Comm Ad 018 Kalna

বাংলা জুড়ে আজ প্রায় ৭৫টি পুজোর উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী

Share Link:

বাংলা জুড়ে আজ প্রায় ৭৫টি পুজোর উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রতিবছর মহালয়ার দিন থেকেই শুরু হয়ে যায় মুখ্যমন্ত্রীর একের পর এক দুর্গাপুজোর উদ্বোধন। তবে সেই তালিকা সীমাবদ্ধ থাকে মূলত কলকাতার মধ্যেই। খুব ঘণিষ্ঠ কেউ অনুরোধ করলে সেই তালিকায় দুই ২৪ পরগনা ও হাওড়ার ২-১টি পুজো ঢুকে পড়ে। এবার কিন্তু পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভিন্ন। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই জানিয়ে দিয়েছেন এবার আর মণ্ডপে মণ্ডপে গিয়ে নয়, ভার্চুয়ালি সব পুজোর উদ্বোধন করবেন তিনি। আর তাতেই কার্যত সোনায় সোহাগা জেলার পুজোগুলির ক্ষেত্রে। অন্যবার তাঁরা পায় না মুখ্যমন্ত্রীর হাত দিয়ে উদ্বোধনের সুযোগ। কিন্তু এবার সেই সুযোগ এসে গিয়েছে করোনাকালে। জানা গিয়েছে এদিনই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের প্রায় ৭৫টি পুজোর উদ্বোধন করবেন ভার্চুয়ালি।

গত ২-১ দিন ধরেই কলকাতার হাতে গোনা কিছু পুজোর উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি মণ্ডপে গিয়ে করছেন। চেতলা অগ্রণী ও নাকতলা উদয়ন সঙ্ঘের পুজো তিনি নিজে গিয়েই উদ্বোধন করেছেন। প্রথম পুজোটি কলকাতার মহানাগরিক তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের ও দ্বিতীয়টি তৃণমূলের মহাসচিব তথা রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের পুজো হিসাবেই পরিচিত। এই রকম হাতে গোনা কিছু পুজোর উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি মণ্ডপে গিয়েই করবেন। সুরুচি সঙ্ঘের পুজো রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের পুজো বলেই সুপরিচিত। সেই পুজোর উদ্বোধনও মুখ্যমন্ত্রী নিজে গিয়ে করবেন বলেই জানা গিয়েছে। কিন্তু এর বাইরে বেশির ভাগ পুজোই তিনি এবার ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করবেন বলেই তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে কলকাতার কিছু পুজো এবারেও মুখ্যমন্ত্রী নিজে মণ্ডপে গিয়ে উদ্বোধন করবেন তাঁর ঘনিষ্ট তৃণমূলে নেতা বা জনপ্রতিনিধিদের অনুরোধে। গতকাল যেমন তিনি সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুরোধে আহিরিটোলার পুজো উদ্বোধন করেছিলেন।
 
তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে এদিন মুখ্যমন্ত্রী প্রায় ৭৫টি পুজোর উদ্বোধন করতে পারেন। তার মধ্যে হাওড়া, পাঁচলা, উলুবেড়িয়া, বাগনান ও আমতায় ৮টি পূজোর উদ্বোধন করবেন তিনি। বাকি পুজোগুলি ছড়িয়ে থাকবে নানা জেলায়। তার মধ্যে কলকাতারও কিছু পুজো থাকবে। তৃণমূল সূত্রে এটাও জানা গিয়েছে যে, আগামী বছর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে গেলেও জেলায় জেলায় মুখ্যমন্ত্রী ভার্চুয়ালি পুজো উদ্বোধনের এই রীতি বজায় রাখবেন। এতদিন ভার্চুয়ালি যে পুজোর উদ্বোধন হতে পারে সেই কনসেপ্টই ছিল না। কিন্তু করোনাকালে সেই রাস্তা খুলে গিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজে চান না এই রাস্তা বন্ধ হয়ে যাক। কারন প্রতিবছর রাজ্যের নানাপ্রান্ত থেকে তাঁর কাছে আবেদন, আবদার, অনুরোধ আসে পুজো উদ্বোধন করতে। কিন্তু সশরীরে গিয়ে সেই সব পুজো উদ্বোধন করতে যাওয়া তাঁর পক্ষে কার্যত অসম্ভব ছিল। এবারে ভার্চুয়ালি ভাবে সেই খামতি কিন্তু পূরণ হয়েছে যাচ্ছে। আগামী বছরও এই রীতি মুখ্যমন্ত্রী তাই বজায় রাখতে চান বলেই জানা গিয়েছে। একই সঙ্গে এটাও জানা গিয়েছে এবারে রাজ্যপালকে আমন্ত্রণ জানিয়ে পুজো উদ্বোধন করার জন্য কার্যত কোনও চাহিদাই নেই। পদ্মপাল রাজ্যপালকে এখন রাজ্যের সব পুজো কমিটিই এড়িয়ে চলতে শুরু করেছেন বলেই এই দশা বলে জানা গিয়েছে। কার্যত জনগনের কাছে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা, বিশ্বাসযোগ্যতা ও শ্রদ্ধা কমে যাওয়ার জন্য এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। নাহলে তাঁকেও হয়তো এবার ভার্চুয়ালি পুজো উদ্বোধন করতে দেখা যেত অনান্যবারের মতোই।

corona 01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 006 TBS

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-Valentine RC

Editors Choice

2020 New Ad HDFC 05