Comm Ad 005 TBS

কেষ্ট’র ডাকে প্রশাসনিক বৈঠকে অনুপ! চিন্তায় বিজেপি

Share Link:

কেষ্ট’র ডাকে প্রশাসনিক বৈঠকে অনুপ! চিন্তায় বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি: হাবভাব বড় সুবিধের নয়। দল তাঁকে বিধায়ক বানালো, দলের যুব মোর্চার জাতীয় সহ-সভাপতি বানালো, আর তিনি কিনা বিরোধী দলের জেলা সভাপতর ডাকে সাড়া দিয়ে প্রশাসনিক বৈঠকে যোগ দিতে চলে গেলেন! আর সেটাও দল কে না জানিয়ে! স্বাভাবিক ভাবেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে বঙ্গ বিজেপিতে। দলে উচ্চ পদ দেওয়ার পরেও কেন তৃণমূল নৈকট্য, সেই প্রশ্নের মুখে এখন পড়ে গিয়েছেন বীরভূমের দুবরাজপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি বিধায়ক অনুপ সাহা। কেননা দলকে না জানিয়েই তিনি হাজির হয়েছিলেন জেলা প্রশাসনিক বৈঠকে। আর শোনায আচ্ছে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের ডাকেই নাকি সাড়া দিয়ে সেই বৈঠকে যোগ দিয়েছেন অনুপ। আর এখানেই চিন্তা বাড়ছে বিজেপির। বৈঠকে যোগ দেওয়া নিছকই সৌজন্য নাকি তলে তলে দলবদলের গপ্পো চলছে সেটাই এখন প্রশ্ন আকারে সামনে এসেছে।
 
বীরভূম মানেই তা কেষ্টগড়। আর কেষ্ট মানে অনুব্রত মণ্ডল। কার্যত গোটা জেলা জুড়েই রয়েছে তাঁর দাপট। বাঘেগরুতে সেই দাপটের সামনে এক ঘাটেই জল খায় বলা চলে। সেই বীরভূমে বার বার অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে একচ্ছত্র আধিপত্য চালানো। এমনকি প্রশাসনিক কোনও বৈঠকেই ডাকা হয়না বিরোধীদের। এবার কিন্তু জেলার উন্নয়নমূলক বৈঠকে জেলা প্রশাসনের তরফে ডাক পেয়েছিলেন অনুপ সাহা। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বীরভূমের ১১টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ১০টিতেই তৃণমূল ঝড় বয়ে গেলেও দুবরাজপুরে জয়ী হয়েছে বিজেপি। সেখানেই জয়ী হয়ে অনুপ জেলা প্রশাসনের তরফে বৈঠকে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন। শোনা যাচ্ছে, জেলা প্রশাসনের তরফে সেই আমন্ত্রণ এলেও অনুব্রতবাবু নাকি অনুপকে বৈঠকে যোগ দিতে বলেছিলেন। সেই কথার ওপর আর কথা বাড়াননি বিজেপি বিধায়ক। তাই গতকাল রাজ্য বিধানসভায় যখন বিজেপি ৮টি কমিটির চেয়ারম্যান পদ ত্যাগ করছিল তখন অনুপ ছিল জেলা প্রশাসনের সঙ্গে উন্নয়নের বৈঠকে।
 
তবে গপ্পো এখানেই শেষ নয়। অনুপ যে পাল্টি খেতে পারেন এমন সম্ভাবনা আগেই শোনা গিয়েছিল। কার্যত সেই সম্ভাবনা ঠেকাতেই বিজেপি তাঁকে যুবমোর্চার সর্বভারতীয় সহ সভাপতি পদে বসিয়েছে সম্প্রতি। কিন্তু জেলা বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, ওই প্রশাসনিক বৈঠকে যোগ দেওয়ার বিষয়ে অনুপ সাহা তাঁদের কিছুই জানায়নি। রাজ্য বিজেপির অন্দরে কান পাতলে সেখানেও ওই একই কথা শোনা যাচ্ছে। আর এখানেই প্রশ্ন উঠছে বৈঠকে যোগদান কী নিছকই সৌজন্য নাকি এর পিছনে চলছে অন্য কোনও হিসাব! শুক্রবার সিউড়ির জেলাশাসকের দফতরে প্রশাসনিক উন্নয়নমূলক বৈঠকে বিজেপি বিধায়ক তাঁর এলাকার একাধিক সুবিধা অসুবিধার কথা তুলে ধরেন। শোনা যাচ্ছে, তাঁর সে সব কথা জেলা প্রশাসন বেশ গুরুত্ব দিয়েই শুনেছে। এই বিষয়ে অনুপ নিজেই জানিয়েছেন, ‘বিভিন্ন দফতর ধরে ধরে এই বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। সেখানে অনেক অসঙ্গতিও দেখা গিয়েছে। ১০০ দিনের কাজ, শৌচালয় তৈরির মতো প্রকল্পগুলি এখনও মানুষের কাছে পৌঁছয়নি। আমি বলেছি প্রশাসন চেষ্টা করলে তার সুবিধা মানুষ পেতে পারেন। সকলে যেন কাজ পায় সেদিকটাও দেখতে বলেছি। কাগজে কলমে ১০০ শতাংশ কাজ দেখালেও ময়দানে গিয়ে তার প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে না। সেগুলি বলেছি। আমার কথা বলতে পেরেছি এবং ওরা তা শুনেওছেন।’ মজার কথা বৈঠক শেষে বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় বলেছেন, ‘সবথেকে বেশি ওনাকেই কথা বলার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। তিনি বিভিন্ন রকম উন্নয়নমূলক কাজের জন্য প্রস্তাব দিয়েছেন।’ আর এসবের জেরেই সন্দেহের চোরা স্রোত বয়ে চলেছে বিজেপির অন্দরে।

Comm Ad 2020-Valentine body

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

corona 02

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-LDC Egg

কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণ দিবসে শ্রদ্ধা 
জানালেন ফিরহাদ হাকিম

কেওড়াতলা মহাশ্মশানে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণ দিবসে শ্রদ্ধা জানালেন ফিরহাদ হাকিম

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আবক্ষ মূর্তীতে মাল্যদান করে বিশেষ শ্রদ্ধা জানালেন পুরপ্রশাসক ও রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আবক্ষ মূর্তীতে মাল্যদান করে বিশেষ শ্রদ্ধা জানালেন পুরপ্রশাসক ও রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

কোভিড হাসপাতালে পরিণত হল ইসলামিয়া হাসপাতাল, উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

কোভিড হাসপাতালে পরিণত হল ইসলামিয়া হাসপাতাল, উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

জামিনে মুক্ত হয়েই শুক্রবার রাত থেকেই কাজে নামেন ববি হাকিম, আজ এক হাসপাতালের উদ্বোধনে হাজির রাজ্যের মন্ত্রী ও পুরপ্রশাসক

জামিনে মুক্ত হয়েই শুক্রবার রাত থেকেই কাজে নামেন ববি হাকিম, আজ এক হাসপাতালের উদ্বোধনে হাজির রাজ্যের মন্ত্রী ও পুরপ্রশাসক

করোনার সময় এই অতিরিক্ত করোনা হাসপাতাল সাধারণ মানুষের উপকারে লাগবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম

করোনার সময় এই অতিরিক্ত করোনা হাসপাতাল সাধারণ মানুষের উপকারে লাগবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 006 TBS
Comm Ad 2020-himalaya RC