Comm Ad 018 Kalna

একদিনে রাজ্যের শতাধিক পুজো উদ্বোধন করে রেকর্ড গড়লেন মুখ্যমন্ত্রী

Share Link:

একদিনে রাজ্যের শতাধিক পুজো উদ্বোধন করে রেকর্ড গড়লেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি: এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন থেকে ভার্চুয়াল ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি। কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে। একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান, অপপ্রচার থেকে বাঁচান, হিংসা থেকে বাঁচান, মানুষকে যেন মেলামেশা করে শান্ত ভাবে থাকতে শেখান।

গতকাল থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুরু করেছেন রাজ্যের নানা জেলায় ভার্চুয়াল পুজো উদ্বোধন। সেই মতো বুধবার উদ্বোধন করেছিলেন রাজ্যের ৬৯টি পুজোর। আর এদিন উদ্বোধন করলেন ১২টি জেলার মোট ১১০টি পুজো। একইসঙ্গে এদিন পুজো উদ্বোধনের মাঝে মাঝেই সব পুজো কমিটি ও উপস্থিত জনপ্রতিনিধিদের আবশ্যিক ভাবে মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। করোনামুক্ত বাংলার জন্য দেবীদুর্গার কাছে এদিন বারংবার যেমন প্রার্থনা করেন তিনি তেমনি করোনার জেরে দলের যে তিন বিধায়কের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের কথাও তুলে ধরেন এদিন। তাঁদের পরিবারবর্গ সান্ত্বনা দিয়ে সমবেদনা জানান মুখ্যমন্ত্রী। করেন বিধায়কদের স্মৃতিচারণাও। তবে এদিন বেশ নজর টেনেছে উদ্বোধন কালে মুখ্যমন্ত্রীর শাঁখ বাজানো, কাঁসর বাজানো ও চণ্ডীপাঠের অংশও।
 
এদিন মুখ্যমন্ত্রী যে ১২টি জেলার পুজো উদ্বোধন করেন সেগুলি হল পশ্চিম বর্ধমান, পূ্র্ব বর্ধমান, হুগলি, হাওড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বীরভূম, উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪পরগনা। তবে উত্তর ২৪ পরগনার যে পুজোগুলি এদিন মুখ্যমন্ত্রী উদ্বোধন করেন তার মধ্যে ২টি পুজো উত্তর কলকাতার শহরতলির পুজো এবং ২টি পুজো পূর্ব কলকাতার পুজো। এদিন এই সব পুজোর উদ্বোধন করতে করতে নবান্নের সভাঘর মঞ্চে দাঁড়িয়ে বারবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ভার্চুয়ালি পুজোর সূচনা করলেও মনে মনে তিনি পৌঁছে গিয়েছেন সকলের মাঝে। তাই সকলকে বাংরবার পুজোর শুভেচ্ছা জানান তিনি। অনু্ষ্ঠানের শেষপ্রান্তে চণ্ডীপাঠও করেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠানের মাঝেই নাম না করেই কলকাতা হাইকোর্টে বারোয়ারি পুজো বন্ধের জন্য দায়ের হওয়া জনস্বার্থ মামলার প্রসঙ্গে বলেন, ‘ধর্মীয় অনুষ্ঠান বাতিল করা সম্ভব নয়। পুজো হবে। তবে নিয়ম মেনে। ক্লাবগুলিকে সচেতনভাবে সব কিছুর আয়োজন করতে হবে। সাধারণ মানুষকেও সচেতন থাকতে হবে।’ 

corona 01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Pujo2020-T01

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 008 Myra

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Egg

Editors Choice

Comm Ad 2020-LDC Egg