Comm Ad 2020-Valentine body

৩৫ বছর বাদে ‘বন্দিদশা’ থেকে মুক্তি পাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে নিঃসঙ্গ হাতি

Share Link:

৩৫ বছর বাদে ‘বন্দিদশা’ থেকে মুক্তি পাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে নিঃসঙ্গ হাতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, ইসলামাবাদ: ‘বন্দিদশায়’ কেটেছে জীবনের ৩৫ বছর। একমাত্র সঙ্গীও আট বছর আগে ছেড়ে চলে গিয়েছিল। তার পর থেকে নিঃসঙ্গ জীবন কাটাতে হয়েছে কাভানকে। অবশেষে বন্দিদশা ঘুচতে চলেছে বিশ্বের সবচেয়ে নিঃসঙ্গ হাতি হিসেব পরিচিত হয়ে ওঠা কাভানের। আগামিকাল রবিবার কম্বোডিয়ার এক বন্যপ্রাণী সংরক্ষণাগারে ছেড়ে দেওয়া হবে তাকে। আর যার উদ্দেশে ৩৫ বছর বাদে বন্দিজীবন ঘুচতে চলেছে কাভানের তিনি আর কেউ নন, বিখ্যাত মার্কিন পপ গায়িকা শেরিলিন সার্কিসিয়ান ওরফে শের। ২০১৬ সাল থেকেই তিনি কাভানের মুক্তির জন্য লড়াই চালাচ্ছিলেন।

আজ থেকে ৩৫ বছর আগে ১৯৮৫ সালে কাভানকে উপহার হিসেবে পাকিস্তানে পাঠিয়েছিল শ্রীলঙ্কা সরকার। দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বন্ধন কতটা শক্তিশালী তার প্রতীক হিসেবে পাকিস্তানের প্রাক্তন স্বৈরশাসক জেনারেল জিয়া-উল-হককে হাতিটি উপহার দেওয়া হয়েছিল। শ্রীলঙ্কা থেকে যখন পাকিস্তানে এসেছিল, তখন কাভানের বয়স মাত্র এক বছর। তার পর থেকে মারঘাজার চিড়িয়াখানা-ই ছিল তার ঠিকানা। গত কয়েক দশক ধরে দর্শনার্থীরাও কাভানের প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন। ২০১২ সালে সঙ্গীকে হারানোর পরেই নানা ধরনের সমস্যায় ভুগতে শুরু করে কাভান। চিড়িয়াখানায় কোনও পশু চিকিৎসার বন্দোবস্থ না থাকায় ধীরে-ধীরে সে আরও অসুস্থ হয়ে পড়তে থাকে।

গত মে মাসে পাকিস্তানের হাইকোর্ট মারগাজার চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষকে কাভানকে দেওয়ার নির্দেশ দেয় ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। আদালতের পক্ষ থেকে বলা হয়, যে অরণ্যে কাভান মুক্তির স্বাদ পাবে তাকে যেন সেই অরণ্যে ছেড়ে দেওয়া হয়। এমন জায়গায় তাকে ছাড়তে হবে যেখানে খাবার ও জলের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা থাকবে। সেই নির্দেশ মেনে কাভানকে কম্বোডিয়ার ২৫ হাজার একরের বিশাল পশু সংরক্ষণ কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে কাভানের নিঃসঙ্গ অবস্থার খবর প্রকাশিত হওয়ার পরেই তার মুক্তির জন্য আসরে নেমেছিলেন বিখ্যাত মার্কিন পপ গায়িকা শের। ফোর প’স নামে সংগঠন তৈরি করে কাভানের ২০১৬ সাল থেকেই লড়ছেন তিনি। বিশ্বের সবচেয়ে নিঃসঙ্গ হাতির সাড়ে তিন দশকের ‘বন্দিদশা’ থেকে মুক্তি পাওয়ার দিনের সাক্ষী থাকতে ইতিমধ্যেই ইসলামাবাদে পৌঁছেছেন তিনি। আবেগ আপ্লুত কণ্ঠে বলেছেন, ‘নতুন গন্তব্যে পৌঁছনো পর্যন্ত কাভানের সব দায়িত্ব গ্রহণ করেছি। এই কাজ করতে পেরে নিজেকেই ধন্য বলে মনে করছি।’
 

Comm Ad 018 Kalna

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 006 TBS

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 006 TBS

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের  সমাপ্তি অনুষ্ঠান

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠান

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-WB Tourism RC
Comm Ad 006 TBS