এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

নির্বাচনী জনসভায় কর্মীদের উজ্জীবিত করতে বিস্ফোরক দেবাংশু ভট্টাচার্য

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাকচা: এই নির্বাচনে যদি জিততে না পারি ২০২৬ এর বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই এর জায়গায় থাকবো না।গদ্দার নিজে হিংস্র, ও যদি একবার রক্তের স্বাদ পেয়ে যায়,দলের কর্মীদের বাড়ি থেকে বেরোতে দেবে না। তমলুকে নির্বাচনী প্রচার সভায় বিস্ফোরক দেবাংশু ভট্টাচার্য(Debanshu Bhattacharya)।অপরদিকে জয়লাভ নিয়ে দলীয় আইনজীবী সেলের নেতৃত্বের সংশয়ের কথা তুলে ধরলেন কাঁথির প্রার্থী।শুক্রবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেস আইনজীবী সেলের আয়োজনে পূর্ব মেদিনীপুরের দুই লোকসভা কেন্দ্র কাঁথি ও তমলুকের তৃণমূল প্রার্থীর সমর্থনে একটি নির্বাচনী সভার আয়োজন করা হয়েছিল।

সেই প্রচার সভায় তমলুক লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী দেবাংশু ভট্টাচাৰ্য বলেন এই নির্বাচনে যদি জিততে না পারি ২০২৬ এর বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই এর জায়গায় থাকবো না,গদ্দার নিজে হিংস্র, ও যদি একবার রক্তের স্বাদ পেয়ে যায়,দলের কর্মীদের বাড়ি থেকে বেরোতে দেবেনা,গোটা জেলাটা বাকচা(Backcha) হয়ে যাবে।তাই সবাইকে একজোট হওয়ার বার্তা দেন দেবাংশু। প্রসঙ্গত ভোট আসলেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পূর্ব মেদিনীপুরের ময়নার বাকচা।বোমাবাজি থেকে শুরু করে খুন সব কিছুই দেখা যায় ভোটের প্রাক্কালে।তাই এই লড়াই টা ডু ওর ডাই লড়াই।পরে অবশ্য সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দেবাংশু ভট্টাচার্য সাফাই দেন যাতে কর্মীরা লড়াইতে গা ছাড়া মনোভাব না দেখান তাই তার এই বার্তা।

অপরদিকে কাঁথি(Kathi) লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী উত্তম বারিক(Uttam Barik) সভা মঞ্চ থেকে মন্তব্য করে বসেন জেলা নেতৃত্বের সংশয় রয়েছে কাঁথি ও তমলুক লোকসভা তৃণমূল জিততে পারবে কিনা।পরে এই নিয়ে বলেন, আইনজীবী সেল তারা প্রত্যক্ষ রাজনীতির সাথে যুক্ত না, তাই তাদের মনের মধ্যে সংশয় দেখা দিয়েছে। তবে এই দুই আসন থেকে  সাধারণ মানুষ তৃণমূলকেই জয়লাভ করাবে।তবে এই দুই প্রার্থীকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

ঝাড়খন্ড থেকে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী জাকির হোসেনকে হুমকি দিল দুষ্কৃতীরা, তৎপর পুলিশ

সাইক্লোন এগোচ্ছে দ্রুতগতিতে স্থলভাগের দিকে, রবিবার সারারাত চলবে তাণ্ডব

ঝড় মোকাবেলায় প্রস্তুত হলদিয়া, নবদ্বীপ পুরসভা চালু করল বিশেষ হেল্প লাইন নম্বর

রামলালকে কাঁঠাল দিয়ে বরন করল জঙ্গলমহলের গ্ৰামবাসীরা

হাওড়ার শালিমার স্টেশনে দূরপাল্লার দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের চাকায় আটকানো হল চেন ও তালা

ঘূর্ণিঝড় রিমলের আগেই হাসনাবাদের দু’জায়গায় ধসল নদী বাঁধ

Advertisement
এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর