corona 01

মাথার ওপরে মমতা আছেন, বাকি সব দোদুল্যমান! ইঙ্গিতবাহী বার্তা পার্থ’র

Share Link:

মাথার ওপরে মমতা আছেন, বাকি সব দোদুল্যমান! ইঙ্গিতবাহী বার্তা পার্থ’র

নিজস্ব প্রতিনিধি: কার দৌড় কতদূর জানা আছে। মাথার ওপরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আছেন। যতদিন থাকবেন ততদিন রাজনৈতিকভাবে আমরা শক্তিশালী। তারপর সবটাই দোদুল্যমান। কে থাকলো, আর কেই বা কোথায় গেল। বক্তা পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রাজ্যের শাসক দলের মহাসচিব ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী। বর্ষীয়াণ এই বিধায়ক, মন্ত্রী ও নেতা এদিন যেন তৃণমূলের বর্তমান ও ভবিষ্যতের ছবিটাই অকপটে তুলে ধরলেন সকলের সামনে। বুঝিয়ে দিলেন এখন দলে কে থাকলো আর কে গেল তাতে কিছু দায় এসে যায় না, কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবর্তমানে এই দলটির আদৌ কোনও অস্বতিত্ব থাকবে কিনা সন্দেহ। এহেন বলার কারন, এদিন সাংবাদিকেরা পার্থবাবুকে সরাসরি জিজ্ঞাসা করেছিলেন তৃণমূলেরই প্রাক্তন বিধায়ক তথা অধুনা ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের করা এক দাবি নিয়ে। অর্জুন গতকালই দাবি করেছেন, শুভেন্দু অধিকারী, সৌগত রায়েরা খুব শীঘ্রই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। তাঁর জেরেই এদিন পার্থবাবু জানিয়ে দেন, ‘দলের অনেকেরই থাকা, না – থাকা দোদুল্যমান।’ স্বাভাবিক ভাবেই পার্থবাবুর এহেন মন্তব্য ঘিরে জোর জল্পনা ছড়িয়ে পড়েছে রাজ্য রাজনীতিতে।
 
রাজ্যের অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদরা মনে করছেন, বিজেপির বিভিন্ন নেতা থেকে সাংসদ বা মন্ত্রীরা এক এক সময় যে সব দলবদলের দাবি রাখছেন তার সব কিছু হয়তো ভুয়ো নয়। নয় নিছক বাজার গরম করার বার্তাও। তলে তলে কোথাও একটা যোগ-বিয়োগ চলছে। এতদিন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব কার্যত নিশ্চিত ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বর্তমানে তাঁকে ছেড়ে ভিন্ন দলের দিকে কেউ পা বাড়াবেন না। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারী কাণ্ডে তাঁদের সেই মনোভবে বদল এসেছে। এদিন পার্থবাবু যা বলেছেন তাতে এটা পরিষ্কার তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব এটা ধরেই নিয়েছেন শুভেন্দু আর বেশিদিন জোড়াফুলে নেই। আর শুভেন্দু যে একা দল ছাড়বেন না এটাও নিশ্চিত তাঁরা। তাই সময় থাকতে থাকতেই মেপে কথা বলে দলে ভাঙনের ছবি তুলে ধরলেন পার্থ পরে যাতে তা ধাক্কা হয়ে দলের কাছে ফিরে না আসে। বরঞ্চ পক্ষান্তরে যারা দল ছাড়তে চাইছেন তাঁদের পরিষ্কার বুঝিয়ে দিলেন কারোর চাপে দলের সিদ্ধান্তে কোনও বদল ঘটবে না। এখনই পর্যন্ত দলের মুখ একটাই, সেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এখনও পর্যন্ত দলের নেত্রী একজনই সেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। বাকি সব দলের সৈনিক। অনেকেই মনে করছেন এদিন পার্থবাবু কার্যত নাম না করেই শুভেন্দু অধিকারীকে বার্তা দিয়েছেন।
 
এদিন পার্থবাবু অর্জুন সিংয়ের দাবি ঘিরে করা প্রশ্নে সাংবাদিকদের জানিয়ে দেন, ‘দলের অনেকেরই থাকা, না – থাকা দোদুল্যমান। আমাদের অসুবিধা তখনই হবে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থাকবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়া কার কত দৌড় আমাদের দেখা আছে। রাজনৈতিকভাবে আমরা শক্তিশালী কারণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাদের মাথায় আছেন।’ ব্যক্তিকেন্দ্রীক দলগুলি উপমহাদেশের রাজনীতিতে বার বার মাথাচাড়া দিলেও এটাও খুব সত্যি এই সব দল নির্দিষ্ট ব্যক্তির সময়ের সব থেকে বেশি বিস্তার লাভ করে। সেই ব্যক্তির অবর্তমানে সেই দলটির অবস্থা কিন্তু পাকা থাকে না। কংগ্রেসও সেই নিয়মের বাইরে যেতে পারছে না। যদিও এটি ব্যক্তি অপেক্ষা পরিবার কেন্দ্রীক দল হিসাবেই পরিচিত। এই কংগ্রেস ভেঙেই তৃণমূলের জন্ম। যা প্রথম থেকে এখনও পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন্দ্র করেই আবর্তিত হয়ে চলেছে। সেক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবর্তমানে এই দলটির ভনিষ্যত কী হবে তা নিয়ে নানা মুনির নানা মত ছিল। কিন্তু এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্য কার্যত সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে দিল। বুঝদারদের জন্য এই সামান্য ইশারাই যথেষ্ট।  

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

corona 02

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-Valentine RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

Editors Choice

Comm Ad 2020-himalaya RC