corona 01

রাজীব হত্যাকারীকে প্যারোলে মুক্তি দিল সুপ্রিম কোর্ট

Share Link:

রাজীব হত্যাকারীকে প্যারোলে মুক্তি দিল সুপ্রিম কোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধির অন্যতম হত্যাকারী এজি পেরিরাভালানকে সাত দিনের প্যারোলে মুক্তি দিল সুপ্রিম কোর্ট। শারীরিক পরীক্ষার অবনতি ঘটায় স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য প্যারোলে মুক্তির আর্জি জানিয়ে দেশের শীর্ষ আদালতের দরজায় কড়া নেড়েছিল রাজীব হত্যাকারী পেরিরাভালান। সোমবার তার আর্জির শুনানির পরেই শীর্ষ আদালত এক সপ্তাহের জন্য প্যারোল মঞ্জুর করে।

গত ১২ নভেম্বরই এক মাসের জন্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম হত্যাকারী পেরিরাভালানকে এক মাসের প্যারোলে মুক্তি দিয়েছিল তামিলনাডুর সরকার। আর বাবার অসুস্থতার অজুহাত দিয়ে প্যারোলে মুক্তি পেয়েই জেল থেকে বেরিয়ে গিয়ে ভাগ্নীর বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। আনন্দ-স্ফূর্তিতেই দিন কাটাতে থাকেন। আর বাবার অসুস্থতার দোহাই পেড়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বিতর্কে জড়ায় রাজীব হত্যাকারী। হইচই শুরু হতেই শারীরিক অসুস্থতার দোহাই পেড়ে নিজের চিকি‍ৎসার জন্য প্যারোল চেয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয় পেরিরাভালান।

১৯৯১ সালের ২১ মে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে তামিলনাডুর শ্রীপেরামপুদুরে নৃশংস আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে ছিন্নভিন্ন হয়ে যান প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধি। তামিল জঙ্গি সংগঠন এলটিটিই’র জঙ্গিরা ওই নৃশংস ঘটনা ঘটিয়েছিল। যদিও রাজীব হত্যাকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছিল তামিলনাডুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা। এমনকী মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর হত্যাকারীদের জেল থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে বিশেষ সুপারিশও পাঠিয়েছিল। যদিও তামিলনাডু সরকারের সেই সুপারিশে সাড়া দেয়নি মোদি সরকার। তবুও হাল ছাড়েনি জয়ললতিতার দল এআইএডিএমকে’র শীর্ষ নেতৃত্ব। দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে খুনের মতো জঘন্য ঘটনায় জড়িতদের জেল মুক্তির জন্য ফের রাজ্যের রাজ্যপাল বানোয়ারি লাল পুরোহিতের কাছে নতুন করে সুপারিশ পাঠিয়েছে। কোনও রাজ্য সরকার খুনিদের জেল থেকে ছাড়ানোর জন্য উঠেপড়ে লেগেছে, এমন ঘটনা দেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন।

রাজীব গান্ধিকে নৃশংস খুনের ঘটনায় প্রথমে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়েছিল হত্যাকারীদের। পরে সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। যে সাতজনকে যাবজ্জীবনের সাজা দেওয়া হয়েছিল তারা হল মুরুগান, তার স্ত্রী নলিনী মুরুগান, পেরিরাভালান, সান্তান, রবার্ট পায়াস, জয়কুমার ও রবিচন্দ্রন। তার মধ্যে পেরিরাভালান চেন্নাইয়ের কাছে ফুজাল কেন্দ্রীয় কারাগারে সাজা খাটছে। ২০১৭ সালের অগস্টেও একবার প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল তাকে।

 

Comm Ad 005 TBS

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Momo

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-himalaya RC

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের  সমাপ্তি অনুষ্ঠান

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠান

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

2020 New Ad HDFC 05
Comm Ad 006 TBS