2020 New Ad HDFC 04

করোনা কালে জৌলুসহীন বিসর্জনের সাক্ষী থাকল শহর কলকাতা

Share Link:

করোনা কালে জৌলুসহীন বিসর্জনের সাক্ষী থাকল শহর কলকাতা

নিজস্ব প্রতিনিধি: করোনাকালে বাঙালি সাক্ষী থেকেছে মণ্ডপে না ঢুকে উৎসবে সামিল হওয়ার। উৎসব শেষে সেই বাঙালি সাক্ষী থাকছে ভিন্ন ভাবে বিসর্জনেরও। সাক্ষী থাকছে নগর কলকাতাও। যেখানে প্রতি বছর জাঁকজমকপূর্ণ করে মা দুর্গাকে বিদায় জানানো হয় সেখানে এই বছর হাতে গোনা কয়েকজন মানুষ মিলে সেরেছেন বা সারছেন বিসর্জনের পালা। সেই সেই ডিজে, নেই ঢাকের বোল, নেই পাড়ার মানুষদের নাচ, নেই ব্যান্ডপার্টি। নিভৃতে না হলেও নীরবেই সোমবার দুপুর থেকে শুরু হওয়া বিসর্জন পর্ব চলবে আজ সারাদিনও।

গতকাল দুপুর থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছিল কলকাতার বুকে ঘাটে ঘাটে নিরঞ্জন। এদিন চলছে সেই পালা। একাদশীর দিন বেলা বাড়তেই শুরু হয়ে গিয়েছে প্রতিমা নিরঞ্জন। দক্ষিণ কলকাতার বাবুঘাট ও উত্তর কলকাতার নিমতলা ঘাটে এদিন বেলা ১০টা থেকেই নিরঞ্জন শুরু হয়ে গিয়েছে। বেশির ভাগ প্রতিমাই বারোয়ারির। তবে এবারের ভাসান অন্যবারের থেকে সম্পূর্ণ অন্যরকম। বারোয়ারি পুজো কমিটির প্রতিমার সঙ্গে থাকছে না কোনও বাজনার দল। কমিটির হাতে গোনা কয়েকজন সদস্য যাচ্ছেন গাড়ি করে ভাসান দিতে। ঘাটের কাছে গাড়ি থেকে পুরসভার কুলিরা প্রতিমা নামিয়ে তা গঙ্গায় ভাসাচ্ছেন। নদীর ধারে কমিটির দুই-একজন ছাড়া কার্যত কাউকেই যেতে দেওয়া হচ্ছে না। রিভার ট্রাফিক পুলিশ থেকে ভাসান উপলক্ষে রাস্তায় প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে গতকাল থেকেই। এদিনও তাঁরা রয়েছেন।
 
অনান্যবারের মতো এবারেও জলে কাঠামো পড়া মাত্রই পরিবেশ আদালতের নির্দেশ তা ক্রেন দিয়ে তুলে নেওয়া হচ্ছে পুরসভার কঠিন বর্জ্য অপসারণ বিভাগের গাড়িতে। কাঠামোগুলি নিয়ে যাওয়া হবে ধাপায়। ফুলসহ মাটির জিনিস ফেলার জন্য একটি করে প্রতি ঘটে নির্দিষ্ট জায়গা করে হয়েছে। সেখানেই সব কিছু ফেলা হচ্ছে। কলকাতার এক একটি অংশের প্রতিমা এক একদিনে নিরঞ্জন হবে। প্রথমে ঠিক হয়েছিল চারদিন ধরে সেই নিরঞ্জন পর্ব চলবে। কিন্তু কোভিডের কথা মাথায় রেখে তা দুইদিনে করা হয়। এদিনই শহরের সব বারোয়ারিকে তাদের প্রতিমা নিরঞ্জন করতে বলে দেওয়া হয়েছে। নিরঞ্জনের জন্য শহরের ঘাটগুলিতে কি ব্যাবস্থা নেওয়া হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে কলকাতা পুরনিগমের প্রশাসকণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম ও অন্যতম সদস্য দেবব্রত মজুমদার গতকালই বাবুঘাট সব অনেকগুলি ঘাট পরিদর্শন করে যান। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন পুর কমিশনার বিনোদ কুমার সহ কলকাতা পুলিশের আধিকারিকরাও। 

Comm AD 12 Myra

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-Valentine RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-LDC Egg

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-Valentine RC

Editors Choice

Comm Ad 2020-himalaya RC