Comm Ad 005 TBS

৪০ বছরের মধ্যে রেকর্ড বৃষ্টি, মহারাষ্ট্রে ভূমিধস-বৃষ্টিতে মৃত ১৩৬

Share Link:

৪০ বছরের মধ্যে রেকর্ড বৃষ্টি, মহারাষ্ট্রে ভূমিধস-বৃষ্টিতে মৃত ১৩৬

নিজস্ব প্রতিনিধি, মুম্বই: রাজ্যে গত কয়েকদিনের লাগাতার বৃষ্টি ৪০ বছরের রেকর্ড ভেঙে প্রাণঘাতী হয়ে উঠেছে। ইতিমধ্যেই প্রবল বৃষ্টি ও ভূমিধসের কারণে দু’দিনে প্রাণ হারিয়েছেন ১৩৬ জন। নিখোঁজ রয়েছেন বেশ কয়েকজন। ফলে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে প্রশাসন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে শুরু হয়েছে উদ্ধারকাজ। নৌবাহিনী, উপকূল বাহিনীর সাহায্য নেওয়ার পাশাপাশি জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী নামিয়েছে রাজ্য সরকার। ৮০ হাজার মানুষকে ইতিমধ্যেই উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। তার মধ্যেই দুঃসংবাদ শুনিয়েছে মৌসম বিভাগ। আগামী ২৪ ঘন্টায় গোটা মহারাষ্ট্র জুড়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস শুনিয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই লাগাতার ভারী বৃষ্টি হয়ে চলেছে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। বৃষ্টিতে রায়গড়, রত্নাগিরি, কোলাপুর সহ একাধিক জেলা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। উপকূলবর্তী এলাকার ৫০ শতাংশ জলে ডুবে গিয়েছে। জলবন্দি হয়ে পড়েছেন অসংখ্য মানুষ। ঘরবাড়ি ভাসিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি বৃষ্টির জলে তলিয়ে গিয়েছে একাধিক রাস্তাঘাট, দোকানপাট। গত দু’দিনের লাগামছাড়া বৃষ্টিতে প্রাণ হারিয়েছেন ১৩৬ জন। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ৮০ থেকে ৮৫ জন। একটানা বৃষ্টিতে মাটি আলগা হয়ে ধসে পড়েছে একাধিক ঘরবাড়ি।  বৃহস্পতিবারই রায়গড় জেলার তালাইগ্রামে ভয়াবহ ভূমিধসে অন্তত পক্ষে ৪৪ জন প্রাণ হারিয়েছেন।  

রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, দুর্গত এলাকায় এনডিআরএফের ১৫টি দল কাজ করছে। ৮০ হাজারের বেশি মানুষকে ইতিমধ্যেই উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উদ্ধারকার্যে নামানো হয়েছে হেলিকপ্টারও। অসংখ্য মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন। তাঁদের অকারণে বাড়ির বাইরে না বেরনোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ঘরবন্দিদের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। গত ৪০ বছরের মধ্যে এমন বৃষ্টি হয়নি রাজ্যে। ভারী বৃষ্টির কারণে বড়সড় দুর্ঘটনা এড়াতে মুম্বই-গোয়া জাতীয় সড়ক বন্ধ রাখা হয়েছে। গোটা পরিস্থিতির উপরে বিশেষ নজর রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

2020 New Ad HDFC 05

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-LDC Egg

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Egg
Comm Ad 2020-LDC Momo