WBLDC Adv 015

বায়ার্নের কাছে আত্মসমর্পণ মেসিহীন বার্সার

Share Link:

বায়ার্নের কাছে আত্মসমর্পণ মেসিহীন বার্সার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রূপকথার গল্পে শোনা যায়, সেনাপতিহীন সৈন্য দলের আত্মসমর্পণ করা কথা। বাস্তবে সেটা দেখা গেল বার্সেলোনা বনাম বায়ার্ন মিউনিখ ম্যাচে। মঙ্গলবার মধ্যরাতে ঘরের মাঠে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে রীতিমতো বশ্যতা শিকার করল বার্সা। ৩-০ ব্যবধানে হারের লজ্জা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হল কাতালান ক্লাবটিকে। না, দলের প্রধান অস্ত্র লিওনেল মেসি নেই। তাই প্রতিপক্ষের রক্ষণে আঘাত হানার মতো পরিকল্পনাও সেইভাবে দেখা গেল না। সবকিছুই যেন ছন্নছাড়া।

এলএম টেনকে ছাড়া বার্সার যে এমন হাল হবে সেটা অনেকে আগে থেকেই বুঝতে পেরেছিলেন। এবার সেটা বাস্তবায়িত হল। জার্মানির দল বায়ার্নের সামনে দাঁড়াতেই পারল না জেরার্ড পিকে, জর্দি আলবারা। গোটা ম্যাচ জুড়েই দেখা গেল জার্মান ক্লাবটির আধিপত্য। রীতিমতো অসহায় হয়ে পড়েন রোনাল্ড কোয়ম্যানের শিষ্যরা। বায়ার্নের গোল লক্ষ্য করে মোট ৫টি শর্ট নেন তারা। কিন্তু একটি শটও টার্গেটও রাখতে পারেনি বার্সার ফুটবলাররা।
 
অন্যদিকে, বার্সেলোনার গোল লক্ষ্য করে মোট ১৭টি শট নিয়েছেন বায়ার্নের ফুটবলাররা। তার মধ্যে তিনটিতে গোল পেয়েছেন তারা। জার্মান জায়ান্টদের হয়ে জোড়া গোল করেছেন রবার্ট লেওয়ানডস্কি। আর একটি গোল করেন থমাস মুলার। আর বার্সার ফুটবলারদের রীতিমতো বোতলবন্দি করে রাখেন নাগেলম্যানের দল। ম্যাচের ৩৪ মিনিটে ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া থমাস মুলারের শট এরিক গার্সিয়ার গায়ে লেগে গোলে ঢুকে যায়। কাতালান গোলরক্ষক টের স্টেগেন কিছু বোঝার আগেই বল জালে জড়িয়ে যায়।

এরপর ৫৬ মিনিটে মুসিয়ালার শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়, আর ফিরতি বলে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রবার্ট লেওয়ানডস্কি। এরপর রক্ষণের দিকে নজর দেয় বায়ার্ন। বার্সার ফুটবলারদের আক্রমণ রুখে দেওয়াই ছিল জার্মান ক্লাবটির একমাত্র লক্ষ্য। তবে নির্ধারিত সময়ের মিনিট পাঁচেক আগে নিজের প্রতিপক্ষের কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দেন পোলিশ তারকা লেওয়ানডস্কি। রেফারি শেষ বাঁশি বাজালে জয়ী হয় বায়ার্ন।
 

WBLDC Adv 005

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

WBLDC Adv 008

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-Valentine RC

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

Voting Poll (Ratio)

2020 New Ad HDFC 05
WBLDC Adv 009