Comm Ad 018 Kalna

টানা লকডাউনে নারাজ রাজ্য, জোর বাড়ি থেকে কাজে

Share Link:

টানা লকডাউনে নারাজ রাজ্য, জোর বাড়ি থেকে কাজে

নিজস্ব প্রতিনিধি: মহারাষ্ট্রের মত দূরন্ত গতিতে না হলেও বাংলাতেও কিন্তু এবার কোভিডের সংক্রমণ ক্রমশই বেড়ে চলেছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এই উর্ধ্বমুখী হার ভোটপর্ব না মেটা পর্যন্ত যে চট করে থামবে না সেটা বেশ হলফ করেই বলা যায়। তবে দেশের অনান্য রাজ্যে যেভাবে লকডাউন নেমে আসছে তাতে করে আগামী দিনে যে বাংলাতেও লকডাউন হবে না একথা কিন্তু জোর গলায় কেউই বলতে পারছেন না। বরঞ্চ আমজনতার মধ্যে প্রশ্ন ছড়াচ্ছে, ভোট মিটলেই কী বাংলায় লকডাউন শুরু হয়ে যাবে? সেই জিজ্ঞাসাকে আরও উস্কে দিল রাজ্য সরকারের জারি করা ১০ দফা নির্দেশিকা যা গোটা রাজ্য জুড়েই এদিন থেকে বলবৎ হয়েছে।
 
গতকাল রাতে রাজ্য সরকার যে কোভিড তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে বিগত ২৪ ঘন্টায় বাংলায় নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৭১৩জন। মারা গিয়েছেন ৩৪জন। সব থেকে বেশি মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন কলকাতায়, ১ হাজার ৯৯৮জন। এর আগে একদিনে কলকাতায় এত বেশি সংখ্যক মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হননি। উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৩৯জন। মৃতদের মধ্যেই সিংহভাগ এই দুই জেলারই। কলকাতায় মারা গিয়েছেন ১০জন ও উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় মারা গিয়েছেন ৮জন। স্বাভাবিক ভাবেই উদ্বেগ ক্রমশ বাড়ছে স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকদের মধ্যে। উদ্বেগে রয়েছেন চিকিৎসক, বিশেষজ্ঞ, থেকে শুরু করে সচেতন মানুষজনও। এই অবস্থায় রাজ্য সরকার ১০ দফা নির্দেশিকা জারি করেছে গোটা রাজু জুড়েই। সেখানে বিশেষ ভাবে জোর দেওয়া হয়েছে সরকারি ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ হাজিরার ক্ষেত্রে। বেসরকারি ক্ষেত্রেও যতটা সম্ভব বেশি বাড়ি থেকে কাজের ওপর জোর দিতে বলা হয়েছে।
 
রাজ্য সরকার যে ১০ দফা নির্দেশিকা বার করেছে তার মধ্যে রয়েছে, জনসমক্ষে, বাসে-ট্রেনে মাস্কের ব্যবহার, পারস্পরিক দূরত্ববিধি, কোভিড সচেতনতা বিধি মেনে চলা কার্যকরী করার নির্দেশ। সরকারি-বেসরকারি কর্মক্ষেত্র, শিল্পাঞ্চল, বাণিজ্যিক বহুতলে সপ্তাহে অন্তত একবার সম্পূর্ণ জীবাণুনাশকর‌ণের পরামর্শ। প্রতিটি বাজারের দৈনিক ভিত্তিতে স্যানিটাইজেশন। বাজার, সরকারি-বেসরকারি পরিবহণের মত ভিড়বহুল এলাকায় মাস্ক, স্যানিটাইজেশন বাধ্যতামূলক করা। দোকান-বাজার-ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে ভিড়ভাট্টা যতটা সম্ভব এড়িয়ে যাওয়া। সরকারি দফতরে ৫০ শতাংশের বেশি হাজিরা কোন‌ও ভাবেই নয়। বেসরকারি সংস্থাগুলিকে গত বছরের মতো ওয়ার্ক ফর্ম হোম, শিফট চালুর পরামর্শ। সব ধরনের কর্মক্ষেত্রে মাস্ক-সামাজিক দূরত্ববিধি বাধ্যতামূলক। প্রতিটি শপিং মল, মাল্টিপ্লেক্স, থিয়েটার, রেস্তোরাঁর প্রবেশ পথে থার্মাল স্ক্রিনিং, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যভারের ক্ষেত্রে জোর দেওয়া এবং সরকারি নির্দেশিকা মেনে স্টেডিয়াম ও সুইমিং পুলে প্রবেশ বন্ধ করা।
 
তবে নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, এখনই বাংলায় টানা লকডাউন ফেরার কোনও সম্ভাবনা নেই। এই বিষয়ে নবান্নের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, বর্তমান সরকার চাইছে না লকডাউন ফেরাতে। কেননা তাতে অর্থনীতি ধাক্কা খাবে। মানুষের রুটি রুজিতে ধাক্কা দিতে চাইছেন না বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী। তাই জোর দেওয়া হচ্ছে কোভিড বিধি মেনে চলার ওপরে। প্রয়োজনে মিনি কনটেনমেন্ট জোন গড়ে বা সাপ্তাহিক লকডাউন ফিরিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। সেই সঙ্গে টিকাকরণের সংখ্যাও বাড়ানো হবে। সরকারি ও বেসরকারি ক্ষেত্রে কোভিডের চিকিৎসার জন্য শয্যা সংখ্যাও বাড়ানো হবে। কিন্তু টানা লকডাউন চাইছেন না বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী। তবে যদি গদি ওল্টায় ও নতুন সরকার ক্ষমতায় আসে তাহলে তাঁরা বাংলায় টানা লকডাউন ফেলে দিতেই পারে। আবার কেন্দ্র থেকেও পাঁচ রাজ্যের ভোট মিটলে টানা লকডাউন ফেলে দিতেই পারে। তবে অর্থনীতির কথা ভেবে কেউই আর টানা লকডাউন চাইছেন না। তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি, টানা লকডাউন না হলে বাংলায় মৃত্যুর হার মহারাষ্ট্রকেও ছাপিয়ে যেতে পারে। অর্থাৎ ১দিনে রাজ্যে ৩৫০ জনেরও বেশি মানুষ কোভিডে প্রাণ হারাতে পারেন।

corona 01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-Valentine RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

corona 02

পূর্বস্থলী ১ নং ব্লকের দক্ষিণ শ্রীরামপুর বাজার স্যানিটাইজেশনে নামলেন বিধায়ক স্বপন দেবনাথ

পূর্বস্থলী ১ নং ব্লকের দক্ষিণ শ্রীরামপুর বাজার স্যানিটাইজেশনে নামলেন বিধায়ক স্বপন দেবনাথ

নির্বাচনের সময় থেকেই করোনা সচেতনতা প্রচারে জোর দিয়েছেন বিদায়ী মন্ত্রী

নির্বাচনের সময় থেকেই করোনা সচেতনতা প্রচারে জোর দিয়েছেন বিদায়ী মন্ত্রী

করোনা নিয়ে নিজের বিধানসভার একাধিক এলাকায় সচেতনতা প্রচার চালিয়েছেন স্বপন দেবনাথ

করোনা নিয়ে নিজের বিধানসভার একাধিক এলাকায় সচেতনতা প্রচার চালিয়েছেন স্বপন দেবনাথ

কোভিড বিধি মেনেই কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬০ তম জন্মবার্ষিকী পালন করলেন স্বপন দেবনাথ

কোভিড বিধি মেনেই কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬০ তম জন্মবার্ষিকী পালন করলেন স্বপন দেবনাথ

নিজের এলাকাতেই ২৫ শে বৈশাখ উদযাপন করেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী

নিজের এলাকাতেই ২৫ শে বৈশাখ উদযাপন করেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-himalaya RC
Comm Ad 008 Myra