Comm Ad 2020-Valentine body

ভরসা নেই বিজেপিতে, তবুও স্মারকলিপি মোদিকে

Share Link:

ভরসা নেই বিজেপিতে, তবুও স্মারকলিপি মোদিকে

নিজস্ব প্রতিনিধি: যে দল তথা সংগঠনের কোনও অস্তিত্বই নেই তাঁরাও এবার দেশের প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি পাঠাতে শুরু করে দিল। তাই আবার পৃথক রাজ্য আর ভাষার দাবিতে। স্বাভাবিক ভাবেই বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি উঠে পড়ে লেগেছে গোটা বিষয়টিকে বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্র হিসাবে দেখাতে। তাঁদের দাবি, বাংলাকে টুকরো টুকরো করে ভাগ করার গৈরিক ষড়যন্ত্রের অংশই হল প্রধানমন্ত্রীকে নাম না জানা এক সংগঠনের তরফে স্মারকলিপি পাঠানো। সবটাই বিজেপিরই খেলা। ঘটনার নেপথ্যে কামতাপুর প্রোগ্রেসিভ পার্টির সদস্যদের পাঠানো স্মারকলিপি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পাঠানো সেই স্মারকলিপিতে এই সংগঠনের সদস্যরা পৃথক কামতাপুর রাজ্য গঠনের দাবি জানিয়েছেন ও কামতাপুরী ভাষাকে সংবিধানের অষ্টম তফসিলিতে অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন।
 
শুক্রবার জলপাইগুড়ি জেলা শাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে স্মারকলিপি প্রদান করলেন কামতাপুর প্রোগ্রেসিভ পার্টির সদস্যরা। সেই স্মারকলিপিতে তাঁরা পৃথক রাজ্য গঠনের দাবি ও কামতাপুরী ভাষাকে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি ছাড়াও আরও বেশ কিছু দাবি জানিয়েছেন। সেই সব দাবির মধ্যে আছে, চিলা রায়ের জন্ম ও মুত্যু দিনকে কেন্দ্রীয় ভাবে সরকারি ছুটি ঘোষণা করতে হবে, উত্তরবঙ্গে এইমস হাসপাতাল সহ গোর্খা সেনার মত নারায়নী সেনা তৈরি করতে হবে, সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে, স্কুলে কামতাপুরী ভাষায় পড়াশোনার ব্যবস্থা করতে হবে ইত্যাদি। এদিন কামতাপুর প্রোগ্রেসিভ পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি বুধারু রায় বলেন, ‘কেন্দ্র সরকার ২০০৯ সালে ও ২০১৪ সালে নির্বাচনে বলেছিল কামতপুরদের দাবি পূরণ করবে। সেই দাবি আজও পূরণ হয়নি। এর প্রতিবাদ জেলা শাসকের মাধ্যমে দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে ছয় দফা দাবী তুলে দেওয়া হল এদিন।’
 
কিন্তু ঘটনা হচ্ছে বিজেপি সাংসদ জন বার্লা যখন পৃথক উত্তরবঙ্গ রাজ্যের দাবি তুলেছিলেন তখন এই বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারাই সেই দাবির বিরোধীতা করে বলেছিলেন, ‘বিজেপির ফাঁদে পা দেওয়া উচিত নয়।  কারণ লোকসভা নির্বাচনের আগে তারা যেসকল প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তার একটিও উত্তরবঙ্গের মানুষের জন্য পালন করেনি। তাই বিজেপির উপর আস্থা না রাখাই ভাল।’ অথচ এদিন তাঁরাই পৃথক রাজ্য গঠনের দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি পাঠালেন। এসব দেখে বাম থেকে কংগ্রেস মায় তৃণমূলও একযোগে সরব হয়েছে এই অস্তিত্বহীন সংগঠনটির কার্যকলাপ নিয়ে। তাঁরা একসুরে বলেছেন, এরা আদতে বিজেপির শাখা সংগঠন হিসাবেই কাজ করছে আর তাঁদের ইশারায় বাংলা ভাগের জিগির তুলছে।

Puja21-Ad02

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-himalaya RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-Valentine RC

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Momo
Comm Ad 2020-himalaya RC