এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

নামখানা এলাকায় নদী বাঁধে বড় ফাটল, বাঁধ তৈরীর নামে দুর্নীতির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি,নামখানা: আবারো দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নামখানায় এলাকায় নদী বাঁধে বড় ফাটল, বাঁধ তৈরীর নামে নানা রকম দুর্নীতির অভিযোগ। আয়লা, আমফান ও ইয়াসের দগদগে ক্ষত আজও রয়ে গিয়েছে মথুরাপুর(Mathurapur) লোকসভা কেন্দ্রের পাথরপ্রতিমা, নামখানা, সাগরদ্বীপ, রায়দিঘি ও কাকদ্বীপের(Kakdwip) বিস্তৃর্ণ এলাকাজুড়ে। আবারো নামখানার বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে নদী বাদে দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাটল, আতঙ্কে এলাকাবাসী।পূর্ণিমা-অমবস্যার কোটাল সহ বর্ষার তিনমাস নদী এবং সমুদ্র বাঁধে ফাটল ও ভাঙনের জেরে অনেক সময় এলাকায় নোনা জল ঢুকে ক্ষতি হয় কাঁচা বাড়ি, চাষের জমি, সবজি বাগান এবং মাছ চাষের পুকুর।

সুন্দরবনবাসীদের অভিযোগ, ভোট এলেই বাঁধ তৈরী নিয়ে হাজারও প্রতিশ্রুতি দেয় শাসক দলের নেতারা। আর ভোট ফুরোলেই যেই কে সেই ! আর ভাঙন আটকাতে বাঁশ ও কাঠের রেলিং দিয়ে মাটির বাঁধ নির্মাণ করা হয় তা খুবই নিম্নমানের। তাতে বিশেষ কিছু কাজ হয় না বলেও অভিযোগ। মাটির বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে গত কয়েক বছর ধরে স্থায়ী কংক্রিটের বাঁধ(Dam) তৈরির দাবি জানিয়ে আসছেন উপকূলের বাসিন্দারা। কিন্তু তাদের দাবি কেউ কোনরকম কর্ণপাত করে না। আর তাই নির্বাচনের মুখে বেহাল নদী ও সমুদ্র বাঁধের ভাঙন সমস্যার পাশাপাশি তৃণমূল নেতাদের দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছে বিরোধীরা। ভোটের প্রচারে এক ধাপ এগিয়ে বিজেপি স্থায়ী কংক্রিটের বাঁধ নির্মাণের প্রতিশ্রুতিও দিচ্ছে। বর্তমানে মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের ভোটার সংখ্যা ১৮, ১৬, ৪৫৪।

আর এই ভাঙন কবলিত এলাকার বাসিন্দাদের ভোট এবারের নির্বাচনে শাসক তৃণমূলের কাছে বড় ফ্যাক্টর হতে পারে বলে রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারনা। তবে বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, দুর্নীতির নামে কুৎস্যা করে কোন লাভ হবে না বিরোধীদের।ওরা মিথ্যে কথা বলছে। সুন্দবনজুড়ে সমস্ত নদী ও সমুদ্র বাঁধ স্থায়ী করা হচ্ছে। ভাঙনের বড় অংশে কংক্রিটের বাঁধ তৈরী হয়েছে ও কাজ চলছে। মানুষ সব জানে। তাই উন্নয়নকে সামনে রেখে মানুষ আবার তৃণমূলকেই ভোট দেবে।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

সাইক্লোন এগোচ্ছে দ্রুতগতিতে স্থলভাগের দিকে, রবিবার সারারাত চলবে তাণ্ডব

ঝড় মোকাবেলায় প্রস্তুত হলদিয়া, নবদ্বীপ পুরসভা চালু করল বিশেষ হেল্প লাইন নম্বর

‘বিষদাঁত আমি ভেঙে দেব, কী নোটিস পাঠাতে হয় আমি দেখিয়ে দেব’, পাট্টার আশ্বাস মমতার

রামলালকে কাঁঠাল দিয়ে বরন করল জঙ্গলমহলের গ্ৰামবাসীরা

‘আমার প্রার্থী সায়নী, আগের বার আপনারা অতটা সার্ভিস পাননি’ মিমি প্রসঙ্গে মমতা

হাওড়ার শালিমার স্টেশনে দূরপাল্লার দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের চাকায় আটকানো হল চেন ও তালা

Advertisement
এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর