এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

বৈজন্তীমালার দেখা সেরা হিরো ছিলেন দেব আনন্দ, বাস্তবেও, পর্দায়ও

নিজস্ব প্রতিনিধি: আজ হিন্দি সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম আইকনিক অভিনেতা দেব আনন্দের ১০০ তম জন্মবার্ষিকী। যদিও আগেই ঘোষিত হয়েছিল যে, তাঁর ১০০ তম জন্মবার্ষিকীতে ৩০ টি শহর জুড়ে ৫৫ টি প্রেক্ষাগৃহে তাঁর ছবি প্রদর্শন করা হবে। আজ থেকেই চালু হল সেই সিনেমার প্রদর্শন। হিন্দি সিনেমা জগতের একজন দাপুটে অভিনেতা ছিলেন তিনি, বলিউডে তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। আজ তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে জানাবো কিছু অজানা কথা। তাঁর সিনেমা, সঙ্গীত এবং তাঁর আচরণ সবটাই দর্শকদের হৃদয়ে খোদাই করা রয়েছে। ক্লাসিক থ্রিলার জুয়েল থিফে দেব আনন্দের সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন বৈজয়ন্তীমালা। যেটি তাঁর কেরিয়ারের সেরা কাজ ছিল বলে একবার জানিয়েছেন বৈজয়ন্তীমালা। সুভাষ ঝাকে একবার একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেছিলেন, “রাজ স্যারের সঙ্গে, আমি তিনটি ছবি করেছিলাম, আর সবটাই আমার কেরিয়ারের মাইলফলক।” অমর দীপ ছবিতে দেব আনন্দ এবং বৈজয়ন্তীমালা অভিনয় করেছিলেন।

এই ছবির শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে বৈজন্তীমালা একবার বলেছিলেন, “তিনি সর্বদা আমার শক্তির একটি বান্ডিল ছিলেন। অমর দীপের সেটে আমার তাঁর সঙ্গে প্রথম দেখা হয়েছিল। অনবদ্য আচার-ব্যবহারে তিনি সত্যিই সুদর্শন একজন মানুষ ছিলেন।

সেই ছবিতে আমার একজন লম্বা নায়কের প্রয়োজন ছিল। আমার সময়ে, আমি ছিলাম লম্বা নায়িকা, তাই আমি এমন একজন নায়কের সঙ্গে কাজ করতে চাইতাম যে আমার হাইটের সঙ্গে ভালভাবে মিলে যাবে। তখনই দেব সঠিক সময়ে এসেছিলেন। তিনি ছিলেন সুপঠিত, শিক্ষিত, সংস্কৃতিমনা এবং পাণ্ডিত।”

একসঙ্গে তাঁদের সবচেয়ে জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের কথা স্মরণ করে, বৈজন্তীমালা বলেন, “অমর দীপের পরে, আমি তাঁর সঙ্গে আমার দ্বিতীয় এবং সফল চলচ্চিত্র ছিল জুয়েল থিফ। আমি জানি না সেই ছবিতে কী জাদু কাজ করেছিল, তবে আমাদের জুটি দর্শকদের মনে গেঁথে গিয়েছিল। আমি জুয়েল থিফের সময় দেব এবং তাঁর ভাই গোল্ডির (জুয়েল থিফ ডিরেক্টর বিজয় আনন্দ) সঙ্গে কিছু ভাল সময় শেয়ার করেছিলাম। তখন আমরা গ্যাংটকের আউটডোরে শুটিং করছি।” এরপর আইকনিক গান ‘হোঠো মে আইসি বাত: গানের শুটিংয়ের কথা স্মরণ করে, বৈজয়ন্তীমালা বলেছেন, “এই গানটিতে দারুণ শক্তির প্রয়োজন ছিল। আর দেব সাহেবের সঙ্গে কাজই আমাকে সেই শক্তি যুগিয়েছিল। তিনি একজন খুব উদার সহ-অভিনেতা এবং খুব আড়ম্বরপূর্ণ একজন মানুষ ছিলেন। তিনি ক্যামেরার অ্যাঙ্গেল সম্পর্কে খুব ভাল ছিলেন এবং পর্দায় সম্ভাব্য সর্বোত্তম উপায়ে ক্যাপচার করতে চেয়েছিলেন। আমার মনে হয় তিনি সেলুলয়েড বীরত্বের একজন সেরা নায়ক ছিলেন।”

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

নারী সুরক্ষার কথা বলে বিপাকে অন্নু কাপুর, ঘন ঘন মৃত্যু হুমকি, ভয়ে পুলিশে দ্বারস্থ

নিজের ভুলেই কিং-এর চিত্রনাট্য ফাঁস শাহরুখের, জুলাই থেকেই শুটিং শুরুর ইঙ্গিত

আমির খানের ‘দঙ্গল’ ছবির অভিনেত্রী জায়রার বাবা মারা গেলেন

পারিবারিক বিয়েতে স্বামী ও দেওরদের সঙ্গে তুমুল নাচ বিদ্যার, ভাইরাল ভিডিও

জয়ার পর এবার টলিউডের ‘ধন্যি মেয়ে’ দেবলীনা, তাহলে উত্তমকুমার কে?

করণ আউজলার বাড়িতে এলোপাথাড়ি গুলি, আতঙ্কে প্রখ্যাত গায়কের পরিবার

Advertisement
এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর