2020 New Ad HDFC 04

উৎসবেও কড়া নজরদারিতে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি! নবান্নে বৈঠক আলাপনের

Share Link:

উৎসবেও কড়া নজরদারিতে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি! নবান্নে বৈঠক আলাপনের

নিজস্ব প্রতিনিধি: উৎসবের প্রথম দফা পার হয়েছে। এখনও বাকি আছে দীপাবলী, কালিপুজো, ভাইফোঁটা, জগদ্বাত্রী পুজো, কার্তিক পুজো ও রাসপূর্ণিমা। স্বাভাবিক ভাবেই বাংলার বিস্তীর্ণ প্রাঙ্গণ আবারও মুখরিত হয়ে উঠবে এই সব পুজোর হাত ধরে। একই সঙ্গে বাতাসে শীতের রেশ মিলতেও শুরু করে দিয়েছে। এই অবস্থায় মারণ ভাইরাসের দাপট যে রাজ্যে বাড়বে সে কথা ভেবেই এবার বাংলার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে তৎপর হল রাজ্য প্রশাসন। মূলত সংক্রমণ কীভাবে ঠাকানো যায় আর কীভাবে সংক্রমিত মানুষের কাছে চিকিৎসা পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া যায় তা নিয়েই এবার বাড়তি নজরদারি শুরু করে দিল রাজ্য প্রশাসন।
 
জানা গিয়েছে, এদিন রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নবান্নে এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যসচিব নারায়ন স্বরূপ নিগাম, স্বরাষ্ট্রসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী, অর্থসচিব মনোজ পন্থ, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প দফতরের প্রধান সচিব রাজেশ পান্ডে প্রমুখরা। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সেই বৈঠকে যোগ দেন রাজ্যের সব জেলাশাসক এবং সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিকেরাও। সেই বৈঠকে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা হয়। ঠিক হয়, আরও মাস্ক তৈরি করা হবে। সেলফ হেল্প গ্রুপের মাধ্যমে তা তৈরি করা হবে। রাজ্যের কোনও মানুষ যেন মাস্কবিহীন অবস্থায় না থাকেন, তার জন্য মাস্ক তৈরিতে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প দফতরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুজোর মধ্যেও ষষ্ঠী এবং সপ্তমীর দিন স্বাস্থ্য ভবন এবং এসএসকেএম হাসপাতালে গিয়ে বৈঠক করেছিলেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই পুজো মিটে গেলেও রাজ্যের গোটা পরিস্থিতির ওপর যে নবান্ন নজর রাখছে তা এদিনের বৈঠকে বেশ বোঝা যায়।
 
একই সঙ্গে এবার ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গেও রাজ্য প্রশাসনের আলোচনা শুরু হয়েছে কোভিডের চিকিৎসার জন্য। অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সাংসদ ডা. শান্তনু সেন জানিয়েছেন, দেখা যাচ্ছে শতকরা ৮৫ শতাংশ কোভিড রোগীকে তাঁদের বাড়িতে রেখেই সুচিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। সাধারন চিকিৎসকদের এই বিষয়ে কিছু বাড়তি প্রশিক্ষণ দিলেই তাঁরা এইসব রোগীকে যথাযথ পরামর্শ দিয়েই তাঁকে মারণ ভাইরাসের আওতা থেকে সুস্থ করে তুলতে পারবেন। সেই কারনে ঠিক হয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনসের যত কার্যালয় রয়েছে এই রাজ্যে সেখানে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে স্থানীয় চিকিৎসকদের। এতে হাসপাতালগুলিতে কোভিড রোগী ভর্তি হওয়ার চাপ অনেকটাই কমে যাবে ও হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের ওপর থেকেও চাপ কমবে।

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Egg

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-Valentine RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

Editors Choice

Comm Ad 2020-Valentine RC