এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

বহরমপুরে ইউসুফ খানকে ‘বহিরাগত’ বলে আখ্যা দিলেন হুমায়ুন কবির

নিজস্ব প্রতিনিধি: বহরমপুরে তৃণমূল প্রার্থী ইউসুফ খানের নাম ঘোষণা হওয়ার পর ক্ষোভে গর্জে উঠলেন হুমায়ুন কবির। তার দাবি বহরমপুর থেকে জিততে পারবেন না ইউসুফ পাঠান(Yusuf Pathan)। তিনি হেরে যাবেন অধীর চৌধুরীর(Adhir Chowdhury) কাছে। তার মতে বাড়তি অ্যাডভান্টেজ পাবে অধীর চৌধুরী। বহরমপুরের প্রার্থী নিয়ে বেসুরো তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবির। আগে কলকাতা থেকে গায়ক এনে শিক্ষা হয়নি। আবার ক্রিকেট খেলোয়াড়কে প্রার্থী করা হয়েছে বহরমপুরের(Baharampur)।বিদ্রোহী হুমায়ন কবীর। বহরমপুরে তৃনমুল প্রার্থী ইউসুফ পাঠানের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন। তিনি বলেন,প্রয়োজনে নির্দল হয়ে দাঁড়াবেন,দল চাইলে ব্যবস্থা নেবে। কোনমতেই ইউসুফ পাঠান বহরমপুরে জিততে পারবে না বলে জানিয়ে দেন হুমায়ুন কবির। তিনি জানান তার প্রচন্ড আত্মমর্যাদায় লেগেছে। তার মতে মুর্শিদাবাদের মানুষকে অবহেলা করা হয়েছে গুজরাট থেকে বহিরাগতকে এনে প্রার্থী করে। হুমায়ুন কবিরের প্রশ্ন কেন কান্দির বিধায়ককে(MLA) প্রার্থী করা হলো না ?তাকে পছন্দ নাই হতে পারে দলের ।

রবিবার ১০ মার্চ ব্রিগেডে(Brigade) প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার পর হুমায়ুন কবির কলকাতায় এসে মঙ্গলবার প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিলেন। এদিকে,অর্জুন সিং(Arjun Singh) আবারো বিজেপিতে যাওয়ার সম্ভাবনা যখন তীব্র তখন মুখ খুলল ভাটপাড়া বিধায়ক তথা অর্জুন পুত্র পবন সিং। পবন সিং(Paban Singh) পরিষ্কার দাবি করেন, বাবা যখন তৃণমূলে যায় ,তখন আমি বারবার বারণ করেছিলাম। তিনি আমার কথা শোনেননি এবং আমাকে যাবার জন্য তিনি বলেছিলেন। কিন্তু আমার মনে হয়েছিল সেখানে যাওয়া ঠিক হবে না। তাই আমি চাইনি। বাবা পরে হলেও বুঝতে পেরেছে ।এটা আমার কাছে খুব ভালো খবর। যখন বাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যাবে, তখন আমি বলেছিলাম আপনি ভুল করছেন। ওই দলে আপনি প্রচুর বছর কাজ করেছেন কিন্তু সম্মান পাননি। বহুবার প্রমিস করেছে কিন্তু সেই প্রমিস রাখেনি।

আপনি বলেছিলেন টিকিট দেবে আমি আপনাকে হান্ডেট পার্সেন্ট গ্যারান্টি দিয়ে বলেছি তৃণমূল আপনাকে কোনদিন টিকিট দেবে না। বাবার কাছ থেকে আমার রাজনীতি শেখা, বাবা যা যা ভুল করেছে সেখান থেকে আমি শিখেছি। বাবা যখন বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যায় তখন আমি বাবাকে বারবার বলেছি প্রচুর ক্ষোভ হয়েছিল আমার মধ্যে। কিন্তু বাবা তখন শোনেন নি। বাবাকে দিয়ে আমাকে বলনা হয়েছিল তৃণমূলে যোগদান করতে। পদ দেবে ।ভালো জায়গায় পৌঁছে দেবে। কিন্তু আমি সে কথা শুনিনি। আমি এতদিন ও সাংবাদিকদের সঙ্গে কোন কথা বলিনি। আজ আমি আনন্দে কথা বলছি। এবার মানুষ বলবে।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

সল্টলেকের বিভিন্ন প্রবেশ পথে শুরু কেন্দ্রীয় বাহিনীর নাকা তল্লাশি

ধামাখালিতে অস্থায়ী শিবির খুললেন সিবিআই এর আধিকারিকরা

লক্ষ্মী ভান্ডারকে পাথেয় করে নববারাকপুরে ঘরে ঘরে রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য্য

প্রতিহিংসা !পূর্ব মেদিনীপুরের দুই তৃণমূল নেতার বাড়িতে সিবিআই হানা

আচার্য জগদীশ চন্দ্র বোস রোড থেকে উদ্ধার ১২ লক্ষ টাকা ,গ্রেফতার ২

অভিজিতের প্রার্থী পদ বাতিলের দাবি শশী পাঁজার

Advertisement
এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর