Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

বিক্রি হয়ে গেছে পার্টি অফিস, জানেই না আরএসপি! কাঠগড়ায় বক্সি

Share Link:

বিক্রি হয়ে গেছে পার্টি অফিস, জানেই না আরএসপি! কাঠগড়ায় বক্সি

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতায় বসে থাকে দলের রাজ্যস্তরের শীর্ষ নেতারা জানেনই না তাঁদের দলের কার্যালয় বিক্রি হয়ে গিয়েছে। সম্প্রতি তা দলের নজরে আসতেই তাঁরা জানতে পেরেছেন দলের প্রাক্তন বিধায়কই ওই কার্যালয়টি বিক্রি করে দিয়েছেন। তাও আবার নিজের স্ত্রীকেই। কারন যে জমির ওপরে ও বাড়িতে ওই কার্যালয় ছিল তা বিধায়কের পৈতৃক সম্পত্তি। যদিও আরএসপির রাজ্য নেতৃত্ব এই দাবি মানতে নারাজ। তাঁরা প্রাক্তন বিধায়কের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করতে চলেছে। ঘটনাচক্রে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছে রাজ্যের শাসক দলেরও নাম। কেননা ওই প্রাক্তন বিধায়ক এখন তৃণমূলেই রয়েছেন। যদিও এই বিষয়টি সম্পূর্ণ ভাবেই আরএসপি ও প্রাক্তন বিধায়কের মধ্যেকার বিষয় বলেই জানিয়ে দিয়েছে শাসকদল। সেখানে তাঁদের কোনও ভূমিকা নেই বলেই তাঁদের বক্তব্য।
 
যে পার্টি অফিস ঘিরে এই বিবাদ তার অবস্থান মালদা জেলার চাঁচোল মহকুমার কাশিপাড়া এলাকায়। সেখানে থাকা আরএসপির কার্যালয় বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মালতিপুর বিধানসভার প্রাক্তন আরএসপি বিধায়ক আব্দুর রহিম বক্সির বিরুদ্ধে। আরএসপির অভিযোগ, জালিয়াতি করে ওই পার্টি অফিস বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় চাঁচোল থানার পুলিশের কাছে দলের তরফে লিখিত অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আরএসপি-র জেলা সম্পাদক সর্বানন্দ পান্ডে। তাঁর অভিযোগ, মালতীপুর বিধানসভার প্রাক্তন বিধায়ক আব্দুর রহিম বক্সি অবৈধভাবে তাঁর স্ত্রীর কাছে কাশীপাড়ার ওই পার্টি অফিস বিক্রি করে দিয়েছেন। রহিম বক্সি দীর্ঘদিন ধরেই আরএসপি দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। মালতীপুরে আরএসপি-র টিকিটে জিতে তিনি বিধায়কও নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন।
 
আরএসপি-র অভিযোগ, দলত‍্যাগ করার পরে আরএসপি-র দলীয় কার্যালয় নিয়ে জালিয়াতি করেছেন প্রাক্তন বিধায়ক। পার্টি অফিস নিজের স্ত্রীর কাছে 'বিক্রি' করেছেন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে প্রাক্তন বিধায়ক আবদুর রহিম বক্সি জানিয়েছেন, ‘জমিটি আমার ব্যক্তিগত সম্পত্তি। পৈতৃকসূত্রে তা আমি পেয়েছি। এই ধরনের অভিযোগ তুলে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আমাকে কলুষিত করার জন‍্য চক্রান্ত করা হচ্ছে। এটা রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র। আমি যা করেছি তা নিয়মমাফিক করেছি। কোনও অবৈধ কাজ হয়নি। ওই জমি ও পার্টি অফিস আমার নামে ছিল। বেআইনি কাজ হয়েছে বলে প্রমাণ করতে পারলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব।’ যদিও সর্বানন্দ পান্ডে জানিয়েছেন, ‘আরএসপি-র নামে রেজিস্ট্রি করা পার্টি অফিস অবৈধভাবে যে কেউ বিক্রি করতে পারেন না। যিনি দলের সম্পাদকের পদে থাকেন, তখন পার্টি অফিসের মালিকানা তাঁর অধীন থাকে। সেই নেতা দল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরে সেই অফিসের উপর তাঁর কোনও অধিকার থাকে না। রহিম বক্সি অবৈধভাবে মিটিং ডেকে স্ত্রী আয়েষা খাতুনের  নামে ওই পার্টি অফিসটির বিক্রিনামা দলিল বানিয়েছেন। এটা বেআইনি কাজ। আমরা থানায় এফআইআর দায়ের করেছি।’ চাঁচোল থানার আইসি সুকুমার ঘোষ এই বিষয়ে জানিয়েছেন, ‘দলীয় কার্যালয় বিক্রি সংক্রান্ত বিষয়ে একটি অভিযোগ আরএসপি’র তরফে আমাদের কাছে এসেছে। অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ করা হবে।’

corona 01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-Valentine RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-LDC Momo

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 008 Myra

Editors Choice

Comm Ad 2020-LDC Momo