এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




সিএএতে আবেদন করলে ভোটের পরে জেলে ভরে দেবে, দাবি মমতার




নিজস্ব প্রতিনিধি, ঝাড়গ্রাম: সি এ এ তে আবেদন করলে ভোটের পর জেলে ভরে দেবে। জঙ্গলমহলে নির্বাচনী জনসভায় এই মন্তব্য করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)।শুক্রবার ঝাড়গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী কালিপদ সরেনের সমর্থনে গোপীবল্লভপুর বিধানসভার অন্তর্গত ঝাড়গ্রাম ব্লকের গজাশিমূল মাঠে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে নির্বাচনী জনসভার আয়োজন করা হয়। এদিনের এই জনসভায় মানুষের ঢল ছিল চোখে পড়ার মতো। জনসমুদ্র তৈরি হয়েছিল ঝাড়গ্রামের এই গজাশিমুল মাঠে।ওই নির্বাচনী জনসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী ডাঃমানস রঞ্জন ভুঁইয়া, বীরবাহা হাঁসদা, শ্রীকান্ত মাহাত, ইন্দ্রনীল সেন, প্রার্থী কালিপদ সরেন, বিধায়ক দুলাল মুর্মু, দেবনাথ হাঁসদা, ডাঃ খগেন্দ্রনাথ মাহাত, প্রাক্তন সাংসদ ডাঃ উমা সরেন, তৃণমূল কংগ্রেসের মেদিনীপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি সুজয় হাজরা সহ আরো অনেকে।

ওই জনসভায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তার ভাষণে বলেন, সি এ এ তে নাম নথিভুক্ত করলে ভোটের পর জেলে ভরে দেবে। তিনি বলেন, সবচেয়ে বড় চোর বিজেপি(BJP)। মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেয় আর বিভিন্ন সংবাদপত্রে ছবি দিয়ে মিথ্যা বিজ্ঞাপন দেয়। সিএএ কে বিশ্বাস করবেন না, কেউ নাম নথিভুক্ত করবেন না। যদি কেউ নাম নথিভুক্ত করে থাকেন ওরা ভোটের পর জেলে ভরে দেবে। সব থেকে বড় মিথ্যাবাদী মোদি। মোদিকে বিশ্বাস করবেন না। জঙ্গলমহলে আসবে আবার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেবে। তাই মোদির কথা কেউ শুনবেন না এবং বিশ্বাস করবেন না। তিনি বলেন, আদিবাসীদের সারি ও সারনা ধর্মের স্বীকৃতির জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন করা হয়েছে। কিন্তু কেন্দ্র সরকার এখনো সারি ও সারনা ধর্মের স্বীকৃতি দেয় নি। আদিবাসীদের জমি হস্তান্তর করা যাবে না, রাজ্য সরকার আইন করে পাস করিয়ে দিয়েছে বিধানসভায়। জঙ্গলমহলে সিপিএমের যে হার্মাদরা গুলি চালাতো, মানুষ খুন করতো, সন্ত্রাস করত, তারা এখন বিজেপির হার্মাদ হয়েছে। তাই তাদের বিশ্বাস করবেন না, এলাকায় ঢুকতে দেবেন না, তাদের ফিরিয়ে আনবেন না। শান্ত জঙ্গলমহলকে ফের অশান্ত করে তোলার চক্রান্ত করা হচ্ছে। আপনারা শান্ত জঙ্গলমহলকে অশান্ত করতে দেবেন না। আমি জঙ্গলমহলে যার হাত ধরে প্রবেশ করেছিলাম তার নাম ছত্রধর মাহাত(Chattradhar Mahato)। জঙ্গলমহলের আর কি চাই , জঙ্গলমহলে(Jangalmahal) অনেক কাজ হয়েছে ,বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করা হয়েছে, ঝাড়গ্রাম মেডিকেল কলেজ তৈরি করা হয়েছে, সুবর্ণরেখা নদীর উপর ভরসা ঘাটের সেতু নির্মাণ হয়েছে , রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হয়েছে ,পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হয়েছে, স্কুল কলেজের উন্নয়ন করা হয়েছে।

দু’বছর ধরে রেশনের প্রাপ্য টাকা কেন্দ্র সরকার দেয় নি, রাজ্য সরকার সেই টাকা দিচ্ছে। ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের টাকা বন্ধ করে দিয়েছে ,বাড়ি তৈরির টাকা দেয়নি? ডিসেম্বর মাসে এগারো লক্ষ পরিবারকে বাংলার বাড়ি প্রকল্পে টাকা দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ভোট এলে মোদি বাবুকে দেখা যায়, ভোট শেষ তারপর মোদী বাবুকে দেখা যায় না। এবার কেন্দ্রে ইন্ডিয়া(INDIA) জোট সরকার গড়বে সেই সরকারকে বাইরে থেকে সমর্থন করবে তৃণমূল কংগ্রেস। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, সিপিএম জমানায় বেলপাহাড়িতে(Belpahari) পিঁপড়ে খেয়ে মানুষ জীবিকা অর্জন করত। আমি সেই গ্রামে গিয়েছিলাম, সেই সময় নিজের চোখে সবকিছু দেখেছি। এখন সেই পরিস্থিতি নেই মানুষ দুবেলা দুটো ভাত খেতে পারছে। তাই বিজেপি ও সিপিএমকে ভোট না দেওয়ার জন্য তিনি আবেদন করেন। প্রচন্ড গরম উপেক্ষা করে বহু মানুষ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা শোনার জন্য ওই সভায় সামিল হয়েছিলেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমি সব ধর্মের মানুষের পাশে রয়েছি, আমি ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করিনি ,অসহায় মানুষের পাশে থাকা আমার কর্তব্য। তাই বারবার আমি এই জঙ্গলমহলে ছুটে আসি, অরণ্য সুন্দরী জঙ্গলমহলকে আমি ভালোবাসি। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, জঙ্গলমহলের শান্তি অটুট থাকুক এটাই আমি কামনা করি । তাই জঙ্গলমহলের উন্নয়নকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য দলের প্রার্থী সাহিত্যিক কালিপদ সরেন কে ঘাসের উপর জোড়া ফুল চিহ্নে ভোট দিয়ে আশীর্বাদ করার জন্য তিনি সর্বস্তরের মানুষের কাছে আহ্বান জানান।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

পাটক্ষেতে অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় চাঞ্চল্য

প্রকাশ্য দিবালোকে শান্তিপুর স্টেশন রোডে সোনার দোকানে লুঠের চেষ্টা, ধৃত ১

রোগী মৃত্যুর ঘটনায় উত্তেজনা ছড়াল পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে

হাওড়ার ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে পানীয় জলে পোকা, এলাকায় ছড়াচ্ছে জন্ডিসের প্রকোপ

হাওড়ার হুগলি নদীতে কুমিরের আনাগোনায় বন্ধ একাধিক গঙ্গার ঘাট

কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনার জের, বেশি কিছু ট্রেনের সময়সূচি বদল

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর