Comm Ad 018 Kalna

অন্ধ্র-ওড়িশা নয়, সাগরের নিম্নচাপ ধেয়ে আসছে বাংলার পথে

Share Link:

অন্ধ্র-ওড়িশা নয়, সাগরের নিম্নচাপ ধেয়ে আসছে বাংলার পথে

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রকৃতিকে বোঝা আর তার খেয়ালকে নিয়ন্ত্রণ রাখা কার্যত এখনও অসাধ্য রয়ে গিয়েছে মানুষের কাছে। কিছু কিছু সময় আগাম বোঝা যায় ঠিকই বিপর্যয় কতটা হতে পারে বা কোন দিক থেকে আসতে পারে। কিন্তু ওইটুকুই। তার বেশি আর কিছু করে ওঠা যায় না। প্রকৃতির কাছে মানুষ যে কত অসহায় সেটা বার বার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে আয়লা আর আম্ফানরা। এবার পুজোর মধ্যেই ধেয়ে আসছে বড়সড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ, ২৪ ঘন্টা আগেও যার অভিমুখ ছিল অন্ধ্র-ওড়িশা, সে রাতারাতি অভিমুখ বদলে এখন ধেয়ে আসছে বাংলার পথে।

বঙ্গোপসাগরে যে নিম্নচাপ দানা বাঁধতে পারে সেটা এক সপ্তাহ আগেই জানিয়ে দিয়েছিল দিল্লির মৌসম ভবন। তাঁরা এটাও জানিয়েছিল সেই নিম্নচাপের অভিমুখ হবে অন্ধ্র-ওড়িশা উপকূল। গত কাল পর্যন্ত সেই রকমই পূর্বাভাস মিলছিল। আবহাওয়া দফতরই জানিয়েছিল ওই নিম্নচাপ অন্ধ্র-ওড়িশা উপকূলের দিকে যাওয়ায় বাংলায় তার সরাসরি কোনও প্রভাব পড়বে না। বড়জোড় দক্ষিনবঙ্গের জেলাগুলিতে আজ থেকে নবমী পর্যন্ত দফায় দফায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে। তবে কোনও বৃষ্টিই দীর্ঘস্থায়ী হবে না। কিন্তু সেই পূর্বাভাসকে কার্যত বাতিলের খাতায় ফেলে দিল স্বয়ং প্রকৃতি। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ রাতারাতি তার অভিমুখ বদলে ফেলেছে। এখন তার অভিমুখ বাংলারই দিকে। শুধু তাই নয়, শক্তি বাড়িয়ে সেই নিম্নচাপ ইতিমধ্যেই গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অনুমান আগামীকাল বিকাল থেকে রাতের মধ্যেই এই নিম্নচাপ অতি গভীর নিম্নচাপ হিসাবে বাংলার উপকূল স্পর্শ করবে। এরপর দুই ২৪ পরগনার ওপর দিয়ে বয়ে গিয়ে তা প্রবেশ করবে বাংলাদেশের অন্দরে।

এই নিম্নচাপের জেরে সাগর যে উত্তাল হয়ে উঠবে সেই সতর্কবার্তা গতকালই চলে গিয়েছে মৎস্যজীবিদের কাছে। আগামী শনিবার পর্যন্ত তাঁদের সাগরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। এদিন সকাল থেকেই দক্ষিন ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় বইতে শুরু করে দিয়েছে ঘন্টায় ৩০কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া। তার সঙ্গে নেমেছে বৃষ্টিও। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, সময় যতই গড়াবে ততই দুই ২৪ পরগনা ও দুই মেদিনীপুরে ঝোড়ো হাওয়া ও বৃষ্টির দাপট বাড়বে। এদিন থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে ওই চার জেলা ছাড়া কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া ও বাঁকুড়া জেলায়। অতি গভীর এই নিম্নচাপের দরুন আগামীকাল দক্ষিনবঙ্গের বিস্তীর্ন এলাকায় ঘন্টায় ৬০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অতি ভারী বৃষ্টি হবে। আর তার জেরেই রাজ্যে পুজোর মধ্যে বানভাসি হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। যদিও বাংলায় প্রায় এক দেড়মাস সে অর্থে ভারী বৃষ্টি হয়নি। কিন্তু আজ থেকে শনিবার পর্যন্ত লাগাতার বৃষ্টি চললে ও তার পরিমাণ বাড়লে জলাধারগুলিও জল ছাড়তে বাধ্য হবে। তার জেরে দক্ষিনবঙ্গের একাধিক জেলায় বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। এর জেরে ইতিমধ্যেই নবান্ন থেকে সতর্কবার্তা গিয়েছে দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগনা, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, হাওড়া ও হুগলি জেলা প্রশাসনের কাছে। অষ্টমির বিকাল থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Comm Ad 2020-tantuja-body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

2020 New Ad HDFC 05

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

2020 New Ad HDFC 05

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

Editors Choice

Comm Ad 2020-WB Tourism RC