Comm Ad 2020-tantuja-body

এবার কি ফরোয়ার্ডে কৃষ্ণার সঙ্গী হাবাস? জানুন ক্লিক করে বিস্তারিত

Share Link:

এবার কি ফরোয়ার্ডে কৃষ্ণার সঙ্গী হাবাস? জানুন ক্লিক করে বিস্তারিত

নিজস্ব প্রতিনিধি : এসসি ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ের পরে গতবারের রানার্স চেন্নাইন এফসি এ বার এটিকে মোহনবাগানের বিরুদ্ধে। আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের দলকে যেখানে মাত্র দু’দিন প্রস্তুতি নিয়ে এই ম্যাচে নামতে হচ্ছে, সেখানে চেন্নাইন এফসি আরও একদিন কম পাচ্ছে এই ম্যাচের আগে। চেন্নাই ম্যাচের আগে দলের আক্রমণ ভাগ নিয়ে উদ্বিগ্ন হাবাস। কৃষ্ণা, উইলিয়ামস মেজাজে নেই।

চেন্নাইন এফসি যে এটিকে মোহনবাগানকেও যে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলতে পারে, এই নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

গত দুই ম্যাচে এটিকে মোহনবাগান পাঁচ পয়েন্ট খুইয়েছে মুম্বই সিটি এফসি-র কাছে ০-১ হেরে এফসি গোয়ার সঙ্গে ১-১ ড্র করে। তার আগে পাঁচ ম্যাচের মধ্যে তিনটি জয় ও দু’টি ড্র ছিল তাদের। ফের সেই জায়গায় ফিরে আসতে গেলে সবুজ-মেরুন বাহিনীকে বৃহস্পতিবার ফতোরদা স্টেডিয়ামে জয়ে ফিরতেই হবে। না হলে লিগ টেবলের সেরা চার থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঝুঁকির সম্মুখীন হতে হবে তাদের।

তিন নম্বরে থাকা এফসি গোয়া মাত্র দু’পয়েন্ট কম পেয়ে প্রীতম কোটালদের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে। চার নম্বরে হায়দরাবাদ এফসি-র সঙ্গেও তাদের ব্যবধান চার পয়েন্টের। মঙ্গলবার ওডিশা এফসি তাদের ১-১ গোলে রুখে না দিলে হাবাসদের আরও কাছাকাছি চলে যেত হায়দরাবাদ। তাই এখন জয় ছাড়া এগিয়ে চলার কোনও রাস্তাই নেই এটিকে মোহনবাগানের সামনে।

চেন্নাইনের সামনেও এখন এই একটাই রাস্তা খোলা সেরা চারে ঢোকার। গত বার তারা লিগ টেবলের একেবারে নীচ থেকে সেরা চারে উঠে এসেছিল। এ বারও সেই জায়গাটাতেই পৌঁছনোই তাদের লক্ষ্য। কিন্তু একের পর এক ফয়সালাহীন ম্যাচ খেলায় তাদের এগোনোটা ক্রমশ গতিহীন হয়ে পড়ছে। এ পর্যন্ত ১২টি ম্যাচের মধ্যে ছ’টিতেই ড্র করেছে তারা। জয়ের সংখ্যা না বাড়ালে প্লে অফে পৌঁছনোর আশা শেষ হয়ে যাবে।

একটা ব্যাপারে দুই দলই একই জায়গায় দাঁড়িয়ে। প্রচুর সুযোগ তৈরি করতে পারলেও সেগুলো গোলে পরিণত করতে পারছে না দুই দলেরই স্ট্রাইকাররা। গত পাঁচটি ম্যাচে মাত্র চারটি গোল পেয়েছে এটিকে মোহনবাগান। চেন্নাইন এফসি গত পাঁচ ম্যাচে তিন গোল করেছে। দুই দলের প্রথম লেগের ম্যাচও গোলশূন্য হয়। এ দিকে রয় কৃষ্ণার যেমন গোলের খরা চলছে, তেমনই চেন্নাইন এফসি-র এসমায়েল গনসালভেসও নিয়মিত গোল পাচ্ছেন না। রয় কৃষ্ণা গত পাঁচটি ম্যাচে মাত্র দু’টি গোল করেছেন। প্রথম চার ম্যাচে চার গোল করে যে ভাবে প্রত্যাশা বাড়িয়ে দিয়েছিলেন ফিজিয়ান তারকা স্ট্রাইকার। তার পরে তাঁর এই পারফরম্যান্স দল ও সমর্থকদের কাছে বেশ হতাশাজনক। ডেভিড উইলিয়ামসও এ পর্যন্ত ন’বার মাঠে নেমে একটিমাত্র গোল করেছেন।

যদিও গোল নিয়ে তেমন চিন্তিত নন দলের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার এডু গার্সিয়া, যিনি গত ম্যাচে ফ্রি কিক থেকে এক অসাধারণ গোল করে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন। এটিকে মোহনবাগান মিডিয়াকে তিনি বলেন, “আমার কাছে গোলের চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ জয়। ভাল গোল করলে তো আনন্দ হয়ই। কিন্তু ম্যাচ জিতলে সেই গোল আসল মর্যাদা পায়। গত ম্যাচে আমার গোলটার পরে যদি আমরা গোল না খেতাম, তা হলে অনেক বেশি আনন্দ পেতাম”।

বৃহস্পতিবার চেন্নাইন এফসি-র বিরুদ্ধে ম্যাচ নিয়ে এডু বলেন, “আমরা এমন দুটো দলের বিরুদ্ধে পাঁচ পয়েন্ট নষ্ট করেছি, যারা এই লিগের দুই সেরা দল। তবু আমরা দুইয়ে রয়েছি। আগের ম্যাচগুলো নিয়ে আর ভাবতে চাই না, এখন আসন্ন ম্যাচটায় জেতার কথা ভাবছি। চেন্নাইন শক্তিশালী দল। তা সত্ত্বেও আমাদের যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস রয়েছে। মাত্র পাঁচটা গোল খেলেও গতবারের মতো বেশি গোল করতে পারিনি আমরা। এই জায়গাটাতেই বেশি উন্নতি দরকার আমাদের”।

কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস অবশ্য মানতে রাজি নন যে, গত দুই ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট খুইয়ে চাপে পড়ে গিয়েছে তাঁর দল। বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, “পাঁচ পয়েন্ট খোয়া যাওয়ায় কোনও চাপ নেই। ভাল-খারাপ সময় আসেই। গোয়া ও মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ওদের লিগ জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে আমাদের ভাল খেলে যেতে হবে। টেবলের ওপরে থাকতে হবে। সে জন্য আমাদের আক্রমণে আরও উন্নতি করতে হবে”।

আরও বেশি জয় পাওয়ার জন্য আক্রমণ ও রক্ষণের মধ্যে আরও ভারসাম্য আনতে হবে বলে মনে করেন হাবাস। তিনি বলেন, “এটাই ম্যাজিক ওয়ার্ড, ব্যালান্স। আক্রমণ ও রক্ষণের মধ্যে আরও ভারসাম্য আনা দরকার। গোল করতে হবে আমাদের। ৩০ গোল করলাম, অথচ ২৫ গোল খেয়ে বসে রইলাম, এটা মোটেই পছন্দ নয় আমার। মুম্বই ম্যাচের পরে আমাদের গোলের গড় নেমে গিয়েছে। আক্রমণ নিয়েই শুধু চিন্তিত আমি”। চিন্তিত হওয়ারই কথা। কারণ, চলতি হিরো আইএসএলে সবচেয়ে কম গোল করা দলগুলির তালিকায় এটিকে মোহনবাগান দুই নম্বরেই রয়েছে। এক নম্বরে চেন্নাইন এফসি (১০), দুইয়ে হাবাসের দল ও এসসি ইস্টবেঙ্গল (১১) এবং তিন নম্বরে ওডিশা এফসি (১২)।

এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে গত ম্যাচে এক গোলে এগিয়ে গিয়েও ন’মিনিট পরেই গোল হজমে ড্র করে এটিকে মোহনবাগান। তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে স্প্যানিশ কোচ বলেন, “কর্নারে সেকেন্ড বলের ক্ষেত্রে আমরা পিছিয়ে রয়েছি। শেষ তিন ম্যাচে দল তিনটি গোল খেয়েছে, দুটি কর্নার থেকে ও একটি পেনাল্টি থেকে”।

রয় কৃষ্ণা ও ডেভিড উইলিয়ামসের গোলখরা নিয়ে প্রশ্ন করলে এটিকে মোহনবাগানের কোচ কিছুটা বিরক্ত, “রয়ের প্রতি আমার যথেষ্ট আস্থা রয়েছে। গত তিন ম্যাচে ও দু-তিনটে গোলের ভাল সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু এটা তো ফুটবল, ম্যাজিক তো নয়”। মজা করে তিনি বলেন, “রয়, উইলিয়ামস, এডু, মনবীর— এই তো কয়েকজন স্ট্রাইকার রয়েছে আমার দলে। এ বার তা হলে আামাকেও ওদের সঙ্গে মাঠে নামতে হয়”।

চেন্নাইন এফসি-র বিরুদ্ধে আসন্ন ম্যাচ নিয়ে সবুজ মেরুন কোচের বক্তব্য, “এই ম্যাচটার প্রস্তুতির জন্য আমরা মাত্র দু’দিন হাতে পেয়েছি। তবু খেলতে তো হবেই। চেন্নাইন শক্তিশালী দল। ওদের হারাতে গেলে আমাদের সেরা খেলাটা খেলতে হবে। ওরা যদি নিজেদের ছোটখাটো ভুলগুলো শুধরে নিতে পারে, তা হলে ম্যাচটা জিততেও পারে। এ বারের আইএসএলে প্রতিযোগিতা সবচেয়ে কঠিন। যে কোনও দল, যে কোনও ম্যাচে অন্য যে কোনও দলকে হারাতে পারে”।

অন্য দিকে চেন্নাইন এফসি-র হাঙ্গারিয়ান কোচ কসাবা লাজলো তাঁর দলের গোলখরা নিয়ে বলেন, “আমরা যদি ডিফেন্সে নিজেদের গোছাতে যাই, তা হলে আক্রমণে দুর্বল হয়ে পড়ছি। আক্রমণে নজর দিতে গিয়ে রক্ষণে গণ্ডগোল হয়ে যাচ্ছে। ম্যাচগুলোর মাঝে সেই সময়টাও পাচ্ছি না যে ছেলেদের একটু সময় নিয়ে সব কিছু বোঝাব। আমাদের পারফরম্যান্স নিয়ে আমি অখুশি নই। কিন্তু আমরা গোল করতে পারছি না, এই ব্যাপারে আমি অখুশি। আমাদের স্ট্রাইকাররা যথেষ্ট দক্ষ। কিন্তু তাদের ভাগ্য তাদের সাহায্য করছে না। চেষ্টা করছি, এই অল্প সময়ে যাতে ভুলগুলো শোধরানো যায়”।

অন্যদিকে, ‘থার্ড কিট’ কালো জার্সি নিয়ে সবুজ–মেরুন সমর্থকরা ক্ষিপ্ত। যা নিয়ে সিইএসসি হাউজের বাইরেও পোস্টার, ব্যানার নিয়ে হাজির হয়েছিলেন সমর্থকরা। সোশ্যাল মিডিয়াতেও সোচ্চার সমর্থকরা। এটিকে মোহনবাগান কর্নধার সঞ্জীব গোয়েঙ্কা এখন দেশের বাইরে। ‘থার্ড কিট’ নিয়ে অসন্তোষের কথা নিশ্চয়ই তঁার কানেও পৌঁছেছে। কলকাতায় ফিরে হয়তো সমর্থকদের সমস্যার সমাধান করবেন।

Comm Ad 2021 PVDA 02

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Egg

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

corona 02

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 006 TBS
Comm Ad 2021 PVDA 01