Comm Ad 2020-LDC epic

বকেয়া না মিটলে দেব না বাস! কমিশনকে মালিকদের চ্যালেঞ্জ

Share Link:

বকেয়া না মিটলে দেব না বাস! কমিশনকে মালিকদের চ্যালেঞ্জ

নিজস্ব প্রতিনিধি: শুধু নয় বাস ধর্মঘট, এবার নির্বাচন কমিশনকেও কার্যত চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বসে রইলেন বাস মালিকেরা। আগেকার ভোটে বাস নেওয়ার জন্য প্রাপ্য বকেয়া টাকা না মেটালে এবারে ভোটের কাজে বাস দেওয়া হবে না। এই মর্মে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিল বাস-মিনিবাস মালিকদের সংগঠন। সঙ্গে দাবি বাড়াতে হবে বাসের চালক ও খালাসীর পারিশ্রমিকও। আগামী ২৮ তারিখ থেকেই রাজ্যে টানা ৭২ ঘন্টা বা ৩ দিনের বাস ধর্মঘতের ডাক দিয়েছেন রাজ্যের ৫টি বাস মালিকদের সংগঠন। তা নিয়ে রাজ্য সরকার যেমন চিন্তিত তেমনি ভোগান্তির আশঙ্কা করছেন আমজনতাও। এরই পাশাপাশি এই ধর্মঘট ঠেকাতে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের করা হয়েছে জনস্বার্থ মামলা। আগামীকাল অর্থাৎ বুধবারই সেই মামলার শুনানি হওয়ার কথা। ঠিক তার আগে এদিন নির্বাচন কমিশনকে যে ভাবে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বাস মালিকদের সংগঠন চিঠি দিয়েছে তা দেখে মনে করা হচ্ছে বড় কোনও রাজনৈতিক শিবিরের মদতেই বাস মালিকেরা এতটা বেপরোয়া হয়ে উঠতে পেরেছেন। স্বাভাবিক ভাবেই এখন বাস মালিকদের এই সব অবস্থানের পিছেন গেরুয়া শিবিরের ভূমিকা আতশ কাঁচের নীচে চলে এসেছে।
 
ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস অ্যান্ড মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের দাবি, গত লোকসভা নির্বাচনের বকেয়া টাকা মেটাতে হবে। তারপরই তাঁরা আগামী বিধানসভা নির্বাচনের জন্য বাস, মিনিবাস দেবেন। যদি বল প্রয়োগ করা হয়, সে ক্ষেত্রে বড়সড় আন্দোলনেরও হুমকি দিয়েছেন সংগঠনের সদস্যরা। সংগঠনের দাবি, ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে তাঁদের বাস ব্যবহার করা হয়েছিল। অথচ তার জন্য কোনও টাকা মেটানো হয়নি। এখনও ৫ কোটি টাকা বকেয়া পড়ে রয়েছে। তাই এখন তাদের হুঁশিয়ারি, ওই ৫ কোটি টাকা না মেটালে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তাঁরা কোনও বাস, মিনিবাস নির্বাচন কমিশনের হাতে তুলে দেবেন না। বেঙ্গল বাস-মিনিবাস ইউনিয়নের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনকে এই মর্মেই চিঠি দিয়ে কার্যত কড়া হুমকি দেওয়া হয়েছে। রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে চিঠি দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।  
 
এ প্রসঙ্গে বাস ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপ নারায়ণ বসু বলেন, 'ভোটের সময় নির্বাচন কমিশান যে বাস ভাড়া নিয়েছিল তার জন্য এখনও সারা রাজ্যে ৫ কোটি টাকা বকেয়া পড়ে রয়েছে। কোনও জেলায় ৫০ শতাংশ টাকা পেয়েছে, কোনও জেলায় ৭০ শতাংশ টাকা পেয়েছে। আবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বাস মালিকেরা একটি টাকাও পায়নি। এই বকেয়া না মেটালে একুশের ভোটে আমরা কোনও বাস দেব না।' নির্বাচনের সময় প্রায় ৮০ শতাংশ ভোট কর্মীর যাতায়াতের অন্যতম মাধ্যম এই বাস। ভোট কেন্দ্রে কর্মীদের যাওয়া-আসার জন্য তা বরাদ্দ থাকে। সেই বাসই যদি না মেলে তাহলে বিপাকে পড়তে হবে ভোট কর্মীদের। বিঘ্নিত হবে ভোট পদ্ধতি। বাস ইউনিয়েনের পক্ষ থেকে কার্যত হুঁশিয়ারি, নির্বাচন কমিশন আইনের জোরে বাস নিয়ে যেতেই পারে, কিন্তু কোনও চালক বা খালাসি কাজে যোগ দেবেন না। একইসঙ্গে ইউনিয়নের দাবি, বাড়াতে হবে বাসের চালক ও খালাসীর পারিশ্রমিকও। আগে খালাসি ও চালককে প্রতিদিন ১৭০ টাকা দেওয়া হতো। এবার তা ২৫০ টাকা করার দাবি তোলা হয়েছে। গাড়িভাড়া বাবদ প্রতিদিন ১৯১০ টাকার বদলে এবার ২৫০০ টাকার দাবিও করেছে তাঁরা। এই দাবি মানা না হলে কেউই কাজে যোগ দেবেন না বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সদস্যরা।

Comm Ad 2020-LDC epic

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-himalaya RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-himalaya RC
Comm Ad 2020-LDC Momo