Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

নিছক সৌজন্য সাক্ষাৎ নাকি লুকিয়ে রাজনীতির হিসেব! মুখোমুখি অভিষেক-অভিজিৎ

Share Link:

নিছক সৌজন্য সাক্ষাৎ নাকি লুকিয়ে রাজনীতির হিসেব! মুখোমুখি অভিষেক-অভিজিৎ

নিজস্ব প্রতিনিধি: বুধবার মুর্শিদাবাদ জেলা সফরে গিয়েছিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারন সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সফরেই তিনি হুট করে চলে যান জঙ্গিপুরে দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে। দেখা করেন তাঁর ছেলে তথা প্রাক্তন সাংসদ অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে। সেই সাক্ষাৎ ঘিরেই এখন চর্চা শুরু হয়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে। যদিও দুই তরফেই এই ঘটনাকে নেহাতই সৌজন্য সাক্ষাৎ বলেই চিহ্নিত করেছেন। তবে তাঁরা যাই বলুন, রাজ্য রাজনীতিতে এখন অনেকেই মনে করছেন এই সাক্ষাতের পিছনে রয়েছে রাজনীতির অঙ্ক। যার সঙ্গে জড়িয়ে আছে মোদি-মমতার লড়াই ও সর্বভারতীয় রাজনীতিও।
 
প্রণববাবুর জঙ্গিপুরের বাড়িতে অভিষেকের যাওয়া নিয়ে অভিজিৎ পরে সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘আবু তাহের বিকেলে ফোন করে বলল সকলে একসঙ্গে আছি। দাদা, তোমার বাড়িতে চা খেতে যাব। বললাম চলে এস। ওঁদের প্রত্যেকের সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত ভাল সম্পর্ক। এঁরা কেউই বাবার শ্রাদ্ধের সময় যেতে পারেননি। আজ আমার বাড়িতে এসে বাবা, মায়ের ছবিতে শ্রদ্ধা জানান। সামান্য গল্পগুজব হয়। চা খেয়ে চলে যান। এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। ব্যক্তিগত সম্পর্কে রাজনীতির রঙ দেবেন না দয়া করে।’ তৃমমূলের তরফেও একে নেহাতই সৌজন্য সাক্ষাৎ বলেই দাবি করা হয়েছে। এমনকি অভিজিৎ নিজে জানিয়েছেন এই ঘটনার সঙ্গে দলবদলের কোনও সম্ভাবনা নেই। কিন্তু এই দাবির পরেও রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনার ক্ষেত্রে ভাটা পড়েনি। বরঞ্চ অনেকেই মনে করছেন এই ঘটনার পিছনে রাজনীতির সূক্ষ্ম হিসাব রয়েছে যা খালি চোখে ধরা নাও পড়তে পারে।  
 
একুশের বিধানসভা নির্বাচন কার্যত দেখিয়ে দিয়েছে, বাংলায় ঠাঁইহারা হয়েছে কংগ্রেস। রাজ্যে এখন তাঁদের অস্তিত্ব নেই বললেই চলে। আগামী দিনে যে পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটবে এমন আশাও চট করে কেউ করছেন না। দেশের জাতীয় স্তরের রাজনীতি হোক কী ভিন্ন রাজ্যের রাজনীতি, কংগ্রেসকে সর্বত্রই এখন লড়াই করতে হচ্ছে তার অস্তিত্বের জন্য। বাংলার মতোই অনেক রাজ্যে কংগ্রেস কার্যত নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে। এই অবস্থায় কংগ্রেসের জাতীয় স্তরের অনেক নেতাই মনে করছেন দেশের রাজনীতি ক্রমশ মোদি বনাম মমতার লড়াই হয়ে উঠেছে এবং ২০২৪ সালের নির্বাচন সেই অভিমুখেই হতে চলেছে। সেখানে কংগ্রেস বা গান্ধি পরিবারের ভূমিকা নেহাতই গৌণ হয়ে পড়তে চলেছে। কংগ্রেস ২০২৪ সালের লড়াইয়ে ১০জন সাংসদও পাবে কিনা সন্দেহ। এই অবস্থায় কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব মমতা ও তৃণমূল নিয়ে কিছুটা নরম অবস্থান নিলেও মমতাকে তাঁরা মোদির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রধান মুখ হিসাবে এখনও মেনে নেয়নি। তবে ঘটনা এটাই যে কংগ্রেসের বিক্ষুব্ধ নেতারা এখন চাইছেন মমতা নিজে এগিয়ে এসে ইউপিএ’র হাল ধরুন। তিনিই এই জোটের চেয়ারপার্সন হোন যা এখন সোনিয়া গান্ধি আছেন। কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব অবশ্য এই বিষয়ে উচ্চবাচ্য করেনি।
 
যদিও তৃণমূলের তরফে বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস ও বিজেপির নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। দুই শিবিরেরই অনেক নেতানেত্রী আছেন যারা তৃণমূলে আসতে চাইছেন। তৃণমূলের টিকিটে ২০২৪ সালের নির্বাচনে লড়াই করতে চাইছেন তাঁরা। কারন তাঁদের কারোর কাছেই বিকল্প কোনও পথ নেই। নিজেদের রাজনীতিতে টিকিয়ে রাখতে হলে তাঁদের হয় মোদি নাহয় মমতার সঙ্গে হাত মেলাতে হবে। ঘটনাচক্রে বেশিরভাগ নেতানেত্রী এখন মমতার হাত ধরাই বেশি কাম্য মনে করছেন। বাংলাতেও তৃণমূলের তরফে কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা শুরু হয়ে গিয়েছে। কিছুদিন আগেই রাজ্যের প্রাক্তন বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানকে তাঁর জন্মদিনে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল প্রণববাবুর বাড়িতে গেলেন অভিষেক। সবটাই তাই একসূত্রে গাঁথা বলেই অভিজ্ঞ বিশারদরা মনে করছেন। মমতা বা তৃণমূলের তরফে চেষ্টা করা হচ্ছে প্রবীণ, অভিজ্ঞ, বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস ও বিজেপি নেতাদের এক ছাতার তলায় টেনে এনে মোদি বিরোধী হাওয়া আরও তুঙ্গে তুলে দিতে। দেখার বিষয় এই নেতানেত্রীরা নিজেরা এই বিষয়ে কতখানি আগ্রহ দেখান।   

2020 New Ad HDFC 04

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Momo

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 026 BM

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

দায়িত্ব নেওয়ার পরেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে নতুন মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্র সচিব

কোভিড হাসপাতালে পরিণত হল ইসলামিয়া হাসপাতাল, উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

কোভিড হাসপাতালে পরিণত হল ইসলামিয়া হাসপাতাল, উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম

জামিনে মুক্ত হয়েই শুক্রবার রাত থেকেই কাজে নামেন ববি হাকিম, আজ এক হাসপাতালের উদ্বোধনে হাজির রাজ্যের মন্ত্রী ও পুরপ্রশাসক

জামিনে মুক্ত হয়েই শুক্রবার রাত থেকেই কাজে নামেন ববি হাকিম, আজ এক হাসপাতালের উদ্বোধনে হাজির রাজ্যের মন্ত্রী ও পুরপ্রশাসক

করোনার সময় এই অতিরিক্ত করোনা হাসপাতাল সাধারণ মানুষের উপকারে লাগবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম

করোনার সময় এই অতিরিক্ত করোনা হাসপাতাল সাধারণ মানুষের উপকারে লাগবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম

পূর্বস্থলী ১ নং ব্লকের দক্ষিণ শ্রীরামপুর বাজার স্যানিটাইজেশনে নামলেন বিধায়ক স্বপন দেবনাথ

পূর্বস্থলী ১ নং ব্লকের দক্ষিণ শ্রীরামপুর বাজার স্যানিটাইজেশনে নামলেন বিধায়ক স্বপন দেবনাথ

নির্বাচনের সময় থেকেই করোনা সচেতনতা প্রচারে জোর দিয়েছেন বিদায়ী মন্ত্রী

নির্বাচনের সময় থেকেই করোনা সচেতনতা প্রচারে জোর দিয়েছেন বিদায়ী মন্ত্রী

করোনা নিয়ে নিজের বিধানসভার একাধিক এলাকায় সচেতনতা প্রচার চালিয়েছেন স্বপন দেবনাথ

করোনা নিয়ে নিজের বিধানসভার একাধিক এলাকায় সচেতনতা প্রচার চালিয়েছেন স্বপন দেবনাথ

কোভিড বিধি মেনেই কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬০ তম জন্মবার্ষিকী পালন করলেন স্বপন দেবনাথ

কোভিড বিধি মেনেই কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬০ তম জন্মবার্ষিকী পালন করলেন স্বপন দেবনাথ

নিজের এলাকাতেই ২৫ শে বৈশাখ উদযাপন করেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী

নিজের এলাকাতেই ২৫ শে বৈশাখ উদযাপন করেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Momo
Comm Ad 006 TBS