2020 New Ad HDFC 04

পাহাড় নিয়ে বাড়তি সতর্ক প্রশাসন! অশান্তির আশঙ্কায় প্রস্তুতি পুলিশের

Share Link:

পাহাড় নিয়ে বাড়তি সতর্ক প্রশাসন! অশান্তির আশঙ্কায় প্রস্তুতি পুলিশের

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলার বাতাসে হেমন্তের রেশ। পাহাড়ে কনকনে ঠাণ্ডা। কিন্তু তারই মধ্যে রাজনীতির পারা চড়তে শুরু করে দিয়েছে দার্জিলিংয়ের পার্বত্য এলাকায়। আর তার জেরে অশান্তির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে হিমালয়ের রানীর কোলে। একদিকে বিমল গুরুং ও রোশন গিরির পাহাড়ে প্রত্যাবর্তনের সম্ভাবনা ও অন্যদিকে সেই প্রত্যাবর্তন ঠেকাতে বিনয় তামাং ও অনিত থাপার আন্দোলনের জেরেই এখন পাহাড়ের আঁচ ক্রমশই চড়ছে। একই সঙ্গে প্রশাসনের অনুমান বিমল পাহাড়ে পা রাখার চেষ্টা করলেই সেখানকার পরিস্থিতি অশান্তির দিকে এগিয়ে যাবে। ঠিক যেভাবে সিবাস ঘিসিংকে পাহাড়ছাড়া করে সেখানকার মুকুটহীন সম্রাট হয়ে উঠেছিলেন গুরুং-গিরি এখন সেটাও তাঁদের সঙ্গে করতে পারেন তামাং-থাপা। আর এই অশান্তি ঠেকাতেই এবার সময় থাকতে থাকতেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিল পুলিশ প্রশাসন।  
 
কলকাতায় আত্মপ্রকাশ করেই বিমল জানিয়েছিলেন, মোর্চা আর এনডিএ-তে থাকছে না। মোর্চা এবার তৃণমূলের সঙ্গে জোট করে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করবে। কিন্তু গুরুংয়ের এই পাল্টিবাজি মানতে পারেননি পাহাড়ের একটা বড় অংশ। তাঁদের বক্তব্য, সেই রাজ্যের সঙ্গেই যখন সমঝোতা করতে হবে, তৃণমূলের সঙ্গেই যখন জোট করতে হবে তখন ২০১৭ সালে পায়ে পা লাগিয়ে কেন রাজ্যের সঙ্গে ঝগড়া বাঁধিয়েছিলেন গুরুং। কেনই বা টানা সাড়ে তিন মাস ধরে পাহাড়ের স্বাভাবিক জনজীবন স্তব্ধ করে দিয়েছিলেন! এখন নতুন করে পাহাড়ে এসে আবার কোন অশান্তির বীজ বুনতে চান তিনি। শুধু এই প্রশ্ন তোলাই নয়, গুরুং-গিরির পাহাড়ে প্রত্যাবর্তন ঠেকাতে এখন রোজই পাহাড়ের কোনও না কোনও প্রান্তে মিটিং-মিছিল-সভা করে চলেছে বিনয় তামাং ও অনিত থাপা গোষ্ঠীর নেতারা। যদিও সেই সব সভা বা মিছিলে থাকছেন না তামাং বা থাপা। কার্যত পাহাড়ের মানুষকে সামনে এগিয়ে দিয়ে নিজেরা পর্দার আড়ালে থেকে যাচ্ছেন।
 
আসলে গুরুং-গিরি পাহাড়ে ফিরলে বিনয় তামাং ও অনিত থাপার হাত থেকে ক্ষমতা অনেকটাই বেড়িয়ে যাবে। তাঁদের ভূমিকা ও অস্তিত্ব হবে তখন শুধু পুতুলের মতো। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে তাঁরা এখন পিছন থেকেই গুরুং-গিরির প্রত্যাবর্তন ঠেকাতে চাইছেন। একই সঙ্গে গুরুং-গিরির এনডিএ ত্যাগ ও তৃণমূলের সঙ্গে জোটবার্তা রাজ্যের শাসক দল স্বাগত জানালেও তা নাপসন্দ বিনয় তামাং ও অনিত থাপার। কার্যত তারপর থেকেই তাঁদের সঙ্গে রাজ্য সরকার তথা তৃণমূলের দূরত্ব যেমন বেড়ে চলেছে ঠিক তেমনি তাঁদের এখন কাছে টানছে বিজেপি। শোনা যাচ্ছে পাহাড়ে এখন তামাং গোষ্ঠীর নেতারা যত মিটিং-মিছিল-সভা করছে তার পিছনে পুরো মদত রয়েছে আরএসএস, বিজেপি মায় জিএনএলএফেরও। আর এই ত্রিমুখী সমর্থনের জেরেই কার্যত থমকে গিয়েছে গুরুং-গিরির পাহাড়ে প্রত্যাবর্তনের সম্ভাবনা। যদিও রাজ্য পুলিশ প্রশাসনের কাছে খবর এসেছে যে পাহাড়ে যে কোনও সময়ে বড় ধরনের অশান্তি লেগে যেতে পারে। সেই অশান্তি ঠেকাতে দার্জিলিং রেঞ্জের ডিআইজি অমিত জাভালগি চূড়ান্ত সতর্কবার্তা পাঠিয়েছেন দার্জিলিং ও কালিম্পং এই দুই জেলার পুলিশকর্তাদের। গুরুংকে ঘিরে যাতে পাহাড়ে কোনও রকমের আইনশৃঙ্খলার সমস্যা দেখা না দেয়, সে দিকে নজর রাখতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এমনকি যাঁরা বিভিন্ন মামলায় ফেরার, তাঁরা যদি আত্মসমর্পণ করতে চান বা পাহাড়ে ফিরে আসতে চান, তাঁদের সেই সুযোগ করে দেওয়ার পাশাপাশি তাঁদের নিরাপত্তার দিকটিও নজর রাখতে বলেছেন পুলিশকে। এই সংক্রান্ত প্রতিটি মামলার তথ্য, কেস ডায়েরিও পুলিশকে তৈরি রাখতে বলেছেন তিনি। 

corona 01

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 006 TBS

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WB Tourism RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Egg

Editors Choice

Comm Ad 2020-himalaya RC