2020 New Ad HDFC 04

অক্ষত রয়েছে মায়ের বাড়ি, জানালো বেলুড় মঠ

Share Link:

অক্ষত রয়েছে মায়ের বাড়ি, জানালো বেলুড় মঠ

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিধ্বংসী আগুনে সমস্ত কিছু পুড়ে ছাড়খার হয়ে গিয়েছে। কিন্তু সারদা মায়ের বাড়ি রয়েছে অক্ষত। এদিন সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছেন বেলুড় মঠ ও মিশনের সেক্রেটারি সুবীরানন্দ মহারাজ। মহারাজের কথায়, ‘অক্ষত রয়েছে মায়ের বাড়ি। বিধ্বংসী আগুনের লেলিহান শিখা স্পর্শ করেনি মায়ের বাড়ি।’ তবে অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১২২ বছরের পুরনো রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের উদ্বোধন কার্যালয়। উদ্বোধন কার্যালয়ের প্রায় অর্ধেক অংশ পুড়ে গিয়েছে। পাশের ঝুপড়িতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হওয়ায় উদ্বোধন কার্যালয়ের একতলার পাঁচিলে পড়েছে একাধিক ফাটল। তিনতলার লাইব্রেরি পুড়ে ছারখার হয়ে গিয়েছে। দোতলায় সারদানন্দ হলেও আগুন তার দাপট দেখিয়েছে। সুবীরানন্দ মহারাজ জানিয়েছেন, এলাকায় যা ক্ষতি হয়েছে তার জন্য তাঁরা ত্রাণ নিয়ে প্রস্তুত রয়েছে। প্রসঙ্গত, বিধ্বংসী আগুনের ভয়াবহতা এমনই ছিল যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতেও লেগেছে বহু সময়। আগুনের জেরে সর্বহারা হয়েছেন প্রায় ৭০০ জন মানুষ। হারিয়েছেন তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র থেকে সোনাদানা, জামাকাপড়, বাসনকোস্ন, আসবাব, বইখাতা সব।
 
বাগবাজার বস্তির অগ্নিকাণ্ডে ‘মায়ের বাড়ি’ সম্পূর্ণ সুরক্ষিত রয়েছে এই তথ্য তুলে ধরে এদিন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বেলুড় মঠের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে জানানো হয়েছে, ‘ঐতিহাসিক যে বাড়িতে শ্রীশ্রী মা বাস করতেন, সেই বাড়ি সম্পূর্ণ অক্ষত এবং সুরক্ষিত রয়েছে। অগ্নিকাণ্ডে মায়ের বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে যে প্রচার ছড়িয়েছে তা ঠিক নয়’। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলেও বৃহস্পতিবারের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। রামকৃষ্ণ মঠ এবং মিশন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, মায়ের বাড়ির উল্টোদিকে রয়েছে ‘উদ্বোধন’ নামে বাড়িটি। যেখানে ‘সারদানন্দ হল’ নামে একটি সভাগৃহ রয়েছে। এই বাড়ি থেকে মূলত প্রকাশনার কাজকর্ম হয়। এই বাড়ির খুব কাছেই বুধবার সন্ধ্যায় লেগেছিল আগুন। কিন্তু এই বাড়ির খুব একটা ক্ষতি হওয়ার আগেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। তবে ওই বাড়িটির দোতলা এবং তিনতলার কয়েকটি দরজা, জানালা এবং বাতানুকূল যন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া বাড়ির কোনও ক্ষতি হয়নি। প্রকাশনার কাজের কম্পিউটার ও অন্যান্য যন্ত্রপাতিও সুরক্ষিত রয়েছে বলেও জানানো হয়েছে।
 
উদ্বোধন কার্যালয়ে মজুত রাখা বইয়েরও কোনও ক্ষতি হয়নি বলেও জানিয়েছেন মঠ কর্তৃপক্ষ। ওই বাড়িতে থাকা কর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকরাও সুরক্ষিত রয়েছেন। অগ্নি নির্বাপণে সহায়তার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদও জানিয়েছেন মঠ কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানকার গৃহহীনদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা প্রশাসনের তরফে করা হবে বলে ঘোষণাও করেছেন। ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে আগের মতো সকলের জন্য বাড়ি তৈরি করে দেওয়া হবে।

Comm Ad 018 Kalna

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Egg

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-LDC Egg

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের  সমাপ্তি অনুষ্ঠান

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠান

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Momo
Comm Ad 2020-WB Tourism RC