এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

এসি ছাড়াই নিমেষে ঠান্ডা রাখবে ঘর, জেনে নিন কিছু গোপন মন্ত্র

courtesy google

নিজস্ব প্রতিনিধি : গরমে শীতল হাওয়ার ছোঁয়া পেতে কে না চাই।অনেকে আবার এসি লাগান বাড়িতে।তবে এসির যা বিল হয় তাতে মাসের শেষে আরও বেশি ছ্যাঁকা খেতে হয়।অনেকের এসি কেনার ক্ষমতা নেই।সকলের জন্য রইল কিছু অসাধারণ টিপস।যাতে ঘর ঠান্ডা হবে নিমেষে।বিছানায় শুলেই আর আগুন লাগবে না পিঠে।

টেবিল ফ্যান : সাধারণ পাখার বদলে টেবিল ফ্যান ব্যবহার করুন। টেবিল ফ্যানের সামনে এক বাটি বরফ রেখে দিন। এরপর পাখা চালিয়ে নিন। এতে কয়েক মিনিটের মধ্যে ঘর ঠান্ডা হয়ে যাবে। পাশাপাশি ঘর ঠান্ডাও থাকবে অনেকক্ষণ।

দুপুরে জানলা-দরজা বন্ধ : সরাসরি রোদ ঢুকলে ঘর যেন গরমে তেতে থাকে। এক্ষেত্রে মোটা পর্দা‌ ব্যবহার করা যেতে পারে। যাতে রোদের তাপ সরাসরি ঘরে পৌঁছাতে না পারে। রোদ উঠলে,বেলা বাড়লে জানলা-দরজা বন্ধ রাখতে হবে।

অন্ধকার ঘর : সবমসয় ঘরে আলো জ্বালিয়ে রাখবেন না। এতে কারেন্ট পুড়বে অনেক আর ঘরও গরম হয়ে থাকবে। ঘর অন্ধকার থাকলে ঠান্ডা থাকবে।

রোদ প্রবেশের স্থানে ভেজা মাদুর : প্রাচীন মিশরীয়দের মধ্যে সাধারণ একটি নিয়ম ছিল শীতল জলাবদ্ধতা তৈরি করা। তারা জানালা-দরজায় বা রোদ প্রবেশের স্থানে ভেজা চট বা মাদুর রেখে দিত। রোদের তাপ ভেজা মাদুর শুকিয়ে ঘরের ভেতরের তাপমাত্রা বাড়ানোর সুযোগ দেয় না।

রাতে ঘুমোবার আগে জানালা খোলা : ঘুমোবার আগে শীতল বাতাস প্রবেশ করতে দিতে হবে। এতে করে ভেতরের গরম বাতাস বাইরে বের হয়ে ঘরকে শীতল করবে।

গাছ রাখা : বেশ কিছু গাছ আছে যা তাপমাত্রা ঠাণ্ডা রাখতে সক্ষম। যেমন, অ্যালোভেরা, ফার্ন, গোল্ডেন পোথোস ইত্যাদি।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

‘আমরা ঈশ্বরের কাছে যাচ্ছি’, চিঠি লিখে ট্রেন থেকে ঝাঁপ ৩ বান্ধবীর, মরদেহ উদ্ধার

উচ্চ কোলেস্টেরল’কে বাগে আনবে ঘরোয়া এই ৫ পানীয়

জল কতক্ষণ ধরে ফোটানো উচিত! জেনে নিন বিশেষজ্ঞরা কী বলছেন ?

জেনে নিন কেন জ্যৈষ্ঠ মাসের শুক্লা তিথিতে পালিত হয় জামাইষষ্ঠী উৎসব ?

জেনে নিন ফলহারিণী কালীপুজো কবে ? তিথি, সময় ও মাহাত্ম্য

জামের গুণে ফিরবে জেল্লা! এই গরমে শরীর রাখবে হাইড্রেট

Advertisement
এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর