2020 New Ad HDFC 04

নেপথ্যে সৌমিত্র-শঙ্কু! ভিক্টোরিয়া কাণ্ডে যেতে পারে পদ

Share Link:

নেপথ্যে সৌমিত্র-শঙ্কু! ভিক্টোরিয়া কাণ্ডে যেতে পারে পদ

নিজস্ব প্রতিনিধি: পরিকল্পনা ছিল, মমতাকে হেনস্থা করে তুলে ধরা হবে মোদির বক্তব্য। সবটাই হয়েছে চূড়ান্ত পরিকল্পনামাফিক। কিন্তু পরিকল্পনার মতো সমস্ত কিছু ঘটলেও গেরুয়া শিবির আর মাইলেজ পেল না। বরঞ্চ সব ফুটেজ টেনে নিলেন বাংলার অগ্নিকন্যা। কলকাতা তো বটেই, রাজ্য এমনকি জাতীয়স্তরেও ছিঃ ছিঃ পড়ে গিয়েছে নেতাজির ১২৫তম জন্মবার্ষিকীতে সরকারি অনুষ্ঠানে দেশের প্রধানমন্ত্রীর সামনে দেশেরই এক মহিলা মুখ্যমন্ত্রীকে হেনস্থা ও অপমান করার ঘটনায়। অতিবড় মমতা বিরোধীরাও এসে দাঁড়ালেন তাঁর পাশে। গর্জে উঠলেন তাঁরা বিজেপির বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন ১৬ তারিখ অভিষেকের বাড়িতে পদ্ম ফোটানোর হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর


এ রাজ্যের পাশাপাশি, ভিন্ন রাজ্যের নেতা মায় জাতীয় স্তরের বিজেপি নেতারা নিজের নিজের মতো করে এই ঘটনার ব্যাখা দেওয়ার পাশাপাশি মমতাকে আক্রমণ শানলেন বিজেপিকে বাঁচাতে। কিন্তু কিছুতেই কিছু হল না। গোটা ঘটনায় মুখ পুড়েছে বিজেপির। এখন তাঁদের চেষ্টা শুরু হয়েছে এই ড্যামেজ কন্ট্রোল করার। আর সেখানেই কার্যত বলির পাঁঠা বানানো হতে চলেছে রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ ও দলের কলকাতার জোনের সহ পর্যবেক্ষক শঙ্কুদেব পণ্ডাকে।

আরও পড়ুন  মমতার কড়া বার্তার পরেই অরূপকে সমীপে রাজীব
 
ভিক্টোরিয়া কাণ্ডের জেরে, বিজেপির নেতাদের একাংশ যখন পুরোপুরি ঘটনার সাফাই দিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যপাধ্যায়কেই আক্রমণ শানিয়েছেন তখন কিন্তু দলের অপর অংশ কার্যত একান্ত আলোচনায় স্বীকার করে নিচ্ছেন, ভিক্টোরিয়া কাণ্ডে সামগ্রিক ভাবে দলের ক্ষতিই হয়েছে। এখন রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা যাচ্ছে, ঘটনার দিনই দলের একাধিক নেতা দলের অন্দরে জানিয়ে দিয়েছিলেন, কিছু নেতা-কর্মীর ‘অবিমৃশ্যকারিতা’র জন্য তাঁদের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে। তার পর থেকেই খোঁজখবর শুরু হয় ওই ঘটনা নিয়ে। ময়নাতদন্তে জানা যায়, ‘স্বতঃস্ফূর্ত’ নয়, ওই ঘটনা ছিল পুরোপুরি ‘পরিকল্পিত’। যেটা বিজেপির বাইরে অনান্যরাও আন্দাজ করেছিলেন। কারা ওই পরিকল্পনা করেছিলেন, সে বিষয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে রাজ্য বিজেপির হাতে উঠে আসে দলেরই রাজ্য যুবমোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ ও দলেরই কলকাতা জোনের সহ পর্যবেক্ষক শঙ্কুদেব পণ্ডার নাম। এখন এই ব্যাকফুট থেকে বেড়িয়ে আসতে এই দুইজনেরই পদ কেড়ে নেওয়া হতে পারে বলে রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে।  


আরও পড়ুন  দলবিরোধী কাজের জেরে পদ হারালেন পার্থসারথি চ্যাটার্জী
 
রাজ্য বিজেপির এখন দাবি, ওই ঘটনার পরিকল্পনা করেছিল দলের যুবশাখা। সাংসদ সৌমিত্র এবং শঙ্কুই নাকি একদল কর্মীকে‘ সংগঠিত’ করেছিলেন অনুষ্ঠানে ওই স্লোগান দেওয়ার জন্য। যা নাকি জানাই ছিল না রাজ্য নেতৃত্বের! যদিও এই কথা মানতে নারাজ দলের বেশিরভাগ নেতারাই। তাঁদের দাবি, সবটাই রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের গোচরে ছিল। এখন এই ঘটনা নিয়ে শঙ্কু দাবি করেছেন, ভিক্টোরিয়ার ঘটনা ‘সংগঠিত’ ছিল না। তাঁর বক্তব্য, 'বাংলায় বা ভারতে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি কি নিষিদ্ধ নাকি? কে ধ্বনি দিয়েছিল জানি না। কেউ আলাদা করে যুবমোর্চার কথা বলে থাকলে সেটা অপপ্রচার। এর পিছনে কোনও সাংগঠনিক চিন্তাভাবনা ছিল না। আর ‘জয় শ্রীরাম’ বলা তো কোনও পাপ নয়!' তবে শনিবার ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠানে হাজির থাকা এক বিজেপি নেতার বক্তব্য,‘‘মঞ্চের একেবারে সামনের দিকে যাঁরা বসেছিলেন, তাঁরা ওই ধ্বনি তোলেননি।


আরও পড়ুন বাজেট পেশের দিনেই সংসদ অভিযানের ডাক কৃষকদের

মাঝামাঝি জায়গা থেকেই ‘জয় শ্রীরাম’ বলে চিৎকার শুরু হয়।' সব থেকে বড় কথা মমতাকে এই হেনস্থা করার জন্য জাতীয় রাজনীতিতে যখন বিজেপির মুখ পুড়ছে তখন ওই ঘটনাকে ভাল চোখে দেখছে না রাজ্যের রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ নেতৃত্বও। সঙ্ঘের বক্তব্য, ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেওয়া অন্যায় নয় ঠিকই। কিন্তু সে দিনের অনুষ্ঠানের যে গুরুত্ব এবং গাম্ভীর্য ছিল, সেখানে কোনও ধ্বনি দেওয়াই কাম্য ছিল না। সঙ্ঘের এক কর্তার দাবি, 'যাঁরা এটা করেছেন, তাঁরা আদতে সংগঠনেরই ক্ষতি করছেন। মানুষের কাছে হিন্দুত্ববাদীদের সম্পর্কে ভুল বার্তা যাচ্ছে।' আর সঙ্ঘের এই অবস্থানের জেরেই পদ যেতে বসেছে সৌমিত্র ও শঙ্কুর।

আরও পড়ুন  বিজেপিকে সুপ্রিম ধাক্কা! খারিজ হল ভুয়ো মামলা

Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 006 TBS

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

কেরলে শাড়ি পরে ছবি দিলেন সানি লিওন

কেরলে শাড়ি পরে ছবি দিলেন সানি লিওন

ভগবানের দেশে হাজির থেকে খুবই আনন্দিত সানি লিওনি

ভগবানের দেশে হাজির থেকে খুবই আনন্দিত সানি লিওনি

ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে নিজেকে ভালোই মানিয়ে নিয়েছেন সানি

ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে নিজেকে ভালোই মানিয়ে নিয়েছেন সানি

সানির এই নতুন ছবি উষ্ণতার পারদ বাড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়

সানির এই নতুন ছবি উষ্ণতার পারদ বাড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়

ছুটি কাটাতেই সপরিবারের কেরল গিয়েছেন সানি

ছুটি কাটাতেই সপরিবারের কেরল গিয়েছেন সানি

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-himalaya RC
Comm Ad 2020-Valentine RC