এই মুহূর্তে

পল্লবী, বিদিশার পরে এবার মঞ্জুষা, মিলল ঝুলন্ত দেহ

নিজস্ব প্রতিনিধি: একের পর এক টলি অভিনেত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর সাক্ষী থাকছে শহর কলকাতা। দিন দশ এগারো আগে মারা যান পল্লবী দে(Pallabi Dey)। সেই মৃত্যু ছিল অস্বাভাবিক। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উঠে আসে আত্মহত্যার তত্ত্ব। এরপরেই গত বুধবার দেহ উদ্ধার হয় আরেক টলি অভিনেত্রী তথা মডেল বিদিশা দে মজুমদারের(Bidisha Dey Majumdar)। এর ঠিক দুই দিনের মাথায় শুক্রবার উদ্ধার হল বিদিশারই ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রী মঞ্জুষা নিয়োগীর(Manjusha Niyogi)। এদিন সকালে পাটুলিতে তাঁর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ঝুলন্ত দেহ। আর স্বাভাবিক ভাবেই পর পর ৩ অভিনেত্রীর মৃত্যুতে উঠে গিয়েছে বড়সড় প্রশ্ন। তিন মৃত্যুর কী একের সঙ্গে ওপরটির যোগসূত্র রয়েছে? নাকি তিনজনই অবসাদের শিকার হয়ে মারা গেলেন, এটাই এখন ভাবাচ্ছে সবাইকে। 

জানা গিয়েছে, বিদিশা মারা যাওয়ার পরেই নাকি মঞ্জুষাও তাঁর পরিজনদের জানিয়েছিলেন তাঁরও নাকি আর বেঁচে থাকারভ ইচ্ছা নেই। সেই কথা কানে গিয়েছিল মঞ্জুষার স্বামীর। তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এসেছিলেন পাটুলিতে(Patuli) মঞ্জুষার বাপের বাড়িতে। চেয়েছিলেন মঞ্জুষাকে নিয়ে ফিরে যেতে। কিন্তু মঞ্জুষা শ্বশুরবাড়ি যেতে চাননি। থেকে গিয়েছিলেন বাপের বাড়ি থেকেই। আর সেখান থেকেই এদিন তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। আর এখানেই প্রশ্ন, কেন আত্মহত্যা? পল্লবী, বিদিশা, মঞ্জুষা সবাই কী অবসাদের শিকার হয়েই মৃত্যুকেই বেছে নিচ্ছে। নাকি এই ৩জনের মৃত্যুর পিছনে এমন কোনও রহস্য রয়েছে যা সামনে আসছে না। মনোবিদদের(Psychologist) ধারনা, খুব অল্প সময়ে নামযশ, অর্থ, প্রভাবপ্রতিপত্তি তৈরি করার অদমাই ইচ্ছা ও চূড়ান্ত উচ্চাকাঙ্ক্ষার জেরেই এই ৩জনের মধ্যে অবসাদ দানা বেঁধেছিল যা তাঁদের মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। বেশ কিছু ক্ষেত্রে সম্পর্কের টানাপোড়েনও এক্ষেত্রে অবসাদের কারণ হিসাবে উঠে আসছে। একই সঙ্গে কর্মস্থলে কাজ নিয়েও টানাপোড়েন তাঁদের আর্থিক সঙ্কটের মুখেও ঠেলে দিয়েছে। আয় না বুঝেই দামী জিনিস, গাড়ি, বাড়ি, ফোন কিনে তার ইএমআই দিতে না পাওয়ার ঘটনাও এই ৩ মৃত্যুর ক্ষেত্রে উঠে আসছে।

Published by:

Koushik Dey Sarkar

Share Link:

More Releted News:

কলকাতা হাইকোর্টে বাংলার কেরোসিন জয়, ধাক্কা খেল কেন্দ্র

অপেক্ষা শেষ! ৭ বছর পর কপিল শর্মার শোয়ে সুনীল গ্রোভার, কবে থেকে শুরু?

নতুন বছরেই খুশির খবর, ২ হিন্দি ছবিতে ডাক পেলেন খরাজ, সঙ্গী কার্তিক-বিদ্যা

‘হীরামান্ডি’, ‘দো পাত্তি’ থেকে ‘মার্ডার মুবারক’, ২০২৪ গোটা বছর জমিয়ে রাখবে নেটফ্লিক্স

আগামী বছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু কবে, দিনক্ষণ জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

‘লাখপতি দিদি’ হওয়ার প্রস্তাব ফেরাচ্ছেন বাংলার মহিলারা, নাজেহাল বিজেপি

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর