:

Leave a Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

নজরকাড়া খবর

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

Subscribe to our Newsletter

86
মিশন দিল্লি, পিকের চাণক্যনীতি কতটা কাজ দিল মমতার?