এই মুহূর্তে

বাড়ছে তালিবান সমর্থক, বিস্ফোরক রিপোর্ট কেরল সিপিএমের

নিজস্ব প্রতিনিধি, তিরুঅনন্তপূরম: রাজ্য়বাসীর একাংশ তালিবানদের পক্ষে। এবং সেই সমর্থন ক্রমশ বাড়ছে। এমনই এক বিস্ফোরক রিপোর্ট পেশ করেছে কেরল বাম নেতৃত্ব।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, তালিবানদের প্রতি সহানুভূতির বাতাবরণ তৈরি করতে কাজ করছে জামাত-এ-ইসলামি হিন্দ নামে একটি মৌলবাদী সংগঠন। বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে তারা এই ব্যাপারে প্রচার শুরু করেছে।  রিপোর্টে বলা হয়েছে, রাজ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাতাবরণ নষ্ট করতে আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে এই মৌলবাদী সংগঠন। সংগঠনের মূল লক্ষ্য সংখ্যালঘু মুসলিমদের মধ্যে তালিবানদের প্রতি সহানুভূতির বাতাবরণ তৈরি করা। রিপোর্ট বলছে, রাজ্য়ে গোষ্ঠী সংঘর্ষের পরিবেশ তৈরি করতে মুসলিমদের বিরুদ্ধে খ্রিস্টানদের উস্কে দেওয়ার পরিকল্পনা শুরু হয়েছে।

কেরল রাজ্য সিপিএমের রিপোর্টে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানে তালিবানরা যেমন মহিলাদের নিশানা করেছে, চাইছে, মহিলাদের গৃহবন্দি করে রাখতে, কেরলেও জামাত-এ-ইসলামি  সেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি সঙ্ঘ পরিবারকেও রাজ্য বাম নেতৃত্ব কাঠগড়ায় তুলেছে। কেরল রাজ্য সিপিএমের রিপোর্টে বলা হয়েছে, সঙ্ঘ পরিবারের দাপাদাপিতে কেরলে বসবাসকারী সংখ্যালঘুরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। বিশেষ করে মুসলিমরা। আর এর সদ্ব্যবহার করছে জামাত-এ-ইসলামি হিন্দ ।রিপোর্টে বলা হয়েছে, এখন থেকে এর বিরুদ্ধে প্রচার শুরু না করলে, রাজ্যবাসীকে সচেতন না করলে এই বিষ কেরল ছাড়িয়ে দেশের অন্যান্য় প্রান্তে ছড়িয় পড়বে।

সিপিএম পলিটব্য়ুরো সদস্য এম বেবি এই রিপোর্ট সম্পর্কে জানিয়েছেন, রাজ্য সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহ দেখে আমরা নিশ্চিত কেরলবাসীর একাংশের মধ্যে তালিবানদের প্রতি সহানুভূতি তৈরি হচ্ছে।  এই ব্যাপারে নিঃশব্দে কাজ করে চলেছে জামাত-এ-ইসলামি হিন্দ নামে একটি মৌলবাদী সংগঠন। তাদের রাস্তা আরও প্রশস্ত করে দিয়েছে সঙ্ঘ পরিবার।  এমএ বেবি জানিয়েছেন, দক্ষিণের এই রাজ্যে যাতে সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথাচাড়া দিতে না পারে, তার জন্য ছাত্র-যুবদের নিয়ে আমরা লাগাতার প্রচার চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

উল্লেখ করা যেতে পারে, এই কেরল থেকে চার মহিলা কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন আইসিসে যোগ দিয়েছিল।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

বারাণসী থেকে লড়ছেন মোদি, গান্ধিনগর থেকে অমিত শাহ

লোকসভা ভোটের জন্য ১৯৫ আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা বিজেপির

পরমাণু পণ্য রয়েছে সন্দেহে পাকিস্তানগামী জাহাজ আটকানো হল মুম্বই বন্দরে

‘আর ডিগবাজি খাব না’, মঞ্চে দাঁড়িয়ে ঘোষণা নীতীশের, হেসে ফেললেন মোদি

ভোটে না লড়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা যশবন্ত পুত্র জয়ন্ত সিনহার

আরএসএস নেতা খুনে জড়িত কুখ্যাত গ্যাংস্টার গ্রেফতার দক্ষিণ আফ্রিকায়

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর