Comm Ad 2020-tantuja-body

তৃণমূলের হয়ে প্রচারে নামছেন শিক্ষকেরা! ধাক্কা খাবে গেরুয়া

Share Link:

তৃণমূলের হয়ে প্রচারে নামছেন শিক্ষকেরা! ধাক্কা খাবে গেরুয়া

নিজস্ব প্রতিনিধি: শিক্ষকেরা এখনও সমাজ গড়ার কারিগর হিসাবেই চিহ্নিত হন। তাই এখনও কিছু শিক্ষকের বিরুদ্ধে নানা ধরনের অভিযোগ উঠলেও সামগ্রিক ভাবে শিক্ষকেরা সমাজের সকল স্তরেই সম্মাণিত হন। সেই শিক্ষকেরাই এবার পথে নামতে চলেছেন রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে জয়ী করতে। তাও এক আধজন নয়, পুরো ৬০ হাজার শিক্ষক প্রচারে নামতে চলেছেন তৃণমূলের প্রার্থীদের হয়ে প্রচার করতে। তাঁরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার করবেন কীভাবে কন্যাশ্রী প্রকল্প বাংলার মেয়েদের স্কুলছুট রুখে দিয়েছে, কীভাবে এই প্রকল্প মেয়েদের নাবালিকা অবস্থায় বিয়ে রুখে দিচ্ছে, কীভাবে সবুজসাথী প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রামবাংলার ছেলে-মেয়েরা স্কুলে যেতে পারছে। একই সঙ্গে তাঁরা তুলে ধরবেন মিড ডে মিলের কথা, বিনামূল্যে স্কুলের ছেলেমেয়েদের বই-ব্যাগ-ইউনিফর্ম দেওয়ার কথা। বিগত এক দশকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার স্কুল পড়ুয়াদের জন্য কী কী করেছে সেই কথাই তুলে ধরবেন তাঁরা।
 
জানা গিয়েছে, তৃণমূল এবার নতুন এক কর্মসীচী শুরু করতে চলেছে। তাঁর নাম দেওয়া হয়েছে ‘চলুন মাস্টারমশাই, ঘুরি বাড়ি বাড়ি’। সোমবার দুপুরে এই কর্মসূচীর উদ্বোধন করবেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তৃণমূল কংগ্রেসের শিক্ষক সংগঠনের সদস্য প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষক এই অভিযানে অংশগ্রহণ করবেন। এবার তৃণমূল বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচারের জন্য ১২ হাজার দল তৈরি করছে। সেই দলগুলির প্রতিটিতে থাকছেন ৫জন করে শিক্ষক। প্রতিটি দলের পরিচালনার দায়িত্বে থাকছেন তৃণমূলেরই শিক্ষক সংগঠনের সদস্যরা। এনারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে গত এক দশকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার রাজ্য তথা রাজ্যবাসীর উন্নয়নের জন্য যে সব প্রকল্প এনেছেন তার সব কিছুই একটু পুস্তিকার মাধ্যমে তুলে ধরবেন। বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাঁরা এই বই মানুষের হাতে তুলে দেবেন যাতে মানুষ দেখতে পারেন, জানতে পারেব এইসব প্রকল্প নিয়ে। ওই বইয়ে ৬৪টি মানবিক প্রকল্পের কথা তুলে ধরা বলে জানা গিয়েছে।
 
প্রচারের কাজে দলের নেতাকর্মীরা নামলে অনেক জায়গাতেই হয়তো দলের প্রার্থী থেকে শুরু করে নেতাদেরও কিছু ক্ষোভ-বিক্ষোভের মুখে পড়তে হতে পারে। সেই জায়গায় শিক্ষকেরা গেলে কিন্তু মানুষ বিক্ষোভ দেখানোর জায়গায় মন দিয়ে তাঁদের কতাহ শুনবেন। তাছাড়া এই কর্মসূচীতে সব থেকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে গ্রামবাংলাকে। রাজ্য সরকারের এমন অনেক প্রকল্প আছে যার সম্পর্কে কেউ কিছুই জানেন না। আর জানেন না বলে তাঁরা সেই প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধাও নিতে পারেন না। অনেকে এটাও জানেন না কিভাবে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে হবে না কোথায় তা করতে হবে। এবার সেই সব সাধারন মানুষের কাছে তুলে ধরতেই গ্রামে গ্রামে বাড়ি বাড়ি যাবেন শিক্ষকেরা। বলবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নয়ের কথা। বাংলার উন্নয়নের কথা। আর এই কর্মসূচী কার্যত গেরুয়া শিবিরকে চূড়ান্ত রকমের অস্বস্তিতে ফেলে দিতে চলেছে। কারন তাঁদের কাছে শিক্ষকদের কোনও সংগঠনই নেই। বিজেপির নেতাকর্মীদের কথা শোনার চেয়ে শিক্ষকদের কথা মানুষ বেশি করে শুনবেন। এখানেই রাজনীতির ময়দানের মানুষেরদের ইপেক্ষা শিক্ষকেরা এগিয়ে থাকবেন। আর এই এগিয়ে থাকাই তৃণমূলকে রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনের সময় বাড়তি অ্যাডভান্টেজ এনে দেবে।  

Comm Ad 018 Kalna

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

2020 New Ad HDFC 05

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 026 BM

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 008 Myra

Editors Choice

2020 New Ad HDFC 05