Brand Ad - Poll 2021-01

কলকাতায় বাড়ছে টিকাকেন্দ্রের সংখ্যা, তবে এখনই কনটেনমেন্ট জোন নয়

Share Link:

কলকাতায় বাড়ছে টিকাকেন্দ্রের সংখ্যা, তবে এখনই কনটেনমেন্ট জোন নয়

নিজস্ব প্রতিনিধি: করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে কাঁপছে কল্লোলিনী তিলোত্তমা।  পরিস্থিতি সামাল দিতে কলকাতা পুরসভার শীর্ষ প্রশাসনিক আধিকারিকরা করোনা টিকাকরণের উপরেই জোর দিচ্ছেন। চলতি মাসে এক ধাক্কায় দ্বিগুণ টিকাকরণের লক্ষ্যে টিকাদান কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রতিদিন অন্তত ২০ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ফের  সেফ হোম খোলার তোড়জোড় শুরু হয়েছে। শহরের কোন কোন এলাকায় আক্রান্তের সংখ্যা অধিক, সেই সব জায়গা চিহ্নিতকরণের কাজ চলছে। তবে এখনই কনটেনমেন্ট জোন চালু হচ্ছে না বলে কলকাতা পুরসভার এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন।

বর্তমানে কলকাতা পুরসভার মূল ভবন অর্থা‍ৎ সদর দফতর ছাড়াও আরও ৭৯টি কেন্দ্রের মাধ্যমে টিকা দেওয়া হয়। গত ১ এপ্রিল থেকে নতুন করে ১১ টি কেন্দ্র খোলা হয়েছিল। শহরবাসীকে টিকাকরণের আওতায় নিয়ে আসার বিষয়ে যে লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছিল তা পূরণ করা সম্ভব হয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৯৫০০ থেকে ১০ হাজার নাগরিককে টিকা দেওয়া হচ্ছে পুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতে।

সম্প্রতি কলকাতা পুরসভার শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় টিকাকরণের গতি বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন। সেই নির্দেশ মেনে কলকাতা পুর এলাকায় টিকা দেওয়ার কাজে আরও গতি নিয়ে আসতে চাইছে পুর কর্তৃপক্ষ। সূত্রের খবর, আগামী ১৪ এপ্রিলের মধ্যে প্রথম দফায় আরও ৪০টি এবং দ্বিতীয় দফায় ২৫ এপ্রিলের মধ্যে আরও ২৪টি স্বাস্থ্যকেন্দ্রের টিকাকরণের ব্যবস্থা চালু করা হবে। সেক্ষেত্রে কলকাতার সব প্রত্যেকটি ওয়ার্ডেই চালু হয়ে যাবে করোনা টিকাকরণ।

তবে টিকাকরণের ক্ষেত্রে প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীর অভাব কিছুটা হলেও পুর আধিকারিকদের চিন্তায় রেখেছে।  পুরসভার স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিকের কথায়, ‘আমরা ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এগোতে চাইছি। যতটা সম্ভব টার্গেট ছোঁয়ার চেষ্টা হবে।’ সেইসঙ্গে শহরে আপাতত বন্ধ থাকা পুরসভার বিভিন্ন সেফ হোমগুলি খোলার তোড়জোড় শুরু হয়েছে। শহরের বিভিন্ন অঞ্চল বিশেষ করে দক্ষিণ, সংযুক্ত এবং পূর্ব কলকাতার বিভিন্ন এলাকা বিশেষ নজরে রয়েছে। বড়বাজার এবং জোড়াসাঁকো এলাকা, টালিগঞ্জ, গড়িয়া, যাদবপুর এবং বেহালার অঞ্চলে বিভিন্ন হাউসিং কমপ্লেক্স, ব্যক্তিগত বাড়ি, আলিপুর ও ভবানীপুর অঞ্চলের বিভিন্ন বহুতল, কসবা, মুকুন্দপুর এলাকায় বাড়বাড়ন্ত বেশি পুরসভা সূত্রে খবর। নবান্নের তরফে পুরসভাকে ফের নতুন করে কলকাতায় কনটেনমেন্ট জোন চালুর উদ্যোগ নিতে বলা হয়েছে। এই প্রসঙ্গে পুরসভার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুব্রত রায় চৌধুরী বলেন, ‘আমরা পরিস্থিতির উপর কড়া নজর রাখছি। পরিস্থিতি অনুযায়ী পদক্ষেপ হবে।’ যদিও পুরো শহরে কনটেনমেন্ট জোন চালু করার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি বলেই মনে করছেন পুরসভার স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

2020 New Ad HDFC 05

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-Valentine RC

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 026 BM
Comm Ad 006 TBS