corona 01

তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ধূপগুড়ি! চোখ হারানোর উপক্রম এসআইয়ের

Share Link:

তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ধূপগুড়ি! চোখ হারানোর উপক্রম এসআইয়ের

নিজস্ব প্রতিনিধি: তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষকে ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল জলপাইগুড়ি জেলার ধূপগুড়ি এলাকা। ঘটনার জেরে ইটের আঘাতে চোখ হারাতে বসেছেন রাজ্য পুলিশের এক আধিকারিক। রীতিমত রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্থানীয় হাসপাতালে। এদিন ধূপগুড়ি ব্লকের ঝাড়আলতা-২ গ্রাম পঞ্চায়েত বিজেপির ডেপুটেশনকে কেন্দ্র করেই তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। সেই সংঘর্ষের জেরেই জখম হন ওই পুলিশ আধিকারিক সহ উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন কর্মী তথা সদস্য।  
 
জানা গিয়েছে, এদিন ঝাড়আলতা-২ গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়ে ছিল বিজেপির ডেপুটেশন। বিজেপির কর্মী ও সমর্থকেরা সেই কারনে ডেপুটেশন দেওয়ার জন্য মিছিল বার করে। কিন্তু সেই মিছিল যাতে বিডিও অফিসের ধারে কাছে না ঘেঁষ তে পারে তার জন্য সক্রিয় হয়ে ওঠে তৃণমূল। বিডিও অফিসের কাছাকাছি আসা মাত্রই বিজেপি সেই মিছিল আটকে দেয় তৃণমূল। মিছিল আটকাবার জন্য রীতিমত পথ আটকে সভাও করতে শুরু করে তৃণমূল। পাশাপাশি বিডিও অফিস ঘিরে তৃণমূলকর্মীরা দাঁড়িয়ে পড়েন। বিজেপি কর্মীরা সেই ঘেরাও হটিয়ে এগোতে গেলেই তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী ও সমর্থকদের সঙ্গে তাঁদের হাতাহাতি শুরু হয়। দুই রাজনৈতিক দলের এই সংঘর্ষের জেরে এলাকা উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে আন্দাজ করেই বিডিও অফিসের কাছে পজিশন নিয়েছিল পুলিশ। তাঁরাও বিজেপির কর্মী ও সমর্থকদের বাধা দেয় ডেপুটেশন প্রদানকে ঘিরে।
 
পুলিশ বিজেপির মিছিল আটকানোর সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি শুরু করে বিজেপির কর্মী ও সমর্থকেরা। তার জেরেই ইট এসে পড়ে ধূপগুড়ি থানার এসআই সরোজ প্রধানের মুখের ওপরে। সেই ইটের ঘায়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয় তাঁর চোখ। রীতিমত রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ধূপগুড়ি গ্রামীন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকেই সন্ধ্যা বেলায় তাঁকে রেফার করা হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। তাঁর চোখের দৃষ্টিশক্তি কার্যত নষ্ট হতে বসেছে বিজেপির এই গুণ্ডামির জন্য। অনেকেই এদিন অভিযোগ করেছেন নবান্ন অভিযানের নামে বিজেপি যে ধরনের গুণ্ডামি করেছে সেই একই পথে এদিন তারা গুন্ডামি করেছে ধূপগুড়িতে। এই ঘটনার পরে এলাকায় আসে বিশাল পুলিশবাহিনী। তাঁরা এই ঘটনার জন্য বেশ কিছু বিজেপি নেতা-কর্মী ও সমর্থককে আটক করেছে।

Comm Ad 005 TBS

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 006 TBS

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

Editors Choice

Comm Ad 008 Myra