Comm Ad 2020-WB Tourism body

দলকে দিশা দেখাতে ব্যার্থ নাড্ডা! হতাশ গেরুয়ার নেতা-কর্মীরা

Share Link:

দলকে দিশা দেখাতে ব্যার্থ নাড্ডা! হতাশ গেরুয়ার নেতা-কর্মীরা

নিজস্ব প্রতিনিধি: কতই না আশা নিয়ে তাঁর দিকে তাকিয়ে ছিল দলের নেতাকর্মীরা। ভেবেছিল তিনি এসে দলকে দেখাতে পারবেন দিশা। জানিয়ে দেবেন আগামী বিধানসভা নির্বাচনে কীভাবে লড়াই করতে হবে। কিন্তু কোথায় কী, ভাট বকে দিল্লি ফিরে গেলেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষুব্ধ, হতাশ দলেরই নেতাকর্মীরা। ছবিটা গেরুয়া শিবিরের। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির এদিন আগমন ঘটেছিল শিলিগুড়িতে। তার জেরে বিজেপির উত্তরবঙ্গের নেতাকর্মীদের আশা ছিল কিছু গরমাগরম শোনাবেন তাঁদের প্রিয় সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। কিন্তু সেই আশা মনের আশ হয়েই রয়ে গেল, নাড্ডা দিল্লি ফিরেও গেলেন। ভোটে লড়াই করতে দলের নেতাকর্মীদের সামান্যতম ভোকাল টনিকটুকুও দিতে ব্যার্থ হলেন নাড্ডা। 
 
এদিন দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে কী কী জানিয়েছেন নাড্ডা! নাড্ডার প্রথম দাবি, বাংলাকে ভাঙতে চায় বর্তমান সরকার। এই বর্তমান সরকার বলতে তিনি ঠিক কাকে বোঝাতে চেয়েছেন তা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে বৈঠকে অংশ নেওয়া নেতাদের মধ্যেই। যদি সেই সরকার রাজ্যের হয় তাহলে এই অভি্যোগ ডাহা মিথ্যা তা রাজ্যবাসীও জানেন বা বোঝেন। নাড্ডার এই দাবি নিয়ে মাঠে নামলে আখেরে ক্ষতি হবে গেরুয়ারই। আর যদি সেই সর কার কেন্দ্রের হয় তাহলে রাজ্যবাসী বিজেপির থেকে মুখ ঘোরাতে পারে বলে গেরুয়া শিবিরের নেতারাই মনে করছেন। এরপর নাড্ডা জানিয়েছে, ‘আমাদের লক্ষ্য সবকা সাথ সবকা বিকাশ। সবাইকে নিয়ে চলার ক্ষমতা মোদিজিরই আছে। গত ছয় বছরে ভারতে আত্মনির্ভরতা বেড়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব কিছুতেই বলেন হবে না। বাংলায় কৃষি আইনেও বাধা দিচ্ছেন। গরিব কল্যাণে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু কেন্দ্রের প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বাংলার মানুষজন। কৃষকনিধি সম্মান থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বাংলার কৃষকরা। বাংলায় যা হয়নি, তার একটি তালিকা তৈরি করুন। মোদি সরকার সব করে দেবে।বাংলায় আয়ুষ্মান ভারত কার্যকর হয়নি। ক্ষমতায় এলে একমাসের মধ্যে কার্যকর করে দেব। কোরোনার প্রভাব কমলেই সিএএ কার্যকর হবে।’
 
কিন্তু এত কিছুর মধ্যে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দল উত্তরবঙ্গে কোন নীতি নিয়ে এগোবে সে সম্পর্কে কিছু জানাননি নাড্ডা। অথচ উত্তরবঙ্গের নেতারা এই বিষয়টি নিয়েই সব থেকে বেশি আগ্রহী ছিলেন। কার্যত এ বিষয়টি নাড্ডা এদিন সুকৌশলেই এড়িয়ে গিয়েছেন। ফলে লোকসবা নির্বাচনে সাফল্য পাওয়ার পরে কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে ধাক্কা খাওয়া বিজেপি নেতারা ভেবেছিলেন দলের রণকৌশল কিছুটা হলেও ঠিক করে দেবেন নাড্ডা। কিন্তু তা তিনি করেননি। একই সঙ্গে চা-বাগানের শ্রমিকদের নিয়েও কোনও কথা বলেননি। সব মিলিয়ে নাড্ডার শিলিগুড়ি সফরে রাজ্য বিজেপির প্রাপ্তি শূণ্য।

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Momo

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

corona 02

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 006 TBS

Editors Choice

Comm Ad 2020-himalaya RC