Comm Ad 2020-Valentine body

বাংলাকে বঞ্চনার নয়া নজির গড়ল মোদির সরকার! নভেম্বরে মিলবে না রেশন

Share Link:

বাংলাকে বঞ্চনার নয়া নজির গড়ল মোদির সরকার! নভেম্বরে মিলবে না রেশন

নিজস্ব প্রতিনিধি: ষষ্ঠীর দুপুরে ধুতি পাঞ্জাবি পড়ে ফেকু বাঙালির সাজে হাজির হয়েছিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী। ঠিক ততটাই ফেকু বোলে বাঙালিকে নিজের ভাষণ শুনিয়েছিলেন তিনি। তাতে ছিল না বাংলার ক্ষততে প্রলেপ দেওয়ার কোনও চেষ্টা। সেদিনের সেই সব বুলি যে শুধুই ভোটমুখী বাংলার আমজনতার ভোট প্রাপ্তির জন্যই ছিল সেটা আরও একবার দেখিয়ে দিল নরেন্দ্র মোদির সরকার। তাঁরা জানিয়ে দিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনায় বাংলাকে আগামী নভেম্বর মাসের রেশন দেবে না কেন্দ্র। সম্প্রতি চিঠি দিয়েই তা রাজ্যকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। আরও মজার কথা, এই অবস্থার জন্য কেন্দ্রের তরফে কার্যত দোষ চাপানো হয়েছে রাজ্যের ওপরেই। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনার জেরেই এখন এটা খুব পরিস্কার যে বিজেপি আর তাঁদের পরিচালিত এ দেশের সরকার কতটা বাঙালি ও বাংলা বিরোধী। প্রধানমন্ত্রীর ধুতি-পাঞ্জাবির সাজ আর আধো আধো বাংলা বুলি যে নেহাতই ভোট কুড়ানোর নাটক সে আর আলাদা করে বলে দেওয়ার অপেক্ষা রাখে না।
 
মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানোর নামে কার্যত চূড়ান্ত অপরিকল্পিত ভাবে দেশজুড়ে লকডাউন জারি করে দিয়েছিল কেন্দ্র সরকার। তার জেরে সব থেকে দুর্বাস্থর মধ্যে পড়েছিল দেশের পরিযায়ী শ্রমিকেরা। একই সঙ্গে সমাজের নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত মানুষেরাও দুরাবস্থার মুখে পড়ে যান। তার জেরেই একরকম বাধ্য হয়েই কেন্দ্র সরকার নিজের মুখ বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার মাধ্যমে বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী দেওয়ার কথা ঘোষণা করে। আগামী নভেম্বর মাস পর্যন্ত এই সুবিধা পাবেন দেশবাসী। কিন্তু এখন কেন্দ্র সরকার বাংলার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে যে, অন্ন বিতরণ পোর্টালে বাংলার সরকার কোনও তথ্য দেয়নি। তাই নভেম্বর পর্যন্ত দেশের অনান্য রাজ্যগুলি রেশন পেলেও বাঙ্গার মানুষ নভেম্বর মাসে তা পাবেন না। নভেম্বর মাসের রেশন পশ্চিমবঙ্গকে দেওয়া হবে না।
 
এই মর্মে কেন্দ্র ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছে রাজ্যের খাদ্যদফতরের পাশাপাশি মুখ্যসচিবকেও। সেই চিঠিতে বলা হয়েছে, ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অন্ন বিতরণ পোর্টালে তথ্য না দেওয়ায় নভেম্বর মাসের রেশন পাবে না রাজ্য। যদিও রাজ্যের খাদ্য দফতরের আধিকারিকেরা জানিয়ে দিয়েছেন, কেন্দ্র কোনওদিনই বাংলার জন্য ভালো মানের খাদ্যশস্য পাঠায়নি। পোকা ধরা ছোলা, ছোট খারাপ মানের গম, কালচে চাল পাঠানো হয় এই রাজ্যের রেশন গ্রাহকদের জন্য। কেন্দ্রকে এই নিয়ে বার বার বলা সত্ত্বেও খারাপ মানের সামগ্রী পাঠানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ খাদ্য যোজনার গ্রাহকদের জন্য। তবে রাজ্য সরকার যেহেতু এই রাজ্যে সবাইকে আগামী জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে তাই কেন্দ্র রেশনের সামগ্রী না পাঠালেও বাংলার মানুষেরা রেশন থেকে বঞ্চিত হবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার মানুষকে তাঁদের খাদ্যসামগ্রূ ঠিকই দিয়ে যাবে তা সে যত অসুবিধাই হোক না কেন।

Comm AD 12 Myra

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

corona 02

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

2020 New Ad HDFC 05

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 008 Myra
Comm Ad 2020-LDC Momo