এই মুহূর্তে

দুর্গাপুজো কলকাতা ছাড়া ভাবতেই পারেন না জয়া আহসান 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতাঃ পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুননা কেন দুর্গাপুজোর (Durgapujo) ৫টা দিন মা আসার খুশিতে আনন্দে মেতে ওঠেন সকল বাঙালি। সাধারন মানুষের সঙ্গে উৎসবের জোয়ারে গা ভাসান তারকরাও। দৈনন্দিন কর্মব্যস্ততা ভুলে প্রত্যেকেই বছরের এই কয়েকটা দিন পরিবার পরিজন আত্মীয় বন্ধুদের সঙ্গে পুজোর আনন্দ মেতে ওঠেন। এবারেও তার ব্যাতিক্রম হলোনা। একদিকে যেমন পাড়ার পুজোয় অংশ নিতে দেখা গেল বাংলার মহারাজ সৌরভ গাঙ্গুলিকে, তেমনই অন্যদিকে বাড়ির পুজোয় সপরিবারে মেতে উঠেছেন অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক ও  অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক। পুত্র ইউভানকে নিয়ে পুজোয় মেতেছেন তারকা দম্পতি রাজ চক্রবর্তী ও শুভশ্রী গাঙ্গুলি। পুজোয় অংশ নিয়েছেন দেব ও প্রসেনজিতের মত তারকারাও। অন্যদিকে এইবার কলকাতাতেই পুজো উদযাপন করছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান (Jaya Ahsan)।

জয়ার কথায় ঢাকাতেও অনেক বড় করে দুর্গাপুজো অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু কলকাতা ছাড়া তিনি পুজো ভাবতেই পারেন না। জয়া জানান পুজোর পাঁচ দিন তিনি আর পাঁচটা বাঙালির মতই খেতে ঘুরতে এবং সাজতে ভালবাসেন।

তবে কলকাতায় পুজো উদযাপনের মধ্যেই এবার দেশ থেকেও সুখবর পেলেন অভিনেত্রী। আগামী জানুয়ারিতে মুক্তি পেতে চলেছে তার অভিনীত ছবি ‘পেয়ারার সুবাস’। ছবিটি পরিচালনা করেছেন নূরুল আলম আতিক। বেশ কয়েক বছর আগেই শেষ হয়েছিল এই ছবির শুটিং। কিন্তু বিভিন্ন কারনে ছবিটি মুক্তি পেতে দেরি হচ্ছিল। অবশেষে সব বাধা কাটিয়ে আগামী জানুয়ারিতে ছবিটি মুক্তি পেতে চলেছে।

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর ছবিটি মুক্তির খবরে উচ্ছ্বসিত জয়া আহসান। ছবিটি সম্পর্কে তিনি বলেন, “আমি ছবিটি নিয়ে বলতে পারি, এটা একটা দুর্ধর্ষ ছবি। আতিক যে বিষয়টি নিয়ে ছবিটি নির্মাণ করেছে, এ ধরনের বিষয় সাধারণত কেউ স্পর্শ করে না। কেউ সাহস দেখায় না। সেই হিসেবে আতিক এমন একটা বিষয় নিয়ে ছবি নির্মাণের সাহস দেখিয়েছে। ছবিটি বৈবাহিক সম্পর্কের গল্প নিয়ে নির্মিত। কেমন হয়েছে, সেটা দর্শক ভালো বলতে পারবেন”। 

পাশাপাশি পুজোর সাজ সম্পর্কে জয়া জানান, তার সলিড কালার বেশি পছন্দ। তার সাথে মানানসই গয়না। কিন্তু সেটা ক্যারি করতে পারতে হবে। শাড়ি বা গয়না কোনোটাই যেন তার উপর চেপে না বসে।

জয়া বলেন, “অষ্টমীর এবং নবমীর রাতেই আমরা সবচেয়ে বেশি সাজি। সেক্ষেত্রে আমি পছন্দ করি এক রঙা অথচ সলিড কালার, তার সঙ্গে একটুখানি ব্রেক কোনো শাড়ি। খুব বেশি প্যাটার্ন বা খুব বেশি কালার একসাথে আমার মনে হয় আমার পার্সনালিটিকে আলগা করে দেয়। তাই আমি ব্যাক্তিগত ভাবে সলিড এক কালার শাড়ি বেশি পছন্দ করি। তার সঙ্গে মানানসই কিন্তু ভারি গয়না পছন্দ করি”।

মেকআপের ক্ষেত্রে জয়া জানান, তিনি একটু মিউট কালার লিপস্টিক পছন্দ করেন। তার সঙ্গে চোখে ভারি কাজল। আর যদি লিপস্টিক ডিপ কালার হয় সেক্ষেত্রে চোখের মেকআপ হালকাই পছন্দ তাঁর। আর এর সঙ্গে চুলে হাত খোপা করে আটকে নিতে পছন্দ করেন তিনি।

পাশপাশি পুজোর ডায়েট একেবারেই ডায়েট না পসন্দ জয়ার। অভিনেত্রী জানান, ঢাকায় থাকলে আমি পুজোর প্রসাদ অবশ্যই খাই। আর কলকাতায় থাকলে এখানকার বন্ধুবান্ধবদের কাছে যেচে নিমন্ত্রন নিই। কারন ইদ হোক বা পুজো যেকোনো রকম উৎসবের দিনে উৎসবের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা বিশেষ খাবারগুলি খেতে আমি ভীষণ ভালবাসি”।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

সাদামাঠাভাবেই তৃতীয় বিয়ে সারলেন অনুপম রায়

ফের হলিউডে পা প্রিয়াঙ্কার, আসছে নতুন সিনেমা

আসানসোলে বিজেপির প্রার্থী পবন সিংহ, ঘাটালে হিরণ

মাহশা আমিনিকে নিয়ে গান লেখায় ৩ বছরের কারাদণ্ড পপস্টারের

সন্দেশখালির প্রাকৃতিক দৃশ্য বারবার আকৃষ্ট করেছে চিত্র পরিচালকদের

সংসার ভাঙছে শাহরুখ খানের নায়িকার, ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ইঙ্গিত

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর