এই মুহূর্তে

জল্পনা ছড়িয়ে দলবদলের মুখে মইনুল হক

নিজস্ব প্রতিনিধি: তিনি ৫ বারের বিধায়ক। আর সেটাও কংগ্রেসের। মুর্শিদাবাদ জেলার ফরাক্কা বিধানসভা এলাকা তার খাস তালুক। এর আগেও বেশ কয়েকবার তাঁর শিবিরবদলের খবর ছড়িয়েছিল। কিন্তু তিনি জার্সি বদল করেননি। এবারেও কিন্তু জল্পনা ছড়িয়েছে তাঁর দলবদলের সম্ভাবনার। রাজ্যের শাসক দলের মুখপত্রেই দাবি করা হয়েছে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর তিনি যোগ দিতে চলেছেন সেখানে। আর তাঁর এই যোগদান শুধু যে অধীর চৌধুরীকে ধাক্কা দিতে চলেছে তাই নয়, আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর হতে চলা মুর্শিদাবাদ জেলার দুটি বিধানসভা কেন্দ্রের নির্বাচনেও ভাল প্রভাব বিস্তার করতে চলেছে। তিনি মইনুল হক। তৃণমূলের দাবি, ফারাক্কার ৫ বারের প্রাক্তন বিধায়ক তথা জাতীয় কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক মইনুল আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরেই ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিতে চলেছেন। ওইদিন সামসেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুরে প্রচারে যাবেন অভিষেক।

মইনুল হক দীর্ঘদিনের কংগ্রেস নেতা। ৫ বার তিনি ফরাক্কা থেকে কংগ্রেসের বিধায়ক হিসাবে জয়ী হয়েছেন। এ রাজ্যে ২০১১ সালে পরিবর্তনের পর থেকেই তাঁর কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জল্পনা ছড়িয়েছে একাধিকবার। কিন্তু মইনুলবাবু কংগ্রেস ছেড়ে আসেননি এখনও। একুশের বিধানসভার নির্বাচনেও কংহ্রেস তাঁকে ফরাক্কা থেকেই প্রার্থী করেন। কিন্তু এবার ভাগ্য আর সুপ্রসন্ন থাকেনি। পরাজয়ের মুখ দেখতে হ্যেছে তাঁকে। এরপরেই এখন শোনা যাচ্ছে তিনি চূড়ান্ত ভাবে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে আসতে চলেছেন। তৃণমূলের মুখপাত্র জাগো বাংলাতে এদিন এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় মুর্শিদাবাদের দুই কেন্দ্রের প্রচারে যাবেন। সেদিনই জঙ্গিপুরে অভিষেকের হাত ধরেই ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিতে চলেছেন ফারাক্কার প্রাক্তন কংগ্রেস বিধায়ক। তাঁর সঙ্গে জেলা কংগ্রেসের আরও বেশ কয়েকজন কর্মী, সমর্থক দলবদল করবেন তৃণমূলে আসবেন। মইনুল হকের ঘনিষ্ঠ মহল এই খবরের সত্যতা স্বীকারও করেছেন।

সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে জঙ্গিপুরে তৃণমূলের প্রার্থী জাকির হোসেনের বাড়িতে একটি বৈঠক হয় জঙ্গিপুর জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের। সেই বৈঠকে ছিলেন দলের সাংগঠনিক জেলার তৃণমূল সভাপতি খলিলুর রহমান, সাংসদ আবু তাহের খান-সহ শীর্ষ নেতৃত্ব। সেখানেই মইনুল হককে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়। এ বিষয়ে খলিলুর রহমান বলেছেন, ‘আগামী ২৩ তারিখ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এখানে প্রচারে আসছেন। তাঁর হাত ধরেই তৃণমূলে যোগ দেবেন ফরাক্কার প্রাক্তন কংগ্রেস বিধায়ক মইনুল হক। শুধু তিনি নন, তাঁর সঙ্গে ওইদিন আমাদের দলে যুক্ত হবেন আরও বেশ কয়েকজন কংগ্রেস কর্মী।’ মইনুলের এই যোগদান নিঃসন্দেহে মুর্শিদাবাদ জেলার দুই বিধানসভা কেন্দ্রের নির্বাচনের মুখে ভালো ধাক্কা দেবে। সেই সঙ্গে কিছুটা হলেও ধাক্কা খাবেন অধীর চৌধুরীও। কেননা তাঁর হাতের নাগালে থাকা জেলায় প্রভাবশালী নেতার তালিকা আরও ছোটও হয়ে পড়লো। মইনুল হাতছাড়া হওয়ার অর্থ ফরাক্কা ব্লক ও বিধানসভা কেন্দ্রে কংগ্রেসের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনায় একটা দাঁড়ি পড়ে গেল। জেলায় আরও একা হয়ে পড়লেন অধীর।

Published by:

Koushik Dey Sarkar

Share Link:

More Releted News:

রাজারহাটে পঞ্চায়েত অফিসেই সালিশি সভা,মারধরের অভিযোগ

জনগর্জন সভার সমর্থনে জগদ্দলে তৃণমূল কংগ্রেসের মিছিল

টিটাগড় আলী হায়দার রোডে গুলিবিদ্ধ টোটো চালক

মালদাতে ফের ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনির অভিযোগ

হরিশ্চন্দ্রপুরে রাস্তার শিলান্যাসকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত বিডিও

আসানসোলে বিজেপির প্রার্থী পবন সিংহ, ঘাটালে হিরণ

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর