Comm Ad 2020-Valentine body

মালব্য আর দেওধরকে নিয়ে শুরু রাজ্য বিজেপির বৈঠক! লক্ষ্য ২০০ আসন

Share Link:

মালব্য আর দেওধরকে নিয়ে শুরু রাজ্য বিজেপির বৈঠক! লক্ষ্য ২০০ আসন

নিজস্ব প্রতিনিধি: পুজোর পরে পরেই বাংলায় পা রেখেছেন অমিত শাহ। প্রায় ৪৮ ঘন্টা এই রাজ্যে শুধু যে কাটিয়ে গিয়েছেন এমন নয়, আগামী রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে এই রাজ্য থেকে ২০০ আসন বার করার হুঙ্কারও দিয়ে গিয়েছেন তিনি। সেই হুঙ্কারকেই পাখির চোখ করে এ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ঝাঁপাতে চলেছে রাজ্য বিজেপি। এদিন সেই লক্ষ্যেই কলকাতার হেস্টিংসে দলের কার্যালয়ে বৈঠকে বসেছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। সেই বৈঠকেরই মধ্যমণি অবশ্যই বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য এবং ত্রিপুরায় বাম জমানার অবসান ঘটিয়ে বিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠার মূল কারিগর সুনীল দেওধর। মালব্য গতকাল রাতেই রাজ্যে এসেছেন। দেওধর এসেছেন আজকে। রাজ্য বিধানসভা ভোটের রণকৌশল স্থির করতে কলকাতায় হেস্টিংসে দলের নতুন অফিসে এদের নেতৃত্বেই শুরু হয়েছে বিজেপির বৈঠক। সূত্রের খবর, রাজ্যে ইস্যুভিত্তিক আন্দোলন এবং প্রচারের অভিমুখ স্থির করতেই এই বৈঠক।
 
একুশের ভোটের কথা মাথায় রেখেই অমিত মালব্য’কে এ রাজ্যের সহকারী পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। সুনীল দেওধরকে আপাতত পাঠানো হয়েছে হাওড়া, হুগলি এবং মেদিনীপুরের দায়িত্ব দিয়ে। এই তিন জেলার সাংগঠনিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে তিনি বিস্তারিত রিপোর্ট পাঠাবেন দিল্লিতে। যদিও অঘোষিত ভাবে এই দুজনের মাধ্যমেই দিল্লি থেকে বঙ্গ বিজেপির ওপর নজরদারি ও খবরদারি চালাবে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। এই দুইজনই দিল্লিতে থাকা দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশে ঠিক করবেন দল কোন পথে এগোবে, দলের প্রচার অভিযান কীরকম ভাবে হবে, প্রার্থী কারা কারা হতে পারেন এসব। এদিন আবার কলকাতায় চলে এসেছেন বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক (‌সংগঠন)‌ বিএল সন্তোষ। তিনিও থাকছেন এদিনের বৈঠকে। এদিনের বৈঠকের মূল আলোচ্য বিষয়ই থাকছে বাংলায় এসে বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে যে একুশ দফা কৌশল ঠিক করে দিয়ে গিয়েছেন অমিত শাহ তা কীভাবে কার্যকর করা হবে তার নীল নকশা তৈরি করা।
 
এদিনের বৈঠকে তাই দলের রাজ্য পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সঙ্গে উপস্থিত থাকছেন দলের রাজ্য নেতারাও। থাকছেন দলের নানা সংগঠনের নেতারাও। বৈঠকে মূলত বুথ সংগঠন দেখে নেওয়া, রাজ্যের ২৮ হাজার বুথে দলের যে দুর্বললা রয়েছে সে সব কাটিয়ে উঠে সেগুলিকে কীভাবে শক্তিশালী করা যায় তা নিয়েই আলোচনা হচ্ছে। আলোচনায় কোন কোন আসনে সম্ভাব্য প্রার্থী কারা হতে পারেন তা নিয়েও আলোচনা হওয়ার কথা আছে। এদিকে রাজ্য বিজেপির সূত্রে জানা গিয়েছে, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের দিল্লিতে বসে বাংলার দল পরিচালনা করার মনোভাব পছন্দ নয় ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর। বস্তুত তাঁদের হাত থেকে ক্ষমতা যতই বেড়িয়ে যাচ্ছে ততই তাঁরা দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছেন। যেভাবে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব মালব্য, দেওধর, সন্তোষ বা বিজয়বর্গীকে চাপিয়ে দিয়েছে বঙ্গ বিজেপির ওপর তা বিলকুল না পসন্দ দিলীপ শিবিরের। তাই আজকের বৈঠকে বাংলা দখলের ব্লু প্রিন্ট যতই তৈরি হোক না কেন তার বাস্তবায়ন কতটা ঘটবে তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 008 Myra

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-Valentine RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Momo

Editors Choice

Comm Ad 008 Myra