Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

আগামী ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি বঙ্গ সফরে আসছেন অমিত

Share Link:

আগামী ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি বঙ্গ সফরে আসছেন অমিত

নিজস্ব প্রতিনিধি: অবশেষে চূড়ান্ত হয়ে গেল অমিত শাহের চলতি মাসের বঙ্গ সফরের সময়সূচী। মঙ্গলবার রাতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এই সফরসূচি চূড়ান্ত করেছে বলে দিল্লির নর্থ ব্লক সূত্রে জানা গিয়েছে। এই সফরসূচি অনুযায়ী আগামী ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি রাজ্য সফরে আসছেন শাহ। ৩০ তারিখ সকালে তিনি দিল্লি থেকে আসবেন কলকাতায়। ৩১ তারিখ রাতে ফের তিনি দিল্লি ফিরে যাবেন। মাঝের ৪৮ ঘন্টা কার্যত বাংলায় একাধিক দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দেবেন তিনি। তবে এবারেও শাহের সফর সূচিতে থাকছে না উত্তরবঙ্গের কোনও জেলা। তবে অবশ্যই গুরুত্ব পেতে চলেছে মতুয়া প্রভাবিত বনগাঁ এলাকার কর্মসূচি। মঙ্গলবার রাতে শাহের সফরসূচি চূড়ান্ত হতেই দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব থেকে দলের রাজ্য নেতৃত্বকে কর্মসূচির প্রস্তুতি শুরু করে দিতে নির্দেশ দয়ে দেওয়া হয়েছে।
 
জানা গিয়েছে, ৩০ তারিখ কলকাতায় পা রেখেই শাহ যাবেন ঠাকুরনগরে। সেখানে তিনি একটি জনসভা করবেন। সম্ভবত সেই সভা থেকেই সিএএ নিয়ে তিনি মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষদের প্রয়োজনীয় বার্তা দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। এরপর তিনি যাবেন ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়িতে। ঠাকুরবাড়িতে গিয়ে হরিচাঁদ ও গুরুচাঁদ ঠাকুরের মূর্তিতে প্রণাম জানাবেন তিনি। সেখানে শান্তনু ঠাকুর সহ মতুয়া সম্প্রদায়ের কিছু নেতার সঙ্গে একটি বৈঠক করতে পারেন শাহ। সেই বৈঠক সেরে শাহ এক মতুয়া কৃষকের বাড়িতে করতে পারেন মধ্যাহ্নভোজন। সেই কর্মসূচি সেরে তিনি যোগ দেবেন বনগাঁ শহরে একটি রোড শোতে। সেই রোড শো সেরে তাঁর কলকাতায় ফিরে আসার কথা। পরের দিন ৩১ তারিখ অমিত শাহ হুগলিতে একটি র‍্যালিতে যোগ দিতে পারেন। তবে সেই র‍্যালি শ্রীরামপুর অথবা চন্দননগরে হতে পারে। এরপর থাকবে সিঙ্গুরে এক কৃষকের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজের পালা। সেই কর্মসূচি সেরে শাহ চলে আসবেন হাওড়াতে। ডুমুরজলা স্টেডিয়াম মাঠে থাকবে তাঁর জনসভা। এরপর সেদিন কলকাতায় ফিরে একটি সাংবাদিক সম্মেলন করবেন শাহ। সেটি সেরে রাতের বিমানেই তাঁর দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা।
 
রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, শাহের এই দুইদিনের সফরে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে ঠাকুরনগর ও হাওড়ার সভা। প্রথমটি থেকে শাহ সিএএ নিয়ে কী বার্তা দেন তারওপর যেমন মতুয়া ভোট গেরুয়া শিবিরের দিকে কতখানি আসবে সেটা যেমন নির্ভর করবে তেমনি হাওড়ার জনসভা হবে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের এক স্মরণীয় সভা। মেদিনীপুরের সভাতে যেমন তৃণমূল ছেড়ে যেমন এক ঝাঁক নেতামন্ত্রী বিধায়ক ও সাংসদেরা যোগদান করেছিলেন হাওড়াতেও সেই একই ঘটনা ঘটবে বলে মনে করা হচ্ছে। আর এই হিটলিস্টে অনেকেই ধরে রাখছেন হাওড়ার দুই মন্ত্রী যোগ দিতে পারেন বিজেপিতে। একই সঙ্গে তৃণমূলের বেশ কিছু বিক্ষুব্ধ নেতা ও বিধায়কও এই তালিকায় নাম তুলতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

Comm Ad 018 Kalna

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

2020 New Ad HDFC 05

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের  সমাপ্তি অনুষ্ঠান

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপ্তি অনুষ্ঠান

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

2020 New Ad HDFC 05
Comm Ad 2020-LDC Momo