Comm Ad 2020-LDC epic

সর্বোচ্চ সংক্রমণ আর রেকর্ড মৃত্যু নিয়ে উৎসব আবহে ত্রাস হল কোভিড

Share Link:

সর্বোচ্চ সংক্রমণ আর রেকর্ড মৃত্যু নিয়ে উৎসব আবহে ত্রাস হল কোভিড

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতার বুকে কার্যত সব বড় বড় পুজোর উদ্বোধন করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার তৃতীয়া। এদিন থেকেই সরকারি ভাবে কলকাতার বুকে শুরু হয়ে যাচ্ছে উৎসব। এদিন থেকেই কলকাতার বুকে রাত জেগে ঠাকুর দেখার পালা শুরু হয়ে যাচ্ছে। সব মণ্ডপের দরজা খুলে যাবে এদিন থেকেই সব দর্শনার্থীদের জন্য। অথচ ঠিক তার আগেরদিনই রাজ্যে তো বটেই কলকাতা আর উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বুকেও সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড গড়ে দিল কোভিড। একই সঙ্গে রাজ্যে মৃত্যুর নয়া রেকর্ডও গড়ে দিয়েছে এই মারণ ভাইরাস। স্বাভাবিক ভাবেই পুজোর মধ্যে এই সংক্রমণ কোথায় গিয়ে পৌঁছায় আর পুজোর পরে কী হয় তা নিয়েই এখন শুরু হয়েছে চূড়ান্ত জল্পনা আর আশঙ্কা।
 
রবিবার রাতে রাজ্য সরকার যে কোভিড তথ্য পেশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে প্রায় ৪টি নতুন রেকর্ড গড়েছে কোভিড। প্রথম রেকর্ড একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ সারা রাজ্যে। গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে ৩ হাজার ৯৮৭জন আক্রান্ত হয়েছেন। একদিনে এর আগে এত বেশি সংখ্যক মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হননি এই রাজ্যে। তবে মনে করা হচ্ছে এই রেকর্ড দীর্ঘস্থায়ী হবে না। কারন যে হারে কোভিড নিত্যদিন লাফ দিচ্ছে তাতে কার্যত সব মহলই মনে করছে আগামিকালই রাজ্যে একদিনে ৪ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হওয়ার খবর উঠে আসবে। এদিন দ্বিতীয় যে রেকর্ডটি কোভিড গড়েছে তা হল একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু এই রাজ্যে, ৬৪জন। এর আগে একদিনে এত বেশি সংখ্যক মানুষ এই রাজ্যে কোভিডে মারা যাননি। তৃতীয় যে রেকর্ড কোভিড গড়েছে তা হল রাজ্যে কোভিডে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৬ হাজারের সীমা পার করে দেওয়া। রাজ্যে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫৬জন। চতুর্থ যে রেকর্ডটি কোভিড গড়েছে তা হল একদিনে একটি জেলায় ৮ শতাধিক মানুষের আক্রান্ত হওয়ার রেকর্ড। গত ২৪ ঘন্টায় উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় ৮৩৮জন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে এই রাজ্যে একটি জেলায় এত বেশি সংখ্যক মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হননি।
 
গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩ হাজার ১১৩জন। কোভিড টেস্ট করিয়েছেন ৪৩ হাজার ৫২০জন। রাজ্যে সক্রিয় কোভিড কেস রয়েছে ৩৩ হাজার ৯২৭টি। রাজ্যে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ২১ হাজার ৩৬। মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লক্ষ ৮১ হাজার ৫৩। সুস্থতার হার ৮৭.৫৫শতাংশ। মোট টেস্ট হয়েছে ৩৯ লক্ষ ৯১ হাজার ২৭০টি। পজিটিভের হার দাঁড়িয়েছে ৮.০৪ শতাংশ। উত্তর ২৪ পরগনার পরে রাজ্যে সব থেকে বেশি মানুষ গত ২৪ ঘন্টায় সব থেকে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন কলকাতায়, ৮১৩জন। তারপরেই রয়েছে হাওড়া ২৬৯জন, দক্ষিন ২৪ পরগনায় ২৬৪জন, জলপাইগুড়িতে ১৮০জন, নদিয়ায় ১৭৪জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১৬৬জন, হুগলিতে ১৪৮জন, পূর্ব মেদিনীপুরে ১৪০জন ও দার্জিলিংয়ে ১১১জন। মালদা ও পশ্চিম বর্ধমানে ১০৩জন করে আক্রান্ত হয়েছেম গত ২৪ ঘন্টায়। বাকিরা অনানু জেলায় ছড়িয়ে আছেন। যে ৬৪জন মারা গিয়েছেন গত ২৪ ঘন্টায় তাঁদের মধ্যে ১৭জন উত্তর ২৪ পরগনার ও ১৩জন কলকাতার। হাওড়ায় ৭জন ও হুগলিতে ৪জন মারা গিয়েছেন। উত্তর দিনাজপুর, বীরভূম ও দক্ষিন ২৪ পরগনায় মারা গিয়েছেন ৩জন করে। জলপাইগুড়ি, মালদা, নদিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর ও পূর্ব বর্ধমান জেলায় মারা গিয়েছেন ২জন করে। আলিপুরদুয়ার, দক্ষিন দিনাজপুর, পূর্ব মেদিনীপুর ও পশ্চিম বর্ধমানে মারা গিয়েছেন ১জন করে।

Comm Ad 005 TBS

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-LDC Egg

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-LDC Egg

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

corona 02

Editors Choice

corona 02