Comm Ad 005 TBS

৪০ ঘণ্টা পার, নেই পানীয় জল-বিদ্যুৎ, শহরে পথ অবরোধ-বিক্ষোভ স্থানীয়দের

Share Link:

৪০ ঘণ্টা পার, নেই পানীয় জল-বিদ্যুৎ, শহরে পথ অবরোধ-বিক্ষোভ স্থানীয়দের

নিজস্ব প্রতিনিধি: বুধবার রাতে আঘাত করেছিল ঘূর্ণিঝড় আম্ফান। তারপর থেকে প্রায় ৪০ ঘণ্টা কেটে গিয়েছে, কিন্তু তারপরেও শহরের একাধিক এলাকায় আসেনি বিদ্যুৎ, নেই পানীয় জলও। এর জেরেই শুক্রবার সকাল থেকে বেলগাছিয়া, অজয়নগর, যাদবপুর-সহ শহরের একাধিক এলাকায় অবরোধ শুরু করেন সাধারণ মানুষ। 

এর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা অজয়নগর, যাদবপুর-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায়। বারংবার বলা সত্ত্বেও এখানের বিস্তীর্ণ অঞ্চলেই নেই বিদ্যুৎ, পানীয় জল। এমনকি এত সময় গড়িয়ে যাওয়ার পরেও রাস্তা থেকে গাছ কাটাও হয়নি। সেই কারণেই স্থানীয় কাউন্সিলর অনন্যা চট্টোপাধ্যায়কে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। তাঁদের দাবি, কাউন্সিলর যথাযথ কাজ করছেন না। এরপরেই বাইপাস অবরোধ শুরু করেন তাঁরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিচ্ছে।

যদিও অনন্যার দাবি, ঝড়ে এত গাছ পড়েছে, তাতে সব পরিস্কার করতে সময় লাগবে। ফলে একটু ধৈর্য ধরতেই হবে। প্রত্যেকেরই সমস্যা হচ্ছে, তা স্পষ্ট। কিন্তু যা পরিস্থিতি তাতে একটু অপেক্ষা করা ছাড়া কোনও পথ নেই। কিন্তু তাতেও রক্ষা নেই। দুপুর পর্যন্ত বাইপাসের ওপর অবরোধ করে চলেছেন স্থানীয়েরা। 

এছাড়াও, বেলগাছিয়া মিল্ক কলোনি ও যশোর রোডের বিভিন্ন এলাকায় অনেক গাছ পড়েছে, গত দেড় দিনে তা সরানো যায়নি। ফলে সেই সব এলাকার মানুষেরাও রাস্তায় নেমেছেন। সেখানেও চলছে অবরোধ-বিক্ষোভ। শুধু এই দুটি অঞ্চলই নয়, সারা শহরের বিভিন্ন রাস্তায় পড়ে রয়েছে বড় বড় গাছ। বহু এলাকা বিদ্যুৎ-এর খুঁটি উপড়ে পড়ায় টেলি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। এরইমধ্যে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা চলছে পুরোদমে। 

শহরের মধ্যে ধীরে ধীরে শুরু হয়েছে যানবাহন চলাচল। শহরের উত্তর থেকে দক্ষিণ বিভিন্ন জায়গায় ঝড়ে উপড়ে পড়া গাছ সরানোর কাজ শুরু করেছে কলকাতা পুরসভা। তবে সমস্ত গাছ সরিয়ে রাস্তা পরিষ্কার করতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে বলে মনে করছেন পুর আধিকারিকরা। আমফানের ধাক্কায় বিপর্যস্ত কলকাতার সৌন্দর্যায়নে ছবি। ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে লেকটাউনে ক্ষতিগ্রস্ত বিগ বেনের ঘড়ি। ভেঙেচুরে দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছে ঘড়ির ডায়াল ও কাঁটা।

বেলগাছিয়া এলআইজি আবাসনে গাছ উপড়ে তারের ওপর পড়ায়, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন গোটা এলাকা। ঝড়ে গাছ উপড়ে পড়ায় বন্ধ গড়িয়া স্টেশন থেকে ইএম বাইপাস যাওয়ার মূল রাস্তা। বন্ধ পঞ্চসায়রের একাধিক রাস্তা। বিদ্যুতের তারে গাছ পড়ায় পঞ্চসায়রের বিস্তীর্ণ এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। গলফ গ্রিনের মিনিবাস স্ট্যান্ড যেন ধ্বংসস্তূপ। গাছ উপড়ে পড়েছে মিনিবাসের ওপর। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ঐতিহাসিক মূর্তি ভেঙে মিশে গিয়েছে মাটিতে। দুর্যোগের ৪০ ঘণ্টা পরেও এরকমই দশা শহরের বিভিন্ন এলাকার।

2020 New Ad HDFC 04

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 026 BM

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 008 Myra

নবান্নের কন্ট্রোলরুমে মুখ্যসচিবের সঙ্গে আলোচনায় মুখ্যমন্ত্রী।

নবান্নের কন্ট্রোলরুমে মুখ্যসচিবের সঙ্গে আলোচনায় মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার সারারাত নবান্নে থেকেই পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার সারারাত নবান্নে থেকেই পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন মুখ্যসচিব, ডিজি-সহ অন্য কর্তারা।

মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন মুখ্যসচিব, ডিজি-সহ অন্য কর্তারা।

মঙ্গলবারের পর বুধবার বিকেলেও শহরের বিভিন্ন জায়গায় যান মুখ্যমন্ত্রী।

মঙ্গলবারের পর বুধবার বিকেলেও শহরের বিভিন্ন জায়গায় যান মুখ্যমন্ত্রী।

তাঁর সঙ্গে ছিলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা ও মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

তাঁর সঙ্গে ছিলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা ও মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

এদিন খিদিরপুর, পার্ক সার্কাস, বালিগঞ্জ ফাঁড়ির মতো দক্ষিণ কলকাতার একাধিক জায়গায় যান।

এদিন খিদিরপুর, পার্ক সার্কাস, বালিগঞ্জ ফাঁড়ির মতো দক্ষিণ কলকাতার একাধিক জায়গায় যান।

এদিনও স্থানীয়দের লকডাউন মেনে চলার অনুরোধ করেন তিনি।

এদিনও স্থানীয়দের লকডাউন মেনে চলার অনুরোধ করেন তিনি।

এই নিয়ে পরপর দু'দিন শহরের বিভিন্ন জায়গায় গেলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এই নিয়ে পরপর দু'দিন শহরের বিভিন্ন জায়গায় গেলেন মুখ্যমন্ত্রী।

তাঁর এই কাজকে তীব্র ভাষায় বিঁধেছেন বিরোধীরা।

তাঁর এই কাজকে তীব্র ভাষায় বিঁধেছেন বিরোধীরা।

পূবস্হলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১নং ব্লকের শাখাটি আদিবাসী পাড়ার বাহা পুজোর উৎসব

পূবস্হলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১নং ব্লকের শাখাটি আদিবাসী পাড়ার বাহা পুজোর উৎসব

সেখানেই যান মাননীয় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

সেখানেই যান মাননীয় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন। জানতে চান সুবিধা-অসুবিধার কথা

গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন। জানতে চান সুবিধা-অসুবিধার কথা

পরে একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধনও করেন মন্ত্রী

পরে একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধনও করেন মন্ত্রী

জনগণের সঙ্গে বসে অনুষ্ঠানও দেখেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

জনগণের সঙ্গে বসে অনুষ্ঠানও দেখেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

প্রায় ঘণ্টাখানেক এই অনুষ্ঠানেই ছিলেন তিনি

প্রায় ঘণ্টাখানেক এই অনুষ্ঠানেই ছিলেন তিনি

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 026 BM

Editors Choice

Comm Ad 008 Myra