Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

বাংলায় অপরিবর্তিত করোনার পরিস্থিতি! আসছে কেন্দ্রের প্রতিনিধিদল

Share Link:

বাংলায় অপরিবর্তিত করোনার পরিস্থিতি! আসছে কেন্দ্রের প্রতিনিধিদল

নিজস্ব প্রতিনিধি: ২৪ ঘন্টার মধ্যে বড়সড় কোন পরিবর্তন ঘটেনি বাংলায়। কার্যত একই রকম রয়েছে করোনার পরিস্থিতি। মাথাব্যাথার কারণ হয়ে রয়েও গিয়েছে কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনার অবস্থা। তবে রাজ্যের এই পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আসছে কেন্দ্রের এক উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল। উৎসবের আবহেই তাঁদের আগমন ঘটছে বাংলায়। আবার উৎসবের মধ্যেই যে রাজ্যে করোনার সংক্রমণ দিনপ্রতি ৪ হাজারের বেশি হয়ে যেতে পারে সেই ইঙ্গিত মেলার পর থেকেই এবার কোমর বেঁধে নেমে পড়ছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। আগামী ৬ মাস করোনার সঙ্গে যুদ্ধ চালাতে হলে যা যা দরকার তার সবই হাতের নাগালে রাখছেন তাঁরা। যদিও রাজ্যের চিকিৎসকদের একটা বড় অংশই মনে করছেন এবারে উৎসব মিটলেই করোনার সুনামি বইবে রাজ্য জুড়ে যা ঠেকাবার মতো পরিকাঠামো বা সামর্থ্য কোনটাই রাজ্য সরকারের নেই।
 
শুক্র সন্ধ্যায় রাজ্য সরকার যে কোভিড তথ্য পেশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৭৭১জন, সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩ হাজার ১৯৪জন, মারা গিয়েছেন ৬১জন। রাজ্যে সক্রিয় কোভিড কেসের সংখ্যা ৩২ হাজার ৫০০টি। রাজ্যে মোট কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ১৩ হাজার ১৮৮। মোট সুস্থতার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লক্ষ ৭৪ হাজার ৭৫৭। সুস্থতার হার দাঁড়িয়েছে ৮৭.৭৩ শতাংশ। মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৯৩১। গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে কোভিড টেস্ট করিয়েছেন ৪৩ হাজার ২২৭জন। মোট টেস্টের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৯ লক্ষ ৪ হাজার ৩২২। পজিটিভ কেসের হার দাঁড়িয়েছে ৮.০২ শতাংশ।
 
জেলাওয়াড়ি ক্ষেত্রেও খুব একটা কিছু পরিবর্তন ঘটেনি। সক্রিয় কোভিড কেসের দিকে থেকে এদিনও কলকাতায় যেমন ৭ হাজারের বেশি কেস রয়েছে তেমনি উত্তর ২৪ পরগনার ক্ষেত্রেও তা ৭ হাজার ছুঁই ছুঁই করছে। মৃতের সংখ্যার বিচারেও কলকাতা সব থেকে বেশি এগিয়ে এখনও। শহরে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২ হাজার ছুঁই ছুঁই করছে। কিছু পিছিয়ে উত্তর ২৪ পরগনার মোট মৃত্যুর সংখ্যা দেড় হাজারের একটু বেশি। রাজ্যের বাকি জেলাগুলির মধ্যে কেউই এখনও হাজারের ঘর ছাড়াতে পারেনি মৃত্যুর ক্ষেত্রে। তবে সক্রিয় কোভিড কেস থেকে যাওয়ার ক্ষেত্রে দক্ষিন ২৪ পরগনা ২ হাজারের বেশি, হাওড়া দেড় হাজারের বেশি এবং হুগলি, দুই মেদিনীপুর ও নদিয়াতে এক থেকে দেড় হাজারের মধ্যে সক্রিয় কোভিড কেস থেকেই যাচ্ছে। ফলে উৎসব মরশুমে এই হার যে বাড়বে সে নিয়ে সন্দেহ নেই। এরই মধ্যে শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক ট্যুইট করে জানিয়েছে দেশের ৫টি রাজ্যে করোনাজনিত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আসছে উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল। তাঁরা বাংলা ছাড়াও কেরল, কর্ণাটক, রাজস্থান ও ছত্তিশগড় যাবেন করোনাজনিত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে।

corona 01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 026 BM

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Egg

Editors Choice

Comm Ad 006 TBS