Comm AD 12 Myra

এবার চাঁদেও মোবাইল ফোন!

Share Link:

এবার চাঁদেও মোবাইল ফোন!

নিজস্ব প্রতিনিধি : মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা চাঁদের পৃষ্ঠে ৪জি এলটিই সেলুলার নেটওয়ার্ক স্থাপন করতে চাইছে নভোচারীদের জন্য। কাজটির জন্য ফিনল্যান্ডভিত্তিক মোবাইল প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান নোকিয়াকে নির্বাচন করেছে নাসা। প্রকল্প সম্পন্ন করতে নাসা নোকিয়াকে এক কোটি ৪১ লাখ ডলারের তহবিল দেবে। প্রযুক্তিবিষয়ক ব্লগ এনগ্যাজেট উল্লেখ করেছে, ২০২৪ সাল নাগাদ ফের চাঁদে যেতে চাইছে নাসা। ওই সময় যাতে নভোচারীরা নিজেদের মধ্যে নির্ভরযোগ্য পন্থায় কথা বলতে পারে, তা নিশ্চিত করতে চাইছে সংস্থাটি।

জেমস রয়টার, নাসার সহযোগী প্রশাসক জানিয়েছেন, ওই সেলুলার সেবা চন্দ্র আবাসস্থল ও এর পৃষ্ঠে ঘুরে বেড়ানো নভোচারীদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবে। এর মাধ্যমে এজেন্সি ও মহাকাশযানের মধ্যে যোগাযোগের একটি পথও উন্মোচিত হতে পারে।

রয়টার আরও বলেছেন “কীভাবে স্থল প্রযুক্তিকে নির্ভরযোগ্য, উচ্চ-মূল্যের যোগাযোগের জন্য চাঁদের পৃষ্ঠে বদলে দেওয়া যায় তা নাসা তহবিল কাজে লাগিয়ে খতিয়ে দেখতে পারবে নোকিয়া।” নোকিয়ার চুক্তিটি মূলত নাসার নতুন ‘আর্তেমিস’ তহবিলের অংশ। ওই তহবিলে মোট ৩৭ কোটি ডলার রয়েছে। এর অধিকাংশই ‘স্পেসএক্স’ ও ‘ইউনাইটেড লঞ্চ অ্যালায়েন্স” এর মতো প্রতিষ্ঠানকে দিয়েছে নাসা।

চাঁদের পৃষ্ঠে এলটিই স্থাপনে কাজ করার আগ্রহ অবশ্য আগেই প্রকাশ করেছে নোকিয়া। ২০১৮ সালে জার্মান মহাকাশ সংস্থা পিটিসায়েন্টিস্টস এবং যুক্তরাজ্যের মোবাইল সেবাদাতা ভোডাফোনের সঙ্গে অংশীদারিত্বে কাজ করেছে প্রতিষ্ঠানটি, সে সময় তাদের লক্ষ্য ছিলো অ্যাপোলো ১৭ অবতরণ সাইটে ফেরত যাওয়া। প্রকল্পটির অংশ হিসেবে, নোকিয়া ও ভোডাফোন চন্দ্রভিত্তিক এলটিই নেটওয়ার্ক তৈরির পরিকল্পনা করেছিল। ওই নেটওয়া্র্কের মাধ্যমে পৃথিবীর বুকে ‘হাই ডেফিনেশন ভিডিও’ পাঠানোর পরিকল্পনাও ছিলো তাদের। কিন্তু প্রকল্পটি শেষ পর্যন্ত আর বাস্তবের মুখ দেখেনি।

Pujo2020-T03

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 026 BM

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 026 BM

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

corona 02

Editors Choice

Comm Ad 2020-WB Tourism RC