Comm AD 12 Myra

এই গ্রামের সধবারাও সিঁদুর পরেন না, কেন জানেন?

Share Link:

এই গ্রামের সধবারাও সিঁদুর পরেন না, কেন জানেন?

নিজস্ব প্রতিনিধি: গোল থালার মতো চাঁদ দেখলেই মুখ ঢাকেন সধবা মহিলারা। এমনকি কোনও ব্রত পালনের জন্য উপবাস, পুজোপাঠ কিছুই হয় না এই গ্রামে। স্বামীর দীর্ঘায়ু কামনায় উত্তর ও পশ্চিম ভারতের বিবাহিত মহিলারা যখন ধুমধাম করে করবা চৌথের ব্রত পালন করছেন তখন কার্যত অন্ধকারেই থাকেন এই গ্রামের সধবারাঘরের আলোও নিভিয়ে দেওয়া হয়। এই গ্রাম রয়েছে এ দেশেই।

উত্তরপ্রদেশের মথুরার বিজাউ গ্রামএখানকার মহিলারা স্বামীর মঙ্গলকামনায় পুজো দেন মন্দিরে কিন্তু সিঁদুর পরেন না। সিঁদুরদান বিয়ের সময় একবারই হবেতারপর থেকে আর সিঁদুর পরা যাবে না। যে কোনও উৎসব-পার্বণ থেকেও দূরে থাকেন এই গ্রামের বাসিন্দারা। উৎসবের কোনও জৌলুসই পৌঁছতে পারে না এই গ্রামে।

প্রায় ২০০ বছর ধরে এই রীতি মেনে আসছেন বিজাউ গ্রামের মহিলারা। তবে রীতি কেন, জানতে চাইলে অবশ্য সেভাবে মুখ খুলতে রাজি হন না তাঁরা। যদিও ঠারেঠোরে যা বোঝা গেল, শতাব্দী প্রাচীন কোনও ভয়-সংস্কার এখনও চেপে বসে আছে গ্রামের মানুষের মনে। গ্রামের বৃদ্ধদের দাবি, কোনও এক ব্রাহ্মণ মহিলার অভিশাপের ভয় আজও তাড়া করে গ্রামের মহিলাদের। যেখান থেকে তাঁরা এখনও বেরোতে পারেননি। বংশপরম্পরায় এমনই প্রথা চলে আসছে এই গ্রামে।

স্থানীয় মানুষেরা জানাচ্ছেন, জনশ্রুতি আছে, স্থানীয় একটি গ্রামের এক ব্রাহ্মণ দম্পতি এই গ্রামের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন। দু’জনে ছিলেন গরুর গাড়িতে। আচমকাই ওই দম্পতির রাস্তা আটকান এই বিজাউ গ্রামের কয়েকজন পুরুষ। তাঁদের দাবি ছিল, ব্রাহ্মণ গরুর গাড়ি চুরি করে নিয়ে যাচ্ছেন। এমনকি চুরির অভিযোগে ওই ব্রাহ্মণকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন গ্রামবাসীরা। মারধর করা হয় তাঁর স্ত্রীকেও। শোনা যায়, স্বামীর চিতাতেই নাকি ঝাঁপ দিয়ে ‘সতী’ হয়েছিলেন তাঁর স্ত্রী আর মৃত্যুর আগেই গ্রামের মহিলাদের বিধবা হওয়ার অভিশাপ দিয়ে গিয়েছিলেন। এরপর থেকেই এই গ্রামের মহিলাদের বিশ্বাস জন্মায়, সধবা মহিলারা কোনও রীতি বা রেওয়াজ পালন করলেই তাঁদের স্বামীদের মৃত্যু হবে। সেই কারণেই এই গ্রামে আজ অবধি করবা চৌথ পালন করা হয়নি। মহিলারা বিয়ের পরে সিঁথিতে সিঁদুরও দেন না।

৯৬ বছরের সুনহারি দেবী বললেন, ‘যুগ বদলালেও আমাদের প্রথা বদলাবে না। আমরা আমাদের বিশ্বাস নিয়েই বাঁচব। আমি কোনওদিন সিঁদুর পরিনি, আমার মেয়েদেরও পরতে দেব না।’

 

Comm Ad 2020-WB Tourism body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Egg

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 026 BM

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 006 TBS

Editors Choice

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC