corona 01

৪১-এও 'অটল' মোদির বিজেপি

Share Link:

৪১-এও 'অটল' মোদির বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি: যাত্রাটা শুরু হয়েছিল ১৯৮০ সালে। আজকের দিনে অর্থাৎ ৬ এপ্রিল ৪১ বছর পূর্ণ হল ভারতীয় জনতা পার্টির। শুরুটা করেছিলেন অটলবিহারী বাজপায়ী ও লালকৃষ্ণ আদবানি। দীর্ঘ পথ চলায় এসেছে নানা চড়াই-উৎড়াই। সব বাধা পেরিয়ে বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারের দখল রয়েছে দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে 'অটল' নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপির হাতে। স্থাপনা দিবসে এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে দলের সকল সদস্যদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

১৯৫১ সালে শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির হাত ধরে জন্ম হয় ভারতীয় জন সংঘের, যা অধুনা বিজেপির পূর্বসূরী হিসাবে পরিচিত। পরবর্তীকালে ১৯৮০ সালে জন্ম হয় ভারতীয় জনতা পার্টির। যদিও বিজেপির পূর্বসূরী হিসাবে ধরা হয় রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক (আরএসএস) সংগঠনকে, যার জন্ম হয়েছিল ১৯২৫ সালে পরাধীন ভারতের বুকে। বিজেপির অধিকাংশ শীর্ষ নেতৃত্বই আরএসএস-এর মতাদর্শে অনুপ্রাণিত। হিন্দুত্ববাদী দল হওয়ায় বিজেপির প্রতীক করা হয় পদ্মফুলকে, যা হিন্দুদের ঐতিহ্যকেই বহন করে।

১৯৮০ সালে জন্মের পর ১৯৮৪ সালে প্রথম নির্বাচন লড়ে বিজেপি। সেই নির্বাচনে মাত্র ২টি আসন জেতে তারা। এরপর ১৯৮৯ সালে দ্বিতীয় নির্বাচনেই তারা ৮৯টি আসন জিতে নেয়। এবিষয়ে ভি পি সিং বলেছিলেন, 'হিন্দুত্ববাদী সংগঠন হওয়ায় জনতা দলের বেশকিছু ভোট বিজেপিতে পড়েছিল, তাই তারা এতগুলি আসনে জয় পেয়েছিল।' যদিও সেই নির্বাচনে ১৪৩টি আসনে জয় পেয়েছিল জনতা দল। এরপর ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর বাবরি মসজিদ ভাঙা হলে সেই ঘটনায় ইন্ধন জোগানোর দায় গিয়ে পড়ে বিজেপির ঘাড়ে। নাম জড়ায় বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব এল কে আদবানি, মুরালি মনোহর যোশি এবং উমা ভারতীর।

এরপর ১৯৯৬ সালে লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রথম সরকার গড়লেও মাত্র ১৩ দিনে তা ভেঙে যায়। বিজেপির তরফে প্রথম দেশের প্রধানমন্ত্রী হন দলের প্রতিষ্ঠাতা অটলবিহারী বাজপেয়ী। এরপর ফের ১৯৯৮ সালে সরকার গড়ে বাজপেয়ী সরকার, যার স্থায়িত্ব ছিল ১৩ মাস। এরপর ১৯৯৯ সালে ১৮২টি আসনে জয় নিয়ে ফের দেশে সরকার গঠন করে বিজেপি সরকার। আবারও প্রধানমন্ত্রী পদে বসেন অটলবিহারী বাজপেয়ী। শেষ করেন তাঁর ৫ বছরের মেয়াদকাল। এরপর ২০১৪ সালে ২৮২টি আসনে বড় জয় নিয়ে দেশে সরকার গঠন করে বিজেপি সরকার। প্রধানমন্ত্রীর পদে বসেন নরেন্দ্র মোদি।

পদ্মশিবিরের ৪১ বছরের স্থাপনা দিবসে আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, 'বিজেপি সব সময় এই মতাদর্শেই চলে যে, কোনও ব্যক্তির থেকে বড় হল দল, আর দলের থেকে বড় হল দেশ। এই ধারা ড. শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির হাত ধরে শুরু আজও চলছে বিজেপির অন্দরে।' এছাড়াও মোদি এদিন সংগঠন বৃদ্ধির জন্য লালকৃষ্ণ আদবানি ও মুরালি মনোহর যোশিকে কৃতিত্ব দিয়ে তাঁদের প্রতি তাঁর শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

Brand Ad - Poll 2021-01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

2020 New Ad HDFC 05

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-himalaya RC
Comm Ad 2020-WB Tourism RC