পুরভোটের দিন ঘোষণায় খুশি ফিরহাদ

Published by:
https://www.eimuhurte.com/wp-content/uploads/2021/09/em-logo-globe.png

Rupendu Das

25th November 2021 2:00 pm | Last Update 25th November 2021 2:02 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি:  পুরভোটের দিন ঘোষণায় খুশি কলকাতার বিদায়ী মেয়র ফিরহাদ হাকিম। বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছি। অনেকদিন ধরেই ভোট পেন্ডিং ছিল। আমি এতোদিন চালিয়েছে।এবার মানুষ তাদের নতুন প্রতিনিধি নির্বাচন করবেন।

পাশাপাশি ত্রিপুরায় গেরুয়াবাহিনীর গুণ্ডামি নিয়েও তাঁকে মুখ খুলতে দেখা গেল। ফিরহাদ বলেন, বিপ্লব দেব সরকারের ওপর থেকে মানুষ আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। তারা চাইছে পরিবর্তন। আর মানুষের অনাস্থায় ভয় পেয়েছে রাজ্যের শাসকদল। বিপ্লব দেব সরকার মানুষের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ।    

অন্যদিকে, বিজেপি রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, যাঁরা জনগণের মুখোমুখি হতে ভয় পাচ্ছেন, তাঁরাই হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন। দল তৈরি। পাশাপাশি তাঁর কটাক্ষ, তৃণমূল যে বহুরূপী, সেটা স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘আমরা তৈরি। আমরা সারা বছর পড়াশোনা করি। প্রশ্ন করা হয়, তাদের দলের মেয়র কে হবেন। জবাবে দিলীপ ঘোষ বলেন, সর্বসম্মতিক্রমে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

পাশাপাশি তিনি কংগ্রেস এবং সিপিএমকে খোঁচা দিয়েছেন। বলেছেন, কংগ্রেস এমন একটি দল যে দল অপদার্থতায় ভরা। এখন ওরা আবার সিপিএমের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। দুটি দলই আগামীদিনে উঠে যাবে।

এদিকে, পুরভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি করা কলকাতা হাইকোর্টে দ্বারস্থ হয়েছে বিজেপি। তাঁদের প্রশ্ন, আদালতে প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পরেও কীভাবে ভোটের বিজ্ঞপ্তি? মামলা বিচারাধীন, আদালত কেন পদক্ষেপ নেবে না?’  হাইকোর্ট জানিয়েছে বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। যা কিছু বলার আছে লিখিতভাবে জানাতে হবে। 

উল্লেখ করা যেতে পারে, কলকাতার ১৪৪ টি ওয়ার্ডে ভোট হলেও এখনই পুরভোট হচ্ছে না হাওড়ায়। কারণ, বালিকে আলাদা পুরসভা করার উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য। কিন্তু রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় এখনও সেই বিলে স্বাক্ষর করেননি। বরং আরও তথ্য চেয়েছেন। তাই হাওড়ায় ভোট করানো সম্ভব হচ্ছে না।

More News:

Leave a Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

নজরকাড়া খবর

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

Subscribe to our Newsletter

86
মিশন দিল্লি, পিকের চাণক্যনীতি কতটা কাজ দিল মমতার?